মঙ্গলবার, মার্চ ২
Shadow

শাকিব নেই, ডিএনসিসিতে সালিশ বৈঠকে অপু

প্রাইম বিনোদন :

সোমবার সকাল ১০টায় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) সালিশ বৈঠকে আসলেন শুধু অপু বিশ্বাস। এদিন একইসঙ্গে শাকিবেরও উপস্থিতি থাকার কথা ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাকে দেখা যায়নি। এই সময় সিটি কর্পোরেশনের অঞ্চল-৩ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হেমায়েত হোসেনের সঙ্গে তালাক নোটিসের বিপরীতে সমঝোতা বৈঠকে বসেন অপু। তিনি বিচ্ছেদ চান না বলেও জানান। অপু বলেন, আমার একটা সন্তান রয়েছে।

আমি বিচ্ছেদ চাই না। এছাড়া শাকিব যে অভিযোগগুলো করেছে সেগুলো ঠিক না। আমি ভেবেছি আজ তাকে পাবো। কিন্তু সেটি আর হলো না। তার সঙ্গে সরাসরি কথা বললে সব ঠিক হয়ে যেত। এছাড়া এখানে যে স্বাক্ষর তা তো তার না। তার জন্য আমি ধর্ম ত্যাগ করেছি। ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তাকে অন্যরা ভুল বুঝিয়েছে। এদিকে শাকিব না আসায় ১২ই ফেব্রুয়ারি আবার বৈঠক ডেকেছে সিটি কর্পোরেশন। অবশ্য শাকিব খানের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বলছেন, শাকিব সালিশে আসার প্রয়োজনবোধ করছেন না। আমাদের আগের সিদ্ধান্তই বহাল থাকবে। কোনো পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই। সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হেমায়েত হোসেন বলেন, আমরা তাদের জোর করতে পারি না। ৯০ দিনের মধ্যে সমঝোতা না হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডিভোর্স হয়ে যাবে।’ গত ২৮শে নভেম্বর আইনজীবীর মাধ্যমে ডিভোর্সের নোটিস পাঠান শাকিব খান। সেখানে নায়ক ডিভোর্সের দুটি কারণ দেখিয়েছেন। এর একটি হলো অপু বিশ্বাস কথিত বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ভারতে বেড়াতে গেছেন। এই সময়ে ছেলে জয়কে বাসার কাজের লোকের কাছে রেখে গেছেন। বছরখানেক অন্তরালে থাকার পর গেল ১০ই এপ্রিল একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে এসে বিয়ে ও সন্তানের খবর জানান অপু বিশ্বাস। তিনি জানান, ২০০৮ সালের ১৮ই এপ্রিল শাকিবের সঙ্গে বিয়ে হয়। কলকাতার একটি ক্লিনিকে ২০১৬ সালের ২৭শে সেপ্টেম্বর জন্ম হয় ছেলে আব্রাহাম খান জয়ের।