বগুড়ায় কাভার্ডভ্যান-বাসের সংঘর্ষে নারীসহ নিহত ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক  :

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলায় কার্ভাড ভ্যান ও যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নারীসহ চারজন নিহত ও কমপক্ষে ২৬জন আহত হয়েছেন।
সোমবার বিকেল ৩টার দিকে ঢাকা-বগুড়ার মহাসড়কের নয় মাইল ফুলতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় মহাসড়কের দু’পাশে প্রায় দেড় কিলোমিটার এলাকা জুড়ে যানবাহন আটকে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও থানা পুলিশ সদস্যরা আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং দুর্ঘটনা কবলিত যানবাহন দু’টি মহাসড়ক থেকে অপসারনের পর আটক করা হয়।

ঘটনাস্থলে নিহত কার্গো চালক ভোলো (৪০)’র পরিচয় জানা গেলেও অপর হতাহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। বগুড়া শহরের ছিলিমপুর টাউন ফাঁড়ি পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (টিএসআই) আশুতোষ মিত্র তিনজন নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
স্থানীয়রা জানায়, চট্রগাম থেকে ছেড়ে আসা সৈয়দপুরগামী সিফাত ট্রেডিং কার্গো সার্ভিস নামের একটি মালবাহি কাভার্ডভ্যান (ঢাকা মেট্রো-ট-১৫-১৪৯৫) ওই স্থানে পৌঁছালে বিপরীতমুখি বগুড়া থেকে ছেড়ে আসা ধুনট-গোসাইবাড়িগামী শান্তদেব নামের একটি যাত্রীবাহি বাসের সঙ্গে (বগুড়া-ব-৪৬৬৬) মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে দু’জন নিহত ও ২৫জন আহত হয়। আহতদের শজিমেক হাসপাতালে পাঠানোর পর আরো দু’জনের মৃত্যু হয়।
ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বগুড়ার সহকারী পরিচালক নিজাম উদ্দিন দুর্ঘটনায় ৪ জন নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থলেই কাভার্ড ভ্যান চালক নিহত হয়েছেন। এছাড়াও হাসপাতালে নেয়ার পর ২জন নারী ও ১জন পুরুষ মারা গেছেন। এছাড়াও আহতদের মধ্যে হাসপাতালে ১০ জন পুরুষ, ১০জন নারী ও ৬জন শিশু  চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদিকে, দুর্ঘটনার পরপরই ওই মহাসড়কের উভয়পাশে অসংখ্য যানবাহন আটকা পড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।
শাজাহানপুর থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, খবর পাওয়ার সাথে সাথে থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত যানবাহন দু’টি থানায় আটক রয়েছে।