মঙ্গলবার, এপ্রিল ২০
Shadow

গফরগাঁওয়ে অপহরণ নাটক সাজিয়ে নিজেই ধরা

গফরগাঁও ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :
ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁওয়ে রিটন মিয়া (৩৫) নামে এক ব্যক্তি অন্যজনকে ফাঁসাতে অপহরণের নাটক সাজিয়ে নিজেই পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে। গত শনিবার রাতে পুলিশ মোবাইল ট্র্যাকিং করে গফরগাঁও রেলওয়ে স্টেশন থেকে তাকে আটক করা হয়।
জানা যায়, নেত্রকোনা জেলার দেদুকোন গ্রামের মোহাম্মদ সুরুজ মিয়ার ছেলে রিটন মিয়া গফরগাঁও হুমায়ুন কবিরের মাছের ফিসারীতে কাজ করত। গত ২৪ নভেম্বর রিটন মিয়া অজ্ঞাত স্থান থেকে তার স্ত্রী নায়িমা আক্তারকে মোবাইল ফোনে জানায়, ফিসারী মালিকের লোকজন আমাকে অপহরণ করেছে এবং অপহরণকারীরা আমার কাছে ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবী করছে। এ ব্যাপারে তার স্ত্রী নায়িমা আক্তার পরের দিন ২৫ নভেম্বর গফরগাঁও থানায় একটি অপহরণের অভিযোগ দায়ের করে।
অপহরণের অভিযোগে গফরগাঁও থানা পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় রিটন মিয়ার ব্যবহৃত মোবাইল ট্র্যাকিং করে গত শনিবার রাতে গফরগাঁও রেলওয়ে ষ্টেশন থেকে তাকে আটক করা হয়। ফিসারী ব্যাবসায়ী হুমায়ুন কবির বলেন, রিটন আমাকে হয়রানী করার জন্য মিথ্যে অপহরণ নাটক সাজিয়েছে।
গফরগাঁও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুুল আহাদ খান বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় রিটনের অবস্থান চিহিৃত করে তাকে আটক করা হয়। প্রাথমিক ভাবে মনে হচ্ছে, রিটন খুব ভয়ংকর ছেলে। প্রকৃত সত্য উদ্ঘাটনের জন্য রিটন মিয়াকে পুুলিশ হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.