বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৮
Shadow

২০১৭ সালে আলোচিত যাদেরকে হারিয়েছি

প্রাইম ডেস্ক :

সংস্কৃতি অঙ্গন থেকে এ বছর অনেক প্রিয় মুখ হারিয়ে গেছে। বছরজুড়ে যদিও নানা কারণে আলোচিত ছিল চিত্রজগৎ। তারকাদের বিয়ে, বিচ্ছেদ, সন্তান জন্মদানের মতো একাধিক ঘটনায় সরব ছিল গণমাধ্যমগুলো।
তবে এর মধ্যেও শোকের সাগরে ভাসিয়ে পৃথিবী থেকে বিদায় নেন একাধিক জনপ্রিয় তারকা। ২০১৭ সালে ভক্তদের কাঁদিয়ে পৃথিবী ছেড়ে চলে যাওয়া বেশ কয়েকজন জনপ্রিয় তারকা নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন।

আনিসুল হক
বছরের শেষ দিকে শোকের সাগরে ভাসিয়ে গেলেন নন্দিত উপস্থাপক, সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সুধীজন আনিসুল হক। ব্যবসায়ী এ মানুষটি চিরকাল করেছেন সংস্কৃতির চর্চা। তিনি শেষকালে রাজনীতিতে জড়িয়েছিলেন, ঢাকা উত্তরের মেয়র নির্বাচিত হয়ে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন। গেল ৩০ নভেম্বর লন্ডনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়। তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।

নায়করাজ রাজ্জাক
বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন দীর্ঘদিন ধরেই। অবশেষে চলতি বছর ২১ আগস্ট শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেতা নায়করাজ রাজ্জাক। রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রাজ্জাক। নায়করাজ রাজ্জাকের মৃত্যুর খবরে গোটা চলচ্চিত্রপাড়ায় শোকের ছায়া নেমে আসে। কয়েক দফায় জানাজা শেষে ২৩ আগস্ট দুপুরে তাকে বনানী গোরস্তানে দাফন করা হয়।

লাকী আখন্দ
‘আগে যদি জানতাম’খ্যাত সুরকার, সংগীত পরিচালক ও গায়ক লাকী আখন্দ মারা যান চলতি বছরের ২১ এপ্রিল। দীর্ঘদিন ধরেই দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে ভুগছিলেন তিনি। ওইদিন সন্ধ্যা ৭টায় রাজধানীর আরমানিটোলায় নিজ বাসভবনে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে দ্রুত স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আউটডোরে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। লাকী আখন্দ একজন মুক্তিযোদ্ধাও ছিলেন। তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। তাকে দাফন করা হয় মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী গোরস্তানে।

আবদুল জব্বার
৩০ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন মারা যান সংগীতশিল্পী আবদুল জব্বার। তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আবদুল জব্বার কিডনি, হার্ট, প্রস্টেটসহ বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন। পরদিন ৩১ আগস্ট বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হন আবদুল জব্বার।

বারী সিদ্দিকী
উপমহাদেশের প্রখ্যাত সুরকার, গীতিকার, বংশীবাদক ও সংগীতশিল্পী বারী সিদ্দিকী রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান ২৪ নভেম্বর। দুইটি কিডনি অকার্যকর ছিল। তিনি বহুমূত্র রোগেও ভুগছিলেন। পরদিন বারি সিদ্দিকীর বাউল বাড়ি নেত্রকোনার চল্লিশাবাজারে তাকে দাফন করা হয়।

মিজু আহমেদ
চলতি বছরের ২৭ মার্চ শুটিং করতে ঢাকা থেকে দিনাজপুরে যাত্রাপথে ট্রেনে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান চলচ্চিত্রের গুণী অভিনেতা মিজু আহমেদ। তিনি আহমেদ ইলিয়াস ভূঁইয়ার পরিচালনায় ‘মানুষ কেন অমানুষ’ নামের একটি ছবির শুটিং করতে দিনাজপুর যাচ্ছিলেন। কয়েক দফায় জানাজা শেষে পরদিন তার মরদেহ কুষ্টিয়া জেলার কোটপাড়ায় নিজ গ্রামে দাফন করা হয়।

নাজমুল হুদা বাচ্চু
চলচ্চিত্র ও নাটকের প্রবীণ অভিনেতা নাজমুল হুদা বাচ্চু মারা গেছেন চলতি বছর ২৮ জুন। সেদিন বুধবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মৃত্যু হয় ৭৮ বছর বয়সী এ অভিনেতার। তার স্ত্রী লিনা জানান, ঈদের দুই দিন আগে শুটিং থেকে ফিরে জ্বরে আক্রান্ত হন বাচ্চু। সেইসঙ্গে রক্তচাপ অনেক কমে যাওয়ায় ঈদের দিন দুপুরে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মেডিকেল পরীক্ষার পর মঙ্গলবার ওর হৃদযন্ত্রে সমস্যা ধরা পড়ে। আমরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই ভোরের দিকে সব শেষ হয়ে যায়।
নাজমুল হুদা বাচ্চু বহু চলচ্চিত্র ও নাটকে অভিনয় করেছেন। তার হাত ধরেই অভিনয় শুরু করেছিলেন বুলবুল আহমেদ, উজ্জ্বলের মতো অনেক চলচ্চিত্র তারকা।

