শুক্রবার, জানুয়ারি ২২
Shadow

হতাশার বছরে আলোর রেখা

প্রাইম ডেস্ক :

ঘড়ির কাঁটা রাত ১২টা ছোঁয়ার সঙ্গে সঙ্গে মহাবিশ্বের কোনো এক অতল গহ্বরে হারিয়ে যাবে ২০১৭। ভোরের সূর্যোদয়ে আগমন ঘটবে নতুন আরেকটি বর্ষপরিক্রমা। নয়া আবাহনে, নব প্রত্যয়ে এগিয়ে যাওয়ার এক উদ্বেলিত ক্ষণ ধরা দেবে সবার জীবনে। তাই বলে কি পুরোনোকে জীবন থেকে মুছে দেওয়া যায়? মোটেও নয়। সমাজ-সংস্কৃতির বিভিন্ন অঙ্গনের ন্যায় ক্রীড়াঙ্গনও রেখে যাচ্ছে স্মৃতি তাড়িয়ে বেড়ানো কিছু মুহূর্ত। তারই অংশ হিসেবে ২০১৭ সালের উল্লেখযোগ্য ঘটনা নিয়ে ফিরে দেখার তৃতীয় পর্বে থাকছে বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গন।

ঢাকায় এশিয়া কাপ হকি

এ বছরও মাঠে ছিল না ঘরোয়া হকি লিগ ও দলবদল। বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের কর্তাদের ক্ষমতার চেয়ার নিয়ে লড়াই বছরজুড়ে ছিল আলোচনার শীর্ষে। এর মধ্যেও স্বস্তি ছিল হকিতে। বত্রিশ বছর পর গেল অক্টোবরের মাঝামাঝিতে ঢাকায় আয়োজন করা হয়েছিল এশিয়া কাপ হকি। ৮ জাতির এই প্রতিযোগিতায় মালয়েশিয়াকে হারিয়ে তৃতীয়বারের (সর্বোচ্চ) মতো চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। যেখানে টুর্নামেন্টে জিমি-চয়নরা ষষ্ঠ সেরা দল। এ বছর হকির জন্য বড় সুখবর হলো মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে ফ্লাডলাইট স্থাপন।

খাজা রহমতউল্লাহর প্রস্থান

এশিয়া কাপ হকির সফল আয়োজক হিসেবে তৃপ্তির ঢেঁকুর শেষ হওয়ার আগেই বিয়োগান্তক ঘটনায় ফেডারেশন তো বটেই গোটা ক্রীড়াঙ্গন শোকের চাদরে ঢেকে যায়। ফেডারেশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও তৎকালীন সহসভাপতি খাজা রহমতউল্লাহ ২৪ অক্টোবর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পাড়ি জমান না-ফেরার দেশে। কিংবদন্তি এই হকি খেলোয়াড়ের মরদেহ পর্যন্ত আনা হয়নি প্রিয় চত্বর মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে। রহমতউল্লাহর হঠাৎ প্রস্থানে মাতম হয়েছে এটা ঠিক, কিন্তু তাতেও বদলায়নি হকি ফেডারেশনের পুরোনো চেহারাটা।

সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা হাতছাড়া বাংলাদেশের

জাতীয় ফুটবল দল কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে গেলেও চলতি বছর দেশকে সাফল্য এনে দিয়েছে বয়সভিত্তিক দল। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে ভুটানে বসে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় আসর। আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ৪-৩ গোলের অভাবনীয় জয়ে শুভসূচনা হয় বাংলাদেশের। থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে তিন গোলে পিছিয়ে পড়েও শেষ ৩৫ মিনিটে ভারতের জালে চারবার বল পাঠিয়ে রূপকথা রচনা করে মাহবুব হোসেন রক্সির দল। পরের ম্যাচে সৈকত মুন্না ও জাফর ইকবালের গোলে মালদ্বীপকেও পরাজয়ের স্বাদ দেয় যুবারা। নিজেদের শেষ ম্যাচে তো স্বাগতিক ভুটানকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেয় লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। কিন্তু তৃতীয় ম্যাচে নেপালের কাছে ২-১ ব্যবধানে পরাজিত হয় দশজনের বাংলাদেশ। আর সেই ম্যাচটাই কাল হয়ে দাঁড়ায় তাদের। লিগভিত্তিক টুর্নামেন্টে নেপালের সমান ৯ পয়েন্ট অর্জন করে রক্সির শিষ্যরা। গোল ব্যবধানেও আলাদা করা যায়নি দু’দলকে। কিন্তু মুখোমুখি লড়াইয়ে হার মানায় শিরোপা জেতে নেপাল। আর রানার্স-আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ফুটবলপ্রেমীদের হৃদয় জয় করা জাফর-লিংকন- সৈকতদের।

