মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৪
Shadow

শ্রীপুরে শালিসে প্রতিবন্ধীকে পিটিয়ে হত্যা

শ্রীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় এক প্রতিবন্ধীকে শালিসে লাঠিতে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত আক্তার মিয়া (৫১), স্থানীয় কেওয়া পশ্চিম খন্ড এলাকার রহমুদ্দিনের ছেলে।
শ্রীপুর থানার ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে। নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায় শারীরিক প্রতিবন্ধী মো. আক্তার হোসেন প্রায় ৩০ বছর আগে গাজীপুরের টঙ্গীতে বসবাস করতেন। সেখানে বসবাসকালে আক্তার শ্রীপুরের কেওয়া পশ্চিম খন্ড কড়ইতলা এলাকার মো. হাসেন আলীর স্বামী পরিত্যক্ত মেয়ে সাহেরা খাতুনকে এক ছেলেসহ বিয়ে করেন এবং শ্বশুরবাড়ির পাশেই এক খন্ড জমি কিনে সেখানে ঘরবাড়ি করে বসবাস শুরু করেন।  পবের্তীতে তার এ ঘরে তিন মেয়ে এবং এক ছেলের জন্ম হয়। কয়েক বছর ধরেই পারিবাকি বিষয়াদি নিয়ে তার স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের সঙ্গে বিবাদ চলছিল। ওই বিবাদ নিয়ে শনিবার রাতে ভিক্টিমের বাড়িতে শালিস বসে। শালিসে নিহতের ছোট মেয়ে আসমা বেগমও উপস্থিত ছিল। শালিসের এক পর্যায়ে ধমকিয়ে ও মেরে আসমাকে শালিস থেকে বের করে দেন আক্তারের সুমন্দি মো. হাবিবুর রহমান (৫৫), শ্যালিকা আনোয়ারা বেগম (৪০) ও সৎ ছেলে সাইদুর রহমান (৩২)। পরে তারা ভিক্টিমের সঙ্গে থাকা লাঠি নিয়ে তাকে মারধর করতে থাকলে তিনি হারিয়ে ফেলেন। এসময় আক্তারকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক নাজমুল আহসান তাকে মৃত ঘোষণা করে। নিহতের সুমন্দি মো. হাবিবুর রহমান, শ্যালিকা আনোয়ারা বেগম ও সৎ ছেলে সাইদুর রহমানসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছেন।