সুদানে বিক্ষোভকারীদের ওপর সেনাবাহিনীর গুলি, নিহত ১৩

প্রাইম আন্তর্জাতিক  :

সুদানের খার্তুমে সেনা সদর দপ্তরের সামনে অবস্থানরত বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে দেশটির সেনাবাহিনী তাদের ওপর অতর্কিতে ‘হামলা’ চালিয়েছে। এতে অন্তত ১৩ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে শতাধিক।বিক্ষোভকারীদের একটি সংস্থা এ তথ্য জানায়। খবর আনাদলুর।

এএফপি’র একজন সংবাদদাতা জানান, বিক্ষোভস্থল থেকে গোলাগুলির শব্দ শোনা গেছে। এছাড়া রাজধানীর সড়ক জুড়ে ব্যাপক সৈন্য মোতায়েন করা হয়েছে।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, দেশটির সেনাবাহিনী বিক্ষোভকারীদের ওপর প্রথমে টিয়ার গ্যাস ছুঁড়ে। এরপর তাদের ওপর ‘সাউন্ড গ্রেনেড’ দিয়ে হামলা চালায়।

গত ডিসেম্বরে শুরু হওয়া বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেয়া সুদানিজ প্রফেশনালস এসোসিয়েশন (এসপিএ) বলছে, সেনা সদরদপ্তরের বাইরে অবস্থানরতদের ছত্রভঙ্গ করতে সামরিক পরিষদ শক্তি প্রয়োগ করছে। তারা এটিকে রক্ষক্ষয়ী গণহত্যা হিসেবে উল্লেখ করে।

এপ্রিলে বশিরের কর্তত্ববাদী শাসনের অবসান ঘটলেও বিক্ষোভকারীরা সেনা সদর দপ্তরের বাইরে অবস্থান নিয়ে অস্থায়ী কর্তৃপক্ষের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে সামরিক পরিষদের কাছে দাবি জানিয়ে আসছিল।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন বিক্ষোভকারীদের ওপর শক্তি প্রয়োগ না করার আহ্বান জানিয়ে বেসামরিক শাসকের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের কথা বলেছে।

খার্তুমে মার্কিন দূতাবাস বলছে, নিরাপত্তা বাহিনী বিক্ষোভকারী ও অন্যান্য বেসামরিক নাগরিকের ওপর হামলা চালিয়েছে যা সঠিক নয় এবং তা অবশ্যই বন্ধ করতে হবে।

অন্যদিকে এর আগে ক্ষমতাসীন সামরিক পরিষদ ও বিক্ষোভের নেতাদের মধ্যে চলা আলোচনা ভেঙে গেছে। কারণ, অস্থায়ী সংস্থা প্রধান সামরিক নাকি বেসামরিক কেউ হবেন এ নিয়ে উভয়পক্ষে মতৈক্য হয়নি।