অপ্রতিরোধ্য মেজবাহ-শিরিন

বছরের মাঝামাঝিতে গ্রীষ্মকালীন অ্যাথলেটিক্সের পর কদিন আগে শেষ হয়েছে জাতীয় অ্যাথলেটিক্স। যেখানে একচ্ছত্র আধিপত্য ধরে রেখেছেন মেজবাহ আহমেদ ও শিরিন আক্তার। দেশের দ্রুতগতির মানব-মানবীকে হারানোর মতো দৌড়বিদের দেখা মেলেনি দুটো আসরের একটিতেও। মেজবাহ সপ্তমবারের মতো ১০০ মিটার স্প্রিন্টে স্বর্ণ জিতে গড়েছেন রেকর্ড, টানা ষষ্ঠবারের মতো বজ্রগতির মানবী শিরিনকেও এখন ডাকছে রেকর্ড।

আর্চারিতে নতুন দিগন্ত

বাংলাদেশে আর্চারি এখনো জনপ্রিয়তা পায়নি। তবে এ দেশের নাম ঠিকই খোদাই করে লেখা হয়েছে এশিয়ার মঞ্চে। নভেম্বরের শেষ দিকে প্রথমবারের মতো আর্চারির বড় কোনো টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে কুড়িতম এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের তীর-ধনুকের লড়াইয়ে স্বাগতিক আর্চারদের পারফরম্যান্স অবশ্য উজ্জ্বল ছিল না। তবে ৩৫টি দেশকে আতিথেয়তা দেওয়া ও সফলভাবে টুর্নামেন্ট শেষ করায় আয়োজক হিসেবে লেটার মার্কসই পেয়েছে বাংলাদেশ।

না ফেরার দেশে ফুটবলকন্যা সাবিনা

দেশের ফুটবল যখন অন্ধকারে নিমজ্জিত তখনই আলোর রেখা দেখা দিয়েছিল নারী ফুটবলে। আরেকটু ছোট করে বললে বয়সভিত্তিক ফুটবলে। ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম কলসিন্দুর থেকে উঠে এসেছিলেন একঝাঁক কিশোরী ফুটবলার। তাদের পায়ের ওপর দাঁড়িয়ে স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ। সেই দলেরই একজন ছিলেন সাবিনা খাতুন। বয়সভিত্তিক ফুটবলের মধ্যমণি তকমাও পেয়ে গিয়েছিলেন তিনি। বড় ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন ছিল তার চোখে-মুখে। কিন্তু ফুল হয়ে ফোটার আগেই ঝরে পড়েন প্রতিভাবান এই কিশোরী। অভিশপ্ত জ্বরে চলতি বছরের ২৬ সেপ্টেম্বর না-ফেরার দেশে পাড়ি জমান ফুটবলকন্যা সাবিনা।

শ্যুটিংয়ে বাজিমাত

বরাবরই সম্ভাবনাময় গেমস শ্যুটিং। গত মে মাসে সেটার আর একটা প্রমাণ দিয়েছেন দেশের শ্যুটাররা। ইসলামিক সলিডারিটি গেমসের চতুর্থ আসরে বাংলাদেশের হাহাকার দূর করেছিলেন রাব্বি হাসান মুন্না। গেমসের ইতিহাসে প্রথম স্বর্ণপদকটা এসেছে শুট্যারদের নিশানাভেদেই। ১০ মিটার এয়ার রাইফেল মিশ্র ইভেন্টে দেশকে স্বর্ণপদক উপহার দেন আবদুল্লাহ হেল বাকি ও সৈয়দা আতকিয়া হাসান দিশা। তাতে শুধু পদকই পাননি তারা, ইতিহাসের পাতায় লিখে দিয়েছেন নিজেদের নাম। ইভেন্টটা যে এবারই প্রথম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ইসলামিক গেমসে!

