শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৬
Shadow

গোলাগুলি শেষে ২৮ ডাকাত আটক, ওসিসহ আহত ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক :

মানিকগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসা একটি বাসে ডাকাতিকালে ২৮ জনকে আটক করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ। এ সময় সংঘটিত বন্দুকযুদ্ধে ওসিসহ কমপক্ষে চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের নবীনগর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃত ডাকাত সদস্যরা হলেন- বসির মোল্লা, স্বপন মোল্লা, আলামিন, মেহেদী হাসান, হাবিবুর রহমান, ওহিদুজ্জামান, সানাউল্রাহ ব্যাপারী, শফিকুল ইসলাম, কাসেম, মুকসেদ, জাহিদুল ইসলাম, এনামুল, শাহআলম, রুহল আমীন, বশির , আবু সাইদ, মামুন, রহিদ, কায়সার, মহসিন, আলামীন, কামরুল, ইকবাল, ফরহাদ, রফিকুল, বাবুল, বাহারুল ইসলাম, জাকির ও সুপন। পুলিশ বলছে, তাদের কাছে খবর ছিলো বাসটিতে যাত্রীবেশে ২৮ জন ডাকাত অবস্থান করছে। তারা একটা বড় ধরনের ডাকাতি সংঘটিত করতে যাচ্ছে। খবর পেয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশের একাধিক টিম বাসটিকে থামার সঙ্কেত দিলে ভেতর থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়া হয়। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়ে ডাকাতদের চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে। পরে বাস থেকে ২৮ জনকে আটক করা হয়। বাসের ভিতর হাত-পা বাঁধা অবস্থায় আহত পাঁচ যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। হামলায় আহত আশুলিয়া থানার ওসি আবদুল আউয়াল ও পরিদর্শক জাহিদুল ইসলামসহ চার পুলিশ সদস্যকেও প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সাভার সার্কেলের পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খোরশেদ আলম জানান, ঢাকা আরিচা মহাসড়কে বিভিন্ন সময় যাত্রীবাহী বাস নিয়ে যাত্রী উঠিয়ে ডাকাতি করে আসছিলো একটি ডাকাত দলের সক্রিয় চক্র। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি, মনিকগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা একটি বাসে যাত্রী বেসে ২৮ জন ডাকাত চলন্ত অবস্থায় ডাকাতির চেষ্টা করছিলো। আমাদের পুলিশের কয়েকটি দল বিভিন্ন ভাগে অবস্থান নেয়। তারমধ্যে একটি দল বাসটি পিছন থেকে নজর রাখছিলো। অন্যদিকে আশুলিয়ার নবীনগরে পুলিশের আরো কয়েকটি দল মহাসড়কে অবস্থান নেয়। বাসটি নবীনগর এলাকায় পৌঁছলে পুলিশ ব্যারিকেট দেয়। এসময় বাসের ভিতর থেকে ডাকাত দল গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। কয়েক ডাকাত বাসের জানালা ভেঙ্গে পালানোর চেষ্টা করে। তিনি আরও জানান, ডাকাতের হামলায় আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও পুলিশ পরিদর্শকসহ ৪ পুলিশ আহত হয়। অভিযান চালিয়ে ২৮ ডাকাতকে আটক করা হয়। হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ৫ যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়। এই ডাকাত চক্রটি দেশের বিভিন্ন স্থানে বাস দিয়ে ডাকাতি করে আসছিলো। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক ডাকাতি মামলা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.