মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১৯
Shadow

আদালতের নির্দেশে ৭ মাসের শিশু পেল মা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

আদালতের নির্দেশে ৭ মাসের এক দুগ্ধপোষ্য শিশুপুত্র ফিরে পেয়েছে তার মা।

আপিল বিভাগের নির্দেশে সৈয়দ ইয়াসিন আব্দুল্লাহ নামের ওই শিশুকে রোববার বিকাল ৫টায় তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেয়া হয়।

আদালতে ইয়াসিনের মায়ের আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী কামরুল হক সিদ্দীকি, মোহাম্মাদ আলি আজম ও আইনুন নাহার সিদ্দিকা। আর ছেলের বাবার পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদার।

আইনুন নাহার সিদ্দিকা জানান, এহসান আব্দুল্লাহ ও তাসমিয়া হাসান দম্পতির মধ্যে মনমালিন্য চলছিল দীর্ঘদিন ধরে।  এর জের ধরেই তাসমিয়া হাসান চলে যান মায়ের বাড়ি। সঙ্গে নিয়ে যান ছোট্ট ছেলে ইয়াসিন আব্দুল্লাহকে।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর টিকা দেয়ার জন্য ছেলেকে নিয়ে গুলশান ল্যাবএইড হাসপাতলে যান তাসমিয়া। সেখানে ছেলেকে দেখতে আসেন বাবা এহসান আব্দুল্লাহ ও তার মা।

এক পর্যায়ে ইয়াসিনকে আদর করার কথা বলে লুকিয়ে নিজ বাসায় নিয়ে যান বাবা ও দাদি। এরপর মা তাসমিয়া থানায় জিডি করেন। তিনি প্রতিকারের জন্য মহিলা পরিষদে যান। কোনো উপায় না পেয়ে অবশেষে নিজ সন্তানকে ফিরে পেতে গত ২২ অক্টোবরে হাইকোর্টে রিট করেন তাসমিয়া।

২৩ অক্টোবর হাইকোর্ট রুল জারি করেন, কেন ইয়াসিনকে তার মায়ের কাছে ফেরত দেয়া হবে না? রিটে ইয়াসিনকে যেন বুকের দুধ খাওয়াতে পারেন সেই আবেদন জানিয়ে আরও একটি আবেদন যুক্ত করা হয়। কিন্তু মায়ের আবেদন খারিজ করেন হাইকোর্ট।

এরপর সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে আসেন মা তাসমিয়া। সে আবেদনের ওপর শুনানি হয় রোববার। একপর্যায়ে সুপ্রিমকোর্টের পাঁচ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ খাস কামরায় মায়ের কথা শোনেন।

সেখানে উভয়পক্ষের আইনজীবীও উপস্থিত ছিলেন। পরে আদালত হাইকোর্টে এই মামলার রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত মায়ের কাছেই ইয়াসিনকে রাখার নির্দেশ  দেন। রোববার বিকাল ৫টার মধ্যে শিশুকে ফেরতের নির্দেশ দেন।

আদালত বলেন, বাবা চাইলে এই সময়ে ইয়াসিনকে দেখতে যেতে পারবেন। আইনজীবী জানান, আদালতের আদেশে রোববার বিকাল ৪টার দিকে ইয়াসিনকে তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.