সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছেন তারেক রহমান

প্রাইম ডেস্ক :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে লন্ডনে বসে মিথ্যাচার ও গুজব ছড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত আসামি তারেক রহমান।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান গত ১০ বছর যাবত লন্ডনে অবস্থান করছেন। সেখানে বসে তিনি বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক মহলে চক্রান্ত করে চলেছেন। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে সরকারের বিরুদ্ধে নানা উদ্ভট ও বানোয়াট প্রতারণামূলক ভিডিও বানিয়ে তা ছড়িয়ে দিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করছেন।

এ বিষয়ে লন্ডন বিএনপির এক বহিষ্কৃত নেতা জানান, তারেক রহমান তার বাবা জিয়াউর রহমানের মতো ঠাণ্ডা মাথার কিলার। সে লন্ডনে বসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে অশ্লীল-কুরুচিপূর্ণ ভিডিও বানিয়ে দেশের সরলমনা মানুষের মনকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন। বিশেষ করে বঙ্গবন্ধু পরিবারের প্রতি অদ্ভুত ধরণের আক্রোশ কাজ করে তারমধ্যে। আমি খুব কাছ থেকে দেখেছি- তিনি বঙ্গবন্ধুর পরিবারের নামও শুনতে পছন্দ করেন না।

বিএনপির এই সাবেক নেতা বলেন, ২০০৪ সালে ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলা মামলায় মোট ৪৯ জন আসামি ছিলেন। যাদের মধ্যে ১৯ জনকে যাবজ্জীবন এবং ১৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। তারমধ্যে যাবজ্জীবনের রায় পাওয়া একজন আসামি তারেক রহমান। সে নিজের অপকর্মকে ঢেকে সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে লন্ডন থেকে অপপ্রচারে লিপ্ত । বিশেষ করে ইউটিউব এবং ফেসবুকে বানোয়াট কল্পকাহিনী নির্ভর ভিডিও বানিয়ে মানুষের দৃষ্টি অন্যদিকে নেয়ার চেষ্টা করছেন তারেক।

উল্লেখ্য, বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া গ্রুপ খুলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নামে লন্ডন থেকে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছেন তারেক রহমান। এই মিথ্যা অপপ্রচার চালাতে তারেক রহমান প্রচুর অর্থ বিনিয়োগ করছেন বলেও খবর পাওয়া গেছে। বিশেষ করে তারেক রহমানের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল এটিভি থেকে সজীব ওয়াজেদ জয়ের নামে উদ্ভট বানোয়াট প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছেন তিনি। যা উদ্দেশ্যমূলক।