বিএনপির দুর্দশার জন্য বেগম জিয়ার অজ্ঞতা ও তারেকের দুর্নীতি দায়ী!

প্রাইম ডেস্ক :

দুর্নীতি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি তারেক রহমানই লন্ডনে বসে বিএনপিকে ধ্বংস করে দিচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।তিনি বলেছেন, অবৈধভাবে হাজার হাজার কোটি টাকার মনোনয়ন বাণিজ্য করা যার মতলব, সে কী করে দলকে ক্ষমতায় আনবে? বিএনপি ও তাদের রাজনীতি ধ্বংস করার জন্য অন্য কাউকে দরকার নেই। বিএনপি ধ্বংসের জন্য এক তারেক রহমানই যথেষ্ট। বৃহস্পতিবার (৩ জুলাই) লন্ডনের একটি অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

এদিকে তথ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন রাজনীতি সচেতনরা। তারা বলছেন, তারেক রহমানের ভুলভাল সিদ্ধান্তের কারণেই বিএনপি একসময় দেশের রাজনীতিতে বিলুপ্ত হয়ে যাবে।তারেক রহমানকে বিএনপির জন্য চরম ক্ষতিকর হিসেবে উল্লেখ করে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ-ইনু) একজন সিনিয়র নেতা বলেন, বিএনপির রাজনৈতিক সর্বনাশের জন্য একমাত্র তারেক রহমানই দায়ী। বেগম জিয়ার রাজনৈতিক জ্ঞানের সীমাবদ্ধতা থাকার কারণে তাকে মিস গাইড করে তারেক তৎকালীন প্যারালাল সরকার গঠন করেন। সেসময়ই তারেক রহমানের কারণে দেশে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ মাথাচাড়া দেয়।তিনি আরো বলেন, যতদূর জানি- বিএনপির সিনিয়র নেতাদের চরম অবমূল্যায়ন করেন তারেক। দলটিতে তারেক এক ধরণের স্বৈরশাসন কায়েম করেছেন। তার সিদ্ধান্ত ব্যতীত দলের সিনিয়ররা কোনো কাজ করতে পারেন না। এমনকি প্রেস ব্রিফিং করতে হলেও লন্ডনে নক করতে হয়। আর জাতীয় নির্বাচনে তো ওপেন মনোনয়ন বাণিজ্য করেছেন তিনি। বিএনপিকে ব্যর্থ রাজনৈতিক দল হিসেবে ইতিহাসে পাতায় তুলে ধরতে তারেকই যথেষ্ট।এদিকে বিষয়টি ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, বিএনপির অধঃপতনের জন্য বেগম জিয়ার অজ্ঞতা ও তারেক রহমানের অহংকার দায়ী। ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে নেতাদের কোনো মূল্যায়ন করেননি বেগম জিয়া ও তার পুত্র। যার প্রায়শ্চিত্ত করতে হচ্ছে তাদের। কেউ তাদের আহ্বানে রাজপথে নামে না। বিএনপির রাজনৈতিক মৃত্যু হয়েছে। এখন শুধু শব্দেই জীবিত রয়েছে দলটি।