রুমিনের পর এবার বিতর্কিত বিএনপির এমপি হারুন!

নিজস্ব প্রতিবেদক :

সংসদ সদস্যদের গাড়ি কিনতে ব্যাংক থেকে স্বল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছেন বিএনপির সাংসদ হারুনুর রশীদ। সোমবার (১১ নভেম্বর) জাতীয় সংসদে অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এই দাবি জানান।

সংসদ সদস্য হিসেবে চার মাস আগেই গাড়ি কেনার অনুমতি পেলেও টাকা না থাকায় গাড়ি কিনতে পারছে না দাবি করে হারুন বলেন, ইউরোপ আমেরিকার মতো উন্নত বিশ্বে ১ কোটি টাকা নগদ দিয়ে কেউ গাড়ি কেনে না। তারা ব্যাংক ঋণের সুবিধা পায়। সচিবদের গাড়ি কেনার সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। গাড়ির প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে হারুন বলেন, জাতীয় সংসদ সদস্য হিসেবে রিকশায় করে গণভবনে যাওয়া, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, সচিবালয়ে যাওয়া বেমানান দেখায়। তাই তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানান যেন গাড়ি কেনার জন্য ব্যাংক থেকে স্বল্প সুদে ঋণ সহায়তা দেওয়া হয়।

দুর্নীতিবিরোধী অভিযান শুরু করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান বিএনপির এই নেতা। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী অসাধারণ একটি পদক্ষেপ নিয়েছেন, সারা দেশব্যাপী দুর্নীতিবিরোধী অভিযান শুরু করেছেন।

এমন প্রেক্ষাপটে আবারও নতুন করে ইমেজ সংকটে পড়েছে বিএনপি। কেননা, যখনই বিএনপি নেতারা সরকারের সমালোচনাকে একটি বিশেষ পর্যায়ে নিয়ে যান, তখনই কোনো না কোনো এমপি এমন একটি প্রসঙ্গ নিয়ে সরকারের মুখাপেক্ষী হন যার ফলে বিএনপির শীর্ষ নেতাদের সব চেষ্টা ম্লান হয়ে যায়।

উল্লেখ্য, এর আগে সরকারের কাছে প্লট চেয়ে আবেদন করেছিলেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা। সেটির রেষ কাটতে না কাটতেই নতুন বিতর্কে জড়ালো বিএনপি।