মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৪
Shadow

শ্রীপুরে চুরির অপবাদ দিয়ে দু‘জনকে ধরে নিয়ে নির্যাতন

শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধি :
গাজীপুরের শ্রীপুরের সিংগারদিঘী গ্রামের ফিসপার্ক নামের একটি এগ্রো ফার্মের ভিতর চুরির অপবাদ দিয়ে দু‘জনের উপর বর্বর নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
নির্যাতনের শিকার সিজন(১৪) সিংগারদিঘি গ্রামের মৃত মাসুদ মিয়ার ছেলে। অপরজন মোশারফ হোসেন(২৫) একই গ্রামের শহিদুল হকের ছেলে।
নির্যাতনের শিকার দুজনই নির্মান শ্রমিকের কাজ করেন। কাজের কথা বলে গত ৩০ অক্টোবর সন্ধ্যায় প্রতিষ্ঠানের সীমানাপ্রাচীরের ভেতর ডেকে নিয়ে রাতভর নির্যাতন করা হয় তাদের।
পরে স্থানীয়রা পরদিন সকালে তাদের গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় গত ১ নভেম্বর ভিকটিমের পরিবারের পক্ষ থেকে শ্রীপুর থানায় অভিযোগ দিলেও এখনো মামলা রুজু হয়নি।
ভিকটিমের পরিবারের ভাষ্য অনুযায়ী, সিজন ও মোশারফ হোসেন এলাকায় নির্মান শ্রমিকের কাজ করেন। গত ৩০ অক্টোবর সন্ধ্যায় কাজের কথা বলে তাদের বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে যায় এগ্রো প্রজেক্টের কর্মচারী নজরুল ইসলাম। পরে সেখানে থাকা ব্যবস্থাপকের আদেশে অন্যান্য আরো ৪/৫জন কর্মচারী মিলে তাদের দুজনকে চুরির অপবাদ দিয়ে ব্যাপক মারধর করেন। বর্বর এই নির্যাতন শেষে পরদিন সকালে উভয়কে বাড়ীর পাশে অচেতন অবস্থায় ফেলে দিয়ে যায় এগ্রো প্রজেক্টের কর্মচারীরা।
এ বিষয়ে ফিসপার্ক এগ্রোপ্রজেক্টের ব্যবস্থাপক সোহরাব হোসেন জানান, চুরি করার অপরাধে কর্মচারীরা দুজনকে আটক করে মারধর করেন। এ ঘটনায় সামাজিক ভাবে শেষ করে দেয়ার পরও তারা কেন অভিযোগ দিলেন এ বিষয়টি বোধগম্য হচ্ছে না।
শ্রীপুর থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খোন্দকার ইমাম হোসেন বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা দু‘জন চুর। চুরির অপরাধে দুজনকে স্থানীয়রা মারধর করেছে । চোরেদের পরিবারের পক্ষ থেকেও অভিযোগ দিলেও এ ঘটনায় মামলা রুজু হবে না।