শুক্রবার, জানুয়ারি ২২
Shadow

ঘূর্ণিঝড়ে কৃষকদের ক্ষতি পোষাতে ৮০ কোটি টাকা বরাদ্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

 গত নভেম্বর রবিবার ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ সকালবেলা সাতক্ষীরা ও দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশে আঘাত হেনেছে। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের সর্বশেষ বিশেষ বুলেটিনে বলা হয়েছে, ভোর পাঁচটায় ‘বুলবুল’ সুন্দরবনের কাছ থেকে পশ্চিমবঙ্গ-খুলনা উপকূল অতিক্রম করে।ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলে’র প্রভাবে খুলনা ও সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকায় বৃষ্টি এবং প্রবল ঝড়ো হাওয়ায় সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উক্ত অঞ্চলের ফসলি জমি। এছাড়া উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ মিলিয়ে ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে দেশের ১৬ জেলার ২ লাখ ৮৯ হাজার হেক্টর জমির ১৮ ধরণের ফসলের ক্ষতি হয়েছে।

এর মধ্যে রোপা আমন বেশি আক্রান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষি সম্পসারণ অধিদফতরের পরিচালক চান্দি দাস কুণ্ড। তবে, ক্ষতির প্রকৃত পরিমাণ নিশ্চিত হতে আরো ৩/৪ দিন সময় লাগবে। কৃষকদের এই ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার জন্য ইতোমধ্যেই ৮০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। কৃষি সম্পসারণ অধিদফতরের পরিচালক চান্দি দাস কুণ্ড বলেন, রোপা আমন বাতাসের তীব্রতায় নুয়ে পড়েছে। আমরা কৃষকদের পরামর্শ দিয়েছি রোপা আমন যদি কাঁচা থাকে, তাহলে তুলে ঝুঁটি বেঁধে দাঁড় করিয়ে দিতে হবে। পেকে গেলে দ্রুত পানির ওপর থেকে কেটে তুলতে হবে। আমাদের মাঠকর্মকর্তারা এ বিষয়ে কাজ করছেন।

তিনি আরো বলেন, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, বরগুনা, পিরোজপুর, ফেনী, পটুয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ভোলা, চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীতে বেশি ফসলের ক্ষতি হয়েছে। কৃষকদের এই ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার জন্য আমরা এরইমধ্যে ৮০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছি।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল শনিবার রাত ৯টার দিকে খুলনার সুন্দরবন উপকূল দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। প্রবেশের সময় ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ সর্বোচ্চ ১৪০ কিলোমিটার থাকলেও সুন্দরবনে প্রবেশের পর ধীরে-ধীরে গতি কমতে  থাকে। ঝড়ে বিভিন্ন জেলায় আটজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে।