শুক্রবার, জানুয়ারি ২২
Shadow

রংপুর সিটি নির্বাচনের তফসিল আগামী মাসেই, ভোট ডিসেম্বরে

নিজস্ব প্রতিবেদক :

আগামী মাসে (নভেম্বর) রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার মধ্য দিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো সিটি নির্বাচন আয়োজন করতে যাচ্ছে কেএম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন বর্তমান কমিশন (ইসি)। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে ভোটগ্রহণের সময় টার্গেট করে নির্বাচনের কর্মপরিকল্পনা তৈরি করা হয়েছে। মঙ্গলবার কমিশন সভায় এই কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন করা হবে।

ইসির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আগামী মাসেই রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার সম্ভাবনা রয়েছে। কোনো ধরনের আইনি জটিলতা সৃষ্টি না হলে ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে ভোটগ্রহণের কাজ সম্পন্ন করতে চায় কমিশন। এলক্ষ্যে ইসির পূর্ণ প্রস্তুতি রয়েছে বলেও জানান তিনি।

২০১২ সালের ২০ ডিসেম্বর প্রথমবারের মতো রংপুর সিটি কর্পোরেশনে ভোট হয়। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ৫ বছর মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে ভোট করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সে হিসাবে ২০১৮ সালের ১৮ মার্চের মধ্যে রংপুরে নির্বাচন করতে হবে। এ সিটি কর্পোরেশনে বর্তমানে ভোটার রয়েছে ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৪২১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৯৬ হাজার ৬৫৯ এবং নারী ১ লাখ ৯১ হাজার ৭৬২ জন। সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্র ১৯৬টি, ভোটকক্ষ ১ হাজার ১৭৭টি।

কে এম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন কমিশনের তত্ত্বাবধানে এই নির্বাচন হবে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের দ্বিতীয় নির্বাচন। দলীয় প্রতীকেই এ ভোটে মেয়র পদে প্রার্থী হওয়া যাবে। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি দায়িত্ব নিয়ে পাঁচ দিনের মাথায় কুমিল্লা সিটির ভোট করেছিল বর্তমান কমিশন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির অংশগ্রহণে সেটাই ছিল এ ইসির অধীনে প্রথম নির্বাচন। জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে সব দলের অংশগ্রহণে ভোট করার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে সংলাপ শেষ করেছে কমিশন। এ অবস্থায় রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে ইসির আস্থা অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা হিসাবে দেখছেন বিশ্লেষকরা।

ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার একজন কর্মকর্তা জানান, আগামী ডিসেম্বরে রংপুর সিটির ভোট করার নীতিগত সিদ্ধান্ত রয়েছে। এখন পরবর্তী করণীয় ও তফসিলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে কমিশন সভায়। ডিসেম্বরের শেষার্ধে ভোট করতে গেলে কমিশন নভেম্বরের প্রথমার্ধে সুবিধাজনক সময়ই তফসিলের জন্য বেছে নিতে পারে।

তিনি জানান, ভোটার তালিকা হালনাগাদের কাজ থাকায় জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে ভোটের পরিকল্পনা রাখা হয়নি। রংপুরের পর বাকি পাঁচ সিটি ভোট নির্ধারিত মেয়াদে করার কর্মপরিকল্পনা কমিশন সভায় উপস্থাপন করা হবে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.