সিদ্দিকুরের সাদামাটা বছর

চলমান বছরটা সাদামাটাভাবেই শেষ করেছেন সিদ্দিকুর রহমান। দেশসেরা গলফার ফর্মহীনতা আর চোটের সঙ্গে লড়াইয়েই ব্যস্ত সময় পার করেছেন এই ক্যালেন্ডারের অধিকাংশ সময়। ‘বেঙ্গলি টাইগার উডসে’র এ বছর উল্লেখযোগ্য সাফল্য বলতে এশিয়ান ট্যুরের জাপান প্যানাসনিক ওপেনে তিনজনের সঙ্গে যৌথভাবে নবম হওয়াটা।

বিজয়ের মাসে কিশোরীদের উপহার

জাতীয় দল ও দেশের ফুটবলের দৈন্যদশা অনেক দিনের। এই দুঃসময়ে এক পশলা সুখের বৃষ্টি এলো বয়সভিত্তিক নারী ফুটবলে। বিজয়ের মাসে সম্ভাব্য সেরা উপহারটাই দেশবাসীকে দিয়েছেন বাংলাদেশের অদম্য কিশোরীরা। কয়েক দিন আগে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে গোলাম রব্বানীর দল। কমলাপুরের শহীদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের উল্লাস পরে ছড়িয়ে পড়েছে গোটা দেশে। অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় নারী ফুটবলের সাফল্যে যোগ করেছে বিশেষ মাত্রা।

বেঙ্গালুরুকে মাটিতে নামাল আবাহনী

পর্যায়ক্রমিক এবং ধারাবাহিক ব্যর্থতার জের ধরে আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে তিন বছরের জন্য নির্বাসিত পর্যন্ত হয়েছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। জাতীয় দলের পদাঙ্ক অনুসরণ করে ব্যর্থতার বৃত্তে হাবুডুবু খাচ্ছিল ক্লাবগুলোও। দীর্ঘদিন পর ফুটবলে প্রাণের স্পন্দন ফিরেছে আবাহনী লিমিটেডের সৌজন্যে। গত মে মাসে এএফসি কাপে দশজনের দল নিও এএফসি গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বেঙ্গালুরুকে ২-০ গোলে হারিয়েছে ধানমন্ডির ক্লাবটি। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দুর্দান্ত জয়ে অবশ্য টুর্নামেন্টে আবাহনীর ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি। তবে ঠিকই উড়তে থাকা বেঙ্গালুরু মাটিতে নেমে এসেছে।

এশিয়ার বিশ্বকাপে কিশোরীরা

বাংলাদেশের জন্য এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপই বিশ্বকাপের মতো। বাছাইপর্বে দাপুটে পারফরম্যান্সে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের মূল আসরে জায়গা করে নিয়েছিল বাংলাদেশ। উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে ৯ এবং জাপানের বিপক্ষে ৩ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে বাস্তবতার রুক্ষ জমিন দেখেছিল দেশের কিশোরীরা। শেষ ম্যাচে আশা জাগিয়েও দশজনের দল নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৩-২ গোলে হেরে যান কৃষ্ণারা। ফলে শূন্য হাতেই থাইল্যান্ড থেকে ফিরতে হয়েছে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের। তবে প্রথমবারের মতো এশিয়ার মঞ্চে উঠতে পারাটাই বা কম কিসে!

মোহামেডান কোচের পারিশ্রমিক নিয়ে তোলপাড়

এ বছর ক্লাব ফুটবলে আলোচিত ঘটনাগুলোর একটি মোহামেডানের সাবেক কোচ এমেকা ইউজিগোর পারিশ্রমিক ইস্যু। ২০১২-১৩ মৌসুমে সাদা-কালো শিবিরের দায়িত্বে থাকা নাইজেরিয়ান কোচ তার পাওনা আদায়ে ফিফার কাছে নালিশ পর্যন্ত করেছেন। এমেকা যাতে পাওনা বুঝে পান সে লক্ষ্যে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে চিঠি পাঠায় ফিফা। শুধু তাই নয়, প্রিমিয়ার লিগে মোহামেডানের পয়েন্ট কাটারও নির্দেশ দেয় বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা। দুই বছর আগের ২০ হাজার ডলার বেড়ে এমেকার পারিশ্রমিক দাঁড়ায় আরো দু হাজার ডলার। কিন্তু মোহামেডানের পয়েন্ট না কাটায় বাফুফের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়েছে ফিফা। বিষয়টি নিয়ে অবশ্য এখনো সুরাহা হয়নি। এমেকা না পেয়েছেন পারিশ্রমিক, ফিফা না ব্যবস্থা নিয়েছে মোহামেডানের বিরুদ্ধে।

