মঙ্গলবার, এপ্রিল ২০
Shadow

আগামী নির্বাচনের আগেই স্মার্টকার্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক  :

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগেই সবার হাতে উন্নতমানের জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্টকার্ড) তুলে দিতে চায় নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৃহস্পতিবার আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা জানান ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

তিনি বলেন, ‘একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে সব ভোটারকে স্মার্টকার্ড দেয়া হবে। তার আগে যারা ভোটার হিসেবে নিবন্ধিত হয়েও এনআইডি পাননি, তাদের লেমিনেটেড কার্ড দেয়া হবে।’

এ বছর ভোটার নিবন্ধন সম্পর্কে হেলালুদ্দীন জানান, এবার ভোটার তালিকা হালনাগাদে মোট ৩৩ লাখ ২৯ হাজার ১৯৯ জন ভোটার নিবন্ধিত হয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৬ লাখ ৪১ হাজার ৪৮৪ জন এবং নারী ভোটার নিবন্ধিত হয়েছেন ১৬ লাখ ৮৭ হাজার ৭১৫ জন।

তিনি আরো জানান, ২০১৫ সালের আগাম তথ্যের ভিত্তিতে খসড়া ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে আরো ৯ লাখ ৬২ হাজার ২৯৬ জন। সব মিলে এবার ভোটার তালিকায় যোগ যুক্ত হবে ৪২ লাখ ৯১ হাজার ৪৯৫ জন।এছাড়া মারা যাওয়ায় এবার ভোটার তালিকা থেকে ১৫ লাখ ১৬ হাজার ৩৮ জনের নাম কাটা যাবে।

গত ২৫ জুলাই থেকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে ভোটার তালিকা হালনাগাদের কাজ শুরু করে নির্বাচন কমিশন। যারা নিবন্ধন করেছেন তাদের অন্তর্ভুক্ত করতে ২০১৮ সালের ২ জানুয়ারি হালনাগাদ তালিকার খসড়া প্রকাশ করা হবে। যার ওপর দাবি, আপত্তি নিয়ে তা নিষ্পত্তি করে নির্বাচন কমিশন চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করবে একই বছর ৩১ জানুয়ারি। একাজের জন্য ৫০ কোটি ৪৮ লাখ ৩৭ হাজার ৫৬৬ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে।

দেশে বর্তমানে ১০ কোটি ১৮ লাখ ৪৩ হাজার ৬৬৭ জন ভোটার। এর সঙ্গে নতুন ভোটার যুক্ত হলে মোট ভোটার দাঁড়াবে সাড়ে ১০ কোটির বেশি। ২০১৮ সালে আর ভোটার তালিকা হালনাগাদ হবে না। কেননা, ২০১৮ সালের অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের জানুয়ারির মধ্যে সংসদ নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সেক্ষত্রে পৌনে ১১ কোটি ভোটারে হবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচন কমিশন সংসদ নির্বাচনের আগে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম আগামী বছর হাতে না নিলেও, কেউ চাইলে সংশ্লিষ্ট থানা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে গিয়ে ভোটার হতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.