শুক্রবার, জানুয়ারি ২২
Shadow

শ্রীপুরে ৩য় শ্রেণীর ছাত্রীকে অন্ত:স্বত্ত্বার অভিযোগ

সোলায়মান মোহাম্মদ :

গাজীপুরের শ্রীপুরে ৩য় শ্রেণীর ছাত্রীকে জোর পূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রাথমিক চেকআপে শিশুটি অন্ত:স্বত্ত্বা পরিবার বুঝতে পারে।
উপজেলার টেলিহাটি ইউনিয়নের সাইটালিয়া গ্রামের নুরু মিয়ার ছেলে আমানুল্লাহ (২২) এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে শিশু মেয়েটির পরিবারের দাবী।
সরেজমিন জানা যায়, ওই শিশু মেয়েটি সাইটেলিয়া মাদ্রাসার ৩য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী। সে প্রতিনিয়তই আমানুল্লাহর বাড়ির পাশ দিয়েই মাদ্রাসায় যাতায়াত করতো। মাঝে মধ্যেই আমানুল্লাহ তাকে উত্যক্ত করতো। হঠাৎ একদিন বাড়ি ফিরার পথে পূর্ব থেকে উৎ পেতে থাকা আমান তাকে জোর পূর্বক জরিয়ে ধরে কাপড় দিয়ে মুখ আটকিয়ে জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে।
পরিবার সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণ শেষে আমাদের মেয়েকে লম্পট আমানুল্লাহ মেরে ফেলার ভয় দেখায়। মেয়েটি আমানুল্লাহর ভয়ে আমাদের কাউকে বিষয়টি জানায়নি। কিন্তু পরবর্তীতে তার শারীরিক পরিবর্তনের কারণে আমাদের সন্দেহ হয় এবং তাকে চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে বিস্তারিত জানতে পারি। পরে ইউরিন টেস্টের মাধ্যমে এ বিষয়ে আরো পরিস্কার হয়েছি। আমরা অত্যন্ত গরীব মানুষ কি করবো কিছু বুঝে উঠতে পারছি না। এখনও থানায় মামলা করিনি তবে দুয়েকদিনের মধ্যে করবো। বিষয়টি ওয়ার্ড মেম্বারকে জানানো হয়েছে।
সাইটেলিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ বলেন, শিশু মেয়েটি হঠাৎ মাদ্রাসায় আসা বন্ধ করলে আমরা বাড়িতে খোঁজ নিয়ে এই বিষয়ে অবগত হই। অভিযুক্ত ব্যক্তির এই জঘণ্যতম কৃতকর্মের কঠিন বিচার দাবী করছি।
ওয়ার্ড মেম্বার নাছির উদ্দিন জানায়, এই বিষয়ে আমাকে কেউ এখনও জানায়নি।
অভিযুক্ত আমানুল্লাহর বাড়িতে তাকে পাওয়া যায়নি তবে তার স্ত্রী ঘটনার সত্যতা অস্বীকার করে বলেন, আমার স্বামী নাবিদ টেক্সটাইল মিলে চাকরী করে। তার পক্ষে এমন কাজ করা সম্ভব না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.