যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীকে বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান শুরুর পর আলোচনায় থাকা যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীকে সংগঠনের সব কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। রবিবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়া যুবলীগে নতুনভাবে বয়সসীমা ৫৫ বছর নির্ধারণ করা হয়েছে। ​

ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে অভিযানের পর ‘একক সিদ্ধান্তে’ সংগঠন পরিচালনায় সিদ্ধহস্ত ওমর ফারুক হঠাৎ দলের ভেতরে কোণঠাসা হয়ে পড়েন। তাকে বাদ দিয়েই চলে সংগঠনের সবকিছু।

যুবলীগের সম্মেলন উপলক্ষে গণভবনে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে সংগঠনের নেতাদের বৈঠকটিও হয় ওমর ফারুক ছাড়াই হয়। এছাড়া সংগঠনটির প্রভাবশালী প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরন্নবী চৌধুরী শাওনকেও বৈঠকে দেখা যায়নি। তবে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদের নেতৃত্বে জ্যেষ্ঠ নেতারা গণভবনে যান।

৭১ বছর বয়সী ওমর ফারুক চৌধুরী দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে অভিযান শুরুর পর যুবলীগ থেকে বহিষ্কৃত নেতাদের গ্রেফতারের পর ওমর ফারুক চৌধুরীর নামও সামনে চলে আসে।