যুব অলিম্পিকে অর্ণব সারার

চলতি মাসের শুরুতে জাপানের ওয়াকো-সাইতামাতে বসে এশিয়ান এয়ারগান চ্যাম্পিয়নশিপের দশম আসর। ওই প্রতিযোগিতার যুব বিভাগে রৌপ্য জেতেন তরুণ শ্যুটার অর্ণব সারার। এই সাফল্যে প্রথম বাংলাদেশি শ্যুটার হিসেবে সরাসরি যুব অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেন তিনি। বাকী-রিসালাতদের মতো সিনিয়ররা যেখানে বাছাই পর্বের গন্ডিই পাড়ি দিতে পারেননি, সেখানে অর্ণব দেশকে পদক উপহার দিয়ে মুখ রক্ষা করেন। আসরের বাছাইয়ে ৬২০.৯ স্কোর করে ষষ্ঠ হয়ে ফাইনালে উঠে আসেন সাতক্ষীরার এই তরুণ। চূড়ান্ত লড়াইয়ে চীনের ঝ্যাং চং হং ২৫০.০ স্কোর করেন। অর্ণব সারারের স্কোর ছিল ২৪৯.৫। বুয়েনস আয়ার্স অলিম্পিকের টিকিট প্রাপ্তিতে এই স্কোর যথেষ্ট ছিল।

ঢাকায় প্রথম রোল বল বিশ্বকাপ

এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রথমবারের মতো রোল বল বিশ্বকাপ আয়োজন করে বাংলাদেশ। চতুর্থ বিশ্ব আসরের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হয় রাজধানী ঢাকার তিনটি ভেন্যুÑশেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্স, শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ ইনডোর স্টেডিয়াম, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী স্টেডিয়ামে। ১৭ ফেব্রুয়ারি খেলার উদ্বোধন করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। টুর্নামেন্টে নারী-পুরুষ উভয় প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। বাংলাদেশের নারী দল প্রি-কোয়ার্টার রাউন্ড থেকে বিদায় নিলেও ছেলেরা চতুর্থ স্থান অর্জন করে।

জুনিয়র অ্যাথলেটিক্সে বিকেএসপির আধিপত্য

চলতি বছরের ৫ ও ৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয় ৩৩তম জাতীয় জুনিয়র অ্যথলেটিক্স। এতে অংশ নেন ৪৩ দলের ৩৫১ জন প্রতিযোগী। প্রতিযোগিতায় ১৭টি স্বর্ণ, ১০টি রৌপ্য এবং ৫টি ব্রোঞ্জ জিতে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)। অনূর্ধ্ব-১৭ পর্যায়ে ১০০ মিটার স্প্রিন্টের নারী ও পুরুষ ইভেন্টে স্বর্ণ জেতেন রূপা খাতুন ও সুলতান আহমেদ। আর অনূর্ধ্ব-১৯-এ দ্রুততম কিশোর-কিশোরীর হওয়ার গৌরব অর্জন করেন বিকেএসপির দুই দৌড়বিদ হাসান মিয়া ও দিশা সুলতানা।

যুব গেমসের যাত্রা শুরু

প্রথমবারের মতো দেশব্যাপী যুব গেমসের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন (বিওএ)। চলতি মাসের ১৮ তারিখে দেশের সবকটি জেলায় একযোগে শুরু হয় এই গ্র্যান্ড টুর্নামেন্ট। সপ্তাহব্যাপী আয়োজিত জেলা পর্যায়ের এই ক্রীড়াযজ্ঞে মোট ২১টি ডিসিপ্লিনে (১৫টি ব্যক্তিগত ও ৬টি দলীয়) অংশগ্রহণ করেন অনূর্ধ্ব-১৭ বছরের ক্রীড়াবিদরা। তবে জেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতার পথ চলা শুরু হলেও পরবর্তীতে বিভাগীয় ও জাতীয় পর্যায়ে আয়োজিত হবে বাংলাদেশ যুব গেমস। নতুন বছরের মার্চে রাজধানী ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় পর্যায়ের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা। টুর্নামেন্টে বাস্কেটবল, স্কোয়াশ, জুডো, কুস্তি, আর্চারির মতো ইভেন্ট থাকলেও বাদ পড়েছে সাইক্লিং।