ওমপুরি
এ বছর ৬ জানুয়ারি ৬৬ বছর বয়সে বলিউড অভিনেতা ওমপুরি এ পৃথিবী থেকে বিদায় নেন। মুম্বাইয়ের নিজ বাসভবনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। বছরের শুরুতেই তার অকস্মাৎ মৃত্যুতে স্তব্ধ হয়ে যায় বলিউড। তার অভিনীত সিনেমাগুলোর মধ্যে ‘বাজরাঙ্গি ভাইজান’, ‘ডার্টি পলিটিক্স’, ‘হেরা ফেরি’, ‘চাচি ৪২০’, ‘সিং ইজ কিং’, ‘ডন ২’ উল্লেখযোগ্য। তার অভিনীত শেষ সিনেমা ‘টিউবলাইট’ জুন মাসে রোজার ঈদ উপলক্ষে মুক্তি পায়।

রিমা লাগু
আশিকি, সাজন, ম্যায়নে প্যায়ার কিয়া, কুছ কুছ হোতা হ্যায়, হাম আপকে হ্যায় কৌনসহ জনপ্রিয় বহু বলিউড চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন অভিনেত্রী রিমা লাগু। এ অভিনেত্রীকে বেশিরভাগ সময় মায়ের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গেছে। ৫৮ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মে মাসের ১৮ তারিখে মৃত্যুবরণ করেন বলিউড অভিনেত্রী রিমা লাগু। এ বছর ‘নামকরণ’ সিরিয়ালে শেষবাবের মতো দেখা গিয়েছিল রিমা তাকে।

ইন্দর কুমার
৪৩ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নিজের বাড়িতে প্রাণ হারান বলিউড অভিনেতা ইন্দ্র কুমার। ২০ বছর ধরে বলিউড ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে জড়িত ছিলেন এ অভিনেতা। অভিনয় করেছেন ২০টির মতো ছবিতে। বলিউড ছাড়া বিভিন্ন টিভিপর্দার ধারাবাহিকেও নজর কেড়েছিলেন ইন্দ্র কুমার। ‘কাহি পেয়ার না হো যায়ে’, ‘ওয়ান্টেড’, ‘পেয়িং গেস্ট’, ‘তুমকো না ভুল পায়েঙ্গে’, ‘মাসুম’, ‘খিলাড়িও কা খিলাড়ি’র মতো ছবিতে অভিনয় করেন এ অভিনেতা।

বিনোদ খান্না
এ বছরের ২৭ এপ্রিল দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর মারা যান বিখ্যাত অভিনেতা ও রাজনীতিক ব্যক্তিত্ব বিনোদ খান্না। তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে ভুগছিলেন। এ বছর ৩১ মার্চ থেকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। ১৯৬৮ সালে বলিউডে তার আত্মপ্রকাশ। তার ঝুলিতে রয়েছে ১৪০টি ছবি। অভিনয়ের সঙ্গে রাজনীতিতেও আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। পাঞ্জাবের গুরুদাসপুর থেকে সংসদ সদস্য ছিলেন এ কিংবদন্তি অভিনেতা। তার শেষ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ছবির মধ্যে রয়েছে ‘দাবাং’, ‘প্লেয়ার’, ‘দাবাং টু’ ও ‘দিলওয়ালে’র মতো সিনেমাগুলো। ‘মেরে আপনে’, ‘অমর আকবর অ্যান্থনি’, ‘কুরবানি’, ‘ইনকার’, ‘হাত কি সাফাই’ তার অভিনয়জীবনের উল্লেখযোগ্য কিছু ছবি। শেষ অভিনীত ছবি ২০১৫ সালের ‘দিলওয়ালে’।

শশী কাপুর
বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা শশী কাপুর ৪ ডিসেম্বর মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন আম্বানি হাসপাতালে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। গত কয়েক মাস ধরেই অসুস্থ ছিলেন এ খ্যাতনামা অভিনেতা। হিন্দি থেকে ইংরেজিসহ বিভিন্ন ভাষার সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। পেয়েছেন, পদ্মভূষণ, দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার। অভিনয়ের পাশাপাশি ছবি প্রযোজনা, পরিচালনার কাজও করেছেন সমান দক্ষতায়। ১৯৬১ সালে ‘ধর্মপুত্র’ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে ভারতীয় চলচ্চিত্রজগতে পা রাখেন শশী। ১৯৬০ সালের শেষভাগ থেকে আশির দশকের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত তিনি জুটিবদ্ধ হন শর্মিলা ঠাকুর, রাখী এবং জিনাত আমানের সঙ্গে। এছাড়াও হেমা মালিনী, মৌসুমী চট্টোপাধ্যায় এবং পারভিন ববির সঙ্গেও তার জুটি উল্লেখযোগ্য।

রজার মুর
এ বছর মে মাসের ২৪ তারিখে মৃত্যুবরণ করেন দ্য সেইন্ট এবং জেমস বন্ডের সেই বিখ্যাত মার্কিন অভিনেতা স্যার রজার মুর।

ক্রিস কর্নেল
যুক্তরাষ্ট্রের ‘সাউন্ডগার্ডেন’ এবং ‘অডিওসেøভ ব্যান্ডের’ লিড ভোকাল ক্রিস কর্নেল মৃত্যুবরণ করেছেন ১৮ মে ২০১৭। তার বয়স হয়েছিল ৫২ বছর।

রাম মুখার্জি
রানি মুখার্জির বাবা পরিচালক রাম মুখার্জি মারা গেছেন এ বছর। অক্টোবরের ২২ তারিখে ৮৪ বছর বয়সে বার্ধক্যজনিত কারণে মারা যান তিনি। এছাড়া শাম পাঞ্চাল, লেখ ট্যান্ডনের মতো বলিউড অভিনেতারাও এ বছর বিদায় নিয়েছেন পৃথিবী থেকে।