ভাড়া নিয়ে বিতন্ডা-যাত্রীকে পিষে মারলো চালক

নিজস্ব প্রতিবেদক :
গাজীপুরের সদর উপজেলার বাঘেরবাজারে ভাড়া নিয়ে বিতন্ডার জের ধরে এক যাত্রীকে গাড়ীর নিচে পিষ্ট করে দিয়েছে আলম এশিয়া পরিবহনের একটি বাস। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান যাত্রী সালাউদ্দিন আহমেদ (৩৫)।
রোববার সকাল সাড়ে দশটার দিকে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সালাউদ্দিন ঢাকার আলুবাজারের মৃত শাহাবউদ্দিনের ছেলে। সে গাজীপুর সদর উপজেলার বাঘের বাজার এলাকার আতাউর রহমান মেম্বারের বাড়িতে স্ত্রী সহ ভাড়া থেকে স্থানীয় স্কটেক্স এ্যাপারিয়াল কারখানার গাড়ী চালক ছিল।
নিহতের স্ত্রী পারুল আক্তারের ভাষ্য, সে ও তার স্বামী সালাউদ্দিন ঈদের ছুটিতে ময়মনসিংহে তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান গত পরশু। রোববার তারা ময়মনসিংহ থেকে আলম এশিয়া গাড়ীযোগে বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে তার স্বামীর সাথে ভাড়া নিয়ে পরিবহনের সহকারীর বাগ-বিতন্ডা হয়। পরে একপর্যায়ে গাড়ীর ভিতরেই সালউদ্দিনকে মারধর করে পরিবহনের সহকারী। এ ঘটনা সালাউদ্দিন মুঠোফোনে তার স্বজনদের অবহিত করেন। এরই মাঝে গাড়ীটি বাঘের বাজারে পৌছলে সালাউদ্দিন গাড়ী থেকে দ্রæত নেমে গাড়ীর সামনে গিয়ে গাড়ীটির গতিরোধের চেষ্টা করেন। এসময় গাড়ীর চালক সালাউদ্দিনকে পিষ্ট করে দ্রæত গাড়ী নিয়ে সটকে পড়েন।
পারুল আক্তার আরো জানান,তার স্বামী যখন গাড়ী থেকে নেমে যান,সে সময় চালকের সহকারীরা তাকে নামতে বাধা দেন। পরে তাকে নিয়েই গাড়ীটি চলতে শুরু করে এসময় সে কান্নাকাটি শুরু করলে ঘটনাস্থল থেকে পাঁচ কিলোমিটার দুরে নিয়ে গাড়ীর গতি কমিয়ে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়।
মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) দেলোয়ার হুসেন জানান,এ ঘটনায় জয়দেবপুর থানা পুলিশের সহায়তায় গাড়ীটি আটক করা হয়। তবে চালক ও তার সহকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা যায়নি। এই ঘটনায় হত্যা মামলা রুজু হয়েছে।