রবিবার, জানুয়ারি ২৪
Shadow

আজিজা হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত দাদি রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক :

নরসিংদীর শিবপুরে স্কুলছাত্রী আজিজাকে পুড়িয়ে হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত তার দাদি তমুজা বেগমের দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মোহাম্মদ ওয়ায়েজ আল করুনী রিমান্ডের এই আদেশ দেন।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের তিন দিন পরও প্রধান আসামি আজিজার চাচি বিউটি এখনো গ্রেফতার হয়নি। তবে পুলিশের দাবি, আসামি গ্রেফতারে সব রকমের চেষ্টা করা হচ্ছে।

আজিজা হত্যার ঘটনায় গত শনিবার (২৮ অক্টোবর) রাতে সাতজনকে আসামি করে শিবপুর থানায় মামলা দায়ের করেন তার বাবা আবদুস সাত্তার।

এ বিষয়ে নরসিংদীর শিবপুর সার্কেলের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার রেজোয়ান আহমেদ জানান, আজিজার বাবার ফুফু তমুজাকে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। আদালত দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আশা করা যায়, জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে এবং পলাতক আসামিদের অবস্থান সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে।

গত শুক্রবার দুপুরে বাড়ির পার্শ্ববর্তী স্থানে গাছের পাতা কুড়াচ্ছিল নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার খৈনকুট গ্রামের আবদুস সাত্তারের ছোট মেয়ে আজিজা খাতুন (১৩) । ওই সময় চাচি বিউটি বেগম ও তার ভাই রুবেল মিয়া একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে আজিজাকে তুলে নিয়ে যায়। পরে তার ওপর নির্যাতন চালানো হয়।

ওই দুজন পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির কাছে একটি উঁচু টিলায় আজিজার শরীরে কেরোসিন ঢেলে দেয়ে। পরে তারা দিয়াশলাই দিয়ে ওই কিশোরীর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।

স্থানীয় লোকজন আজিজার চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে আগুনে পুড়তে দেখেন। পরে তারা পানি ঢেলে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালান। ততক্ষণে তার শরীরের বেশির ভাগ অংশই পুড়ে ঝলসে যায়।

গুরুতর অবস্থায় থাকা কিশোরীকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার ভোররাতে তার মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.