অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে কি নিষ্ঠুর নির্যাতন! দেখুন ভিডিও

প্রাইম ডেস্ক :

শেরপুরের নকলায় গাছের সাথে বেঁধে এক গৃহবধূকে এক মাস আগে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূর অভিযোগ, জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গত ১০ মে চোখে মুখে মরিচের গুড়া ছিটিয়ে তাকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করেছে তার ভাসুর ও জা (ভাসুরের স্ত্রী)। এতে ওই গৃহবধূর গর্ভের সন্তান নষ্টও হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

এদিকে ভিডিও ভাইরালের পর নির্যাতিত গৃহবধূর অভিযোগের প্রেক্ষিতে আজ বুধবার (১২ জুন) ৯ জনের নামে এবং অজ্ঞাতনামা আরও তিন থেকে চার জনকে আসামী করে মামলা নিয়েছে পুলিশ। ইতিমধ্যে নাছিমা বেগম নামে এক নারী আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পুলিশের কোন গাফিলতি আছে কিনা এবং পুরো বিষয়ে খুব দ্রুত রিপোর্ট প্রদানের জন্য জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেরপুর সার্কেল আমিনুল ইসলামকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এদিকে নকলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্যাতিতার বাড়ী পরিদর্শন করে সকল প্রকার আইনি সহায়তা দেয়া আশ্বাস দিয়েছেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নকলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাহিদুর রহমান বলেন, আমি যখনই ভিডিওটি দেখেছি তখনই ওসিকে দেখিয়েছি। প্রশাসনের পক্ষ থেকে আইনগতভাবে যতটুক সহায়তা করা যায় তাকে সে বিষয়ে সহায়তা করা হবে।

সত্যকে উদঘাটন করতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানালেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিল্লাল হোসেন

তিনি বলেন, সত্যটি উদঘাটনের জন্য আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। বিষয়টি খুব অমানবিক আমরা খুব গুরুত্ব সহকারে বিষয়টি নিয়েছি। মামলার আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।