বুধবার, এপ্রিল ১৪
Shadow

আনিসুল হকের সিটিতে উপ-নির্বাচনের উদ্যোগ

প্রাইম ডেস্ক :

আনিসুল হকের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে উপ-নির্বাচনের উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগামী মাসেই (জানুয়ারি) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হতে পারে। নিয়মানুযায়ী আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এই সিটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনে ভোট হয়। আওয়ামী লীগের সমর্থনে ওই নির্বাচনে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন আনিসুল হক। প্রায় দুই বছর ধরে ওই দায়িত্ব পালনের মধ্যেই চলতি বছর জুলাইয়ে যুক্তরাজ্যে গিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন সেরিব্রাল ভাস্কুলাইটিসে আক্রান্ত আনিসুল হক। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৩০ নভেম্বর মারা যান তিনি।

ইসির একাধিক কর্মকর্তা জানান, পদটি শূণ্য ঘোষণা করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপণ জারির পর ভোটের প্রক্রিয়া শুরু হবে। তারা বলেন, ৩০ নভেম্বর থেকে ৯০ দিন, অর্থাৎ ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে মেয়র পদে উপ-নির্বাচন শেষ করতে হবে। কমিশন সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে অন্তত ৪৫ দিন হাতে রেখে তফসিল ঘোষণা করতে পারে।

ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলাল উদ্দীন আহমদ বলেন, মেয়র পর শূণ্য ঘোষণার প্রজ্ঞাপণ হাতে পেলেই নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে। শূন্য ঘোষণার দিন থেকে ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করার আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে ইসির।

তিনি বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচন আইন অনুযায়ী সিটি কর্পোরেশনের প্রথম সভা থেকে পাঁচ বছর মেয়াদ থাকে শপথ নেয়া জনপ্রতিনিধিদের। উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে নতুন যিনি আসবেন, তিনি মেয়াদের বাকি অংশটুকু দায়িত্ব পালন করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.