বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৪
Shadow

প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় ৯ জন ২ দিনের রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক  :

মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলার ১১৩ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় গ্রেফতার ৯ জনের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। মামলাটি অধিক গুরত্ব দিয়ে তদন্তের স্বার্থে গোয়েন্দা শাখায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ ডিসেম্বর) দুপুর ১টার দিকে আমলি আদালত-১ এর বিচারক তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
মুন্সীগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম জানান, এসব মামলা অধিক গুরত্ব বহন করায় এবং মামলার বৃহত্তর তদন্তের স্বার্থে গোয়েন্দা শাখায় প্রেরণ করা হয়েছে। ঢাকাতেও এই ধরনের মামলাগুলো গোয়েন্দা শাখা ও সিআইডি তদন্ত করে থাকে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (গোয়েন্দা শাখা)ইন্সপেক্টার মোঃ মফিজুল ইসলাম জানান,  দুপুরে (১৪ ডিসেম্বর)  গ্রেফতারকৃত ৯ জন মো. কাজিম (২২), রফিকুল ইসলাম(২০), রতন মিয়া (২৪), আব্দুর রহিম (২১), মো.কামরুল হাসান (২৫), মোস্তাফিজুর রহমান (২২), রিয়াজ মিয়া (২০),সাখাওয়াত হোসেন (২৫) ও জাকির হোসেনের (২৫) ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে মুন্সীগঞ্জ জেলা আদালতে হাজির করা হয়।
এতে আমলি আদালত-১ এর বিচারক হায়দার আলী ২ দিন রিমান্ড মঞ্জুর করে। এদের সকলকে মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে সদরের বিভিন্ন মেস থেকে আটক করা হয়।
এদিকে, বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) রাতের আটককৃত ৫ জনকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় সকলের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, এই ঘটনার অন্যতম হোতা লিজা আক্তারসহ আরো কয়েকজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তাদের গ্রেফতার করার জন্য পুলিশের একাধিক টীম কাজ করছে।

উল্লেখ্য, সদর উপজেলার সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের কারণে দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর ২৭ হাজার শিক্ষার্থীর সকল পরীক্ষা স্থগিত করে কর্তৃপক্ষ। ১৭ ডিসেম্বর থেকে নতুন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন।