সোমবার, মার্চ ৮
Shadow

ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা দেশের প্রথম সুপার এক্সপ্রেসওয়ে

প্রাইম ডেস্ক :
ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা দেশের প্রথম সুপার এক্সপ্রেসওয়ে। যোগাযোগ ব্যবস্থায় নতুন এক দিগন্ত উন্মোচিত করেছে। দুটি সার্ভিস লেনের মাধ্যমে দেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানীকে যুক্ত করেছে। ভ্রমণের সময় সাশ্রয় করার পাশাপাশি যানবাহন দ্রুত, নির্বিঘ্নে ও নিরবিচ্ছিন্নভাবে চলাচল করাসহ বেড়েছে নানা সুবিধা।
নান্দনিক নির্মাণশৈলী আর এক্সপ্রেসওয়ের দুইটি সার্ভিস লেনের মাঝে দৃষ্টিনন্দন নানা প্রজাতির ফুলের গাছ সড়কের সৌন্দর্য আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। নতুন এই সড়ক নিয়ে পর্যটকের রয়েছে কৌতূহল।
এক্সপ্রেসওয়েতে পাঁচটি ফ্লাইওভার, ১৯টি আন্ডারপাস এবং প্রায় ১০০টি সেতু এবং কালভার্ট রয়েছে। ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের ৫৫ কিলোমিটারের মধ্যে ঢাকা থেকে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া পর্যন্ত ৩৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সড়ক জেলার সিরাজদিখান, শ্রীনগর ও লৌহজং এই তিনটি উপজেলার মধ্য দিয়ে গেছে।
এই এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের ফলে রাজধানী ঢাকার সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হয়েছে। পাশাপাশি সড়কের আশেপাশে বিভিন্ন শিল্প কারখানা গড়ে উঠেছে। অন্যদিকে এখানকার জমির দামও কয়েক গুণ বেড়ে গেছে।
বরিশাল বিভাগের ছয় জেলা, খুলনা বিভাগের ১০টি জেলা এবং ঢাকা বিভাগের ছয় জেলার মানুষ সরাসরি এই আন্তর্জাতিক মানের এক্সপ্রেসওয়ে থেকে নানাভাবে উপকৃত হচ্ছেন। এলাকাবাসীরা বলেন, যে ভালো হয়েছে তা কোনদিন কল্পনা করা যায় না। যাতায়াতে কম সময় লাগে, এলাকার সৌন্দর্য বৃদ্ধি করেছে।