সোমবার, জানুয়ারি ১৮
Shadow

ইউরোপসেরা ব্রাজিল তারকা নেইমার

প্রাইম খেলাধুলা  :

ইউরোপসেরা ব্রাজিল তারকা নেইমার। খেলা ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারদের মধ্যে সবার সেরা নির্বাচিত হয়েছেন সুপাস্টার নেইমার। অর্থাৎ ইউরোপের বর্ষসেরা ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়ের পুরস্কার ‘সাম্বা গোল্ড’ জিতেছেন পিএসজি তারকা। বার্সিলোনার পর পিএসজির হয়ে দুর্দান্ত নৈপুণ্য উপহার দেয়ায় গৌরবময় এই এ্যাওয়ার্ড জিতেছেন নেইমার। এদিকে রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো ক্রোয়েশিয়ার বর্ষসেরা ফুটবলার হয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদের মিডফিল্ডার লুকা মডরিচ আর বিবিসির আফ্রিকার বর্ষসেরা হওয়ার পর এবার আরবের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন মিসরের মোহাম্মদ সালাহ। বৃহস্পতিবার ঘোষণা হতে যাওয়া আফ্রিকান বর্ষসেরা ফুটবলারও হতে চলেছেন লিভারপুলের এই তারকা ফরোয়ার্ড।

এই নিয়ে তৃতীয়বারের মতো সাম্বা গোল্ড পুরস্কার জিতেছেন নেইমার। এর আগে ২০১৪ ও ২০১৫ সালেও পুরস্কারটি জেতেন তিনি। প্রতি মৌসুমে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল ওয়েবসাইট কর্তৃক এ পুরস্কার প্রদান করা হয়। ২০১৭ সালে ফিলিপ কুটিনহোকে পেছনে ফেলে সেরার এ্যাওয়ার্ড জেতেন পিএসজির ফরোয়ার্ড নেইমার। নেইমার সর্বোচ্চ ২৭.৭১ শতাংশ ভোট পেয়ে সাম্বা গোল্ড পুরস্কার জয় করেন। শীর্ষ তিনে থাকা কুটিনহো ১৬.৬৪ এবং রিয়াল মাদ্রিদ তারকা মার্সেলো ১৪.৪৩ শতাংশ ভোট পান। এর মধ্য দিয়ে সর্বোচ্চ তিনবার সাম্বা গোল্ড জেতা থিয়াগো সিলভাকে স্পর্শ করেন নেইমার। বার্সিলোনার হয়ে গত মৌসুমের শেষের দিকে দারুণ ছন্দে ছিলেন নেইমার। ক্লাব বদলে পিএসজিতে যোগ দেয়ার পরও নৈপুণ্য ধরে রাখেন তিনি। পিএসজির হয়ে এখন পর্যন্ত ফরাসী লীগে ১৪ ম্যাচে ১১টি গোল করার পাশাপাশি ৯টি গোলে এ্যাসিস্ট করেন নেইমার। মডরিচ ষষ্ঠবার ক্রোয়েশিযার বর্ষসেরা হয়ে সাবেক তারকা ডেভর সুকারের রেকর্ড স্পর্শ করেছেন। রাশিয়া বিশ^কাপের বাছাইপর্বে মডরিচের নেতৃত্বেই ক্রোয়েশিয়া মূল পর্বের টিকেট নিশ্চিত করে। প্লেঅফে গ্রীসের বিপক্ষে প্রথম লেগে ৪-১ গোলের জয়ের ম্যাচে মডরিচ প্রথম গোলটি করেছিলেন। এই প্লেমেকার রিয়াল মাদ্রিদের হয়েও নিজেকে বরাবরই প্রমাণ করে চলেছেন। ২০১৭ সালে রিয়ালের লা লিগা ও চ্যাম্পিয়ন্স লীগে শিরোপার পেছনেও দারুণ অবদান রাখেন। ডিসেম্বরে ক্লাব বিশ^কাপে শিরোপাজয়ী জিনেদিন জিদানের দলের হয়ে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড়ও মনোনীত হন মডরিচ।

এদিকে মোহাম্মদ সালাহর জন্য ২০১৭ সালটা কেটেছে দারুণ। যার পুরস্কার পেয়ে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যে জিতেছেন বিবিসির আফ্রিকান বর্ষসেরার পুরস্কার। এবার জিতেচেন আরবের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার। আফ্রিকান বর্ষসেরা ফুটবলার হওয়ার দৌড়েও এগিয়ে তিনি। ২৫ বছর বয়সী সালাহর নৈপুণ্যেই আফ্রিকান নেশন্স কাপের ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল মিসর। এছাড়া ১৯৯০ সালের পর প্রথমবারের মতো মিসরকে বিশ্বকাপের চূড়ান্তপর্বে নিয়ে যাওয়ার পুরো কৃতিত্বও সালাহর। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের অন্যতম শক্তিশালী দল লিভারপুলেও নিজেকে মেলে ধরেছেন দারুণভাবে। ধারাবাহিকভাবে দুর্দান্ত পারফর্মেন্স প্রদর্শন করে চলেছেন।