সোমবার, মার্চ ৮
Shadow

মিরাজ তোপে ১৪৮ রানে গুটিয়ে গেল উইন্ডিজ

প্রাইম খেলাধুলা  :

সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতিয় ম্যাচে নিজেদের একাদশে কোনো পরিবর্তন আনেনি বাংলাদেশ।  সিরিজ বাঁচানোর ম্যাচে ৪৩.৩ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রানে থামলো ক্যারিবীয়রা।

শুক্রবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে বাংলাদেশকে বলে পাঠান উইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ।
সিরিজ বাঁচাতে মাঠে নামেন সুনিল অ্যামব্রিস ও জর্ন ওটলে। তবে ইনিংস বড় করতে পারেনি উইন্ডিজ ওপেনিং জুটি। দলীয় ১০ রানে মুস্তাফিজের বলে মেহেদি হাসানের হাতে ক্যাচ দিয়ে জুটি ভাঙেন সুনিল অ্যামব্রিস(৬)।
এরপর স্পিনে ধরাশায়ী হয় দুই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান। জর্ন ওটলে(২৪) ও জশুয়া ডা সিলভাকে(৫) ঘরে ফেরান মেহেদি মিরাজ। বলে আসেন সাকিব।
তিনিও খালি হাতে ফেরেননি।  আন্দ্রে ম্যাকার্থিকে ৩ রানে ঘরে ফেরান। অর্ধশতকের আগেই ৪ উইকেট হারালো সফরকারীরা। রান আউটে কাইল মায়ারস(০)। ফের সাকিবে ফিরলেন ক্যারিবীয় অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ(১১)।  হাসান মাহমুদে এনক্রুমাহ বোনার(২০) এবং মেহেদি হাসান মিরাজে ঘরে ফেরেন রেইফার রেয়মন(২)।
তবে রোভম্যান পাওয়েল আর আলজারি জোসেফের সৌজন্যে তিন অংক ছুঁয়ে ফেলে অতিথিরা। ৯ম উইকেটে দুজনে গড়েন ৩২ রানের জুটি। দলীয় ১২০ রানে আলজারি জোসেফকে (১৭) লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি করে জুটি ভাঙেন মুস্তাফিজুর রহমান।
শেষ উইকেটটা ফেলতে সময় লাগছিল টাইগারদের। উইকেটে গেড়ে বসেছিলেন রোভম্যান পাওয়েল। তাকে সঙ্গ দিয়ে যাচ্ছিলেন শেষ ব্যাটসম্যান আকিল হোসেন। শেষ পর্যন্ত ৬৬ বলে ৪১ রান করা পাওয়েলকে নিজের চতুর্থ শিকার পরিণত করে ক্যারিবীয়দের ইনিংসে ইতি টানেন মেহেদি মিরাজ। ৪৩.৪ ওভারে ১৪৮ রানে অল-আউট হয় উইন্ডিজ।
দলের হয়ে মেহেদি হাসান মিরাজ ৪টি, সাকিব ও মুস্তাফিহ ২টি করে উইকেট নেন।
সিরিজের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজে অভিষিক্ত ছিলেন ছয়জন। দ্বিতীয় ম্যাচে সেই ছয়ের একজন ডানহাতি পেসার চামার হোল্ডারকে বাদ দিয়ে ওপেনিং ব্যাটসম্যান ও লেগব্রেক বোলার জর্ন ওটলে’কে দলে নিয়েছে ক্যারিবীয়রা। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ৪৫ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে ৩১ বছর বয়সী ওটলের।
অন্যদিকে অপরিবর্তিত একাদশ বাংলাদেশের। বুধবারের ম্যাচে অভিষেক হওয়া হাসান মাহমুদ ৩ উইকেট নিয়ে নিজের সামর্থ্যের জানান দিয়েছেন। আজকের ম্যাচেও তার ওপর আস্থা রেখেছে সিরিজে ১-০’তে এগিয়ে থাকা বাংলাদেশ।
বাংলাদেশ একাদশ:
তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান, মেহেদি হাসান মিরাজ, হাসান মাহমুদ, রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ:
সুনিল অ্যামব্রিস, জশুয়া ডা সিলভা, আন্দ্রে ম্যাকার্থি, জেসন মোহাম্মদ (অধিনায়ক), রভম্যান পাওয়েল, এনক্রুমাহ বোনার, কাইল মায়ারস, জর্ন ওটলে, রেয়মন রেইফার, আকিল হোসেন ও আলঝারি জোসেফ।