বুধবার, জানুয়ারি ২৭
Shadow

ভারতের আহমেদাবাদে ‘পদ্মাবত’ সিনেমার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

প্রাইম বিনোদন :

ভারতের আহমেদাবাদ নগরীতে বিতর্কিত বলিউড সিনেমা ‘পদ্মাবত’ এর মুক্তি বন্ধে কয়েকশ’ বিক্ষোভকারী ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়েছে। তারা একটি শপিং মলে ভাঙচুর ও গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। বৃহস্পতিবার সিনেমাটির মুক্তির কথা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্যে গুজরাটে মঙ্গলবার রাত থেকেই সিনেমাটি প্রদর্শনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়। রাতভর বিক্ষোভ চলে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

একজন হিন্দু রানীকে কেন্দ্র করে সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে। পুলিশ জানায়, কয়েকশ’ বিক্ষোভকারী মলের বিভিন্ন দোকানে হামলা চালায় এবং নগরীর বিভিন্ন স্থানে ৫০টি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয় ও ১৫০টির বেশি গাড়ি ভাংচুর করে। গুজরাটের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রদিপসিং জাদেজা জানান, মঙ্গলবার আইন-শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও ভাঙচুর করার অভিযোগে ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই সিনেমাকে কেন্দ্র করে এ পর্যন্ত গত ৪৮ ঘণ্টায় ৬০ জনের বেশি লোককে আটক করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, আইন লঙ্ঘন ও দাঙ্গা-হাঙ্গামার করার অভিযোগে গুজরাটে পাঁচ শতাধিক লোকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

‘পদ্মাবত’ সিনেমাটির বিরুদ্ধে হিন্দু চরমপন্থীদের শক্ত অবস্থানের কারণে পুলিশ সিনেমাহলগুলোর আশপাশে নিরাপত্তা জোরদার করেছে। ভারতে ৭শ’ বছর আগেকার চিতোরের রানী পদ্মিনীর জীবন নিয়ে নির্মিত এই সিনেমাটিতে হিন্দু রানীর সঙ্গে মুসলিম শাসক আলাউদ্দিন খিলজির প্রেম দেখানো হয়েছে বলে বিক্ষোভকারীদের দাবি। বিক্ষোভকারীরা আরো অভিযোগ করেছে যে, আলাউদ্দিন খিলজির কবল থেকে রক্ষা পেতে রানী পদ্মিনী ১৬ হাজার নারী নিয়ে চিতায় ঝাঁপ দিয়েছিলেন। কিন্তু এই সিনেমায় তার সেই মর্যাদা ও আত্মত্যাগকে খাটো করে দেখানো হয়েছে। তবে সিনেমাটির পরিচালক অভিযোগগুলো নাকচ করে দিয়েছেন। সিনেমাটিতে রানীকে সম্মানের সঙ্গেই চিত্রিত করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেছেন।

উগ্রবাদী হিন্দুরা সাম্প্রতিক দিনগুলোতে এই সিনেমাটির বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমেছে। তারা বিভিন্ন সড়ক অবরোধ এবং বাস ও টোল বুথে অগ্নিসংযোগ করেছে। রাজপুত কারনি সেনা গ্রুপের সদস্যরা সিনেমাটি প্রদর্শিত হলে সিনেমাহলে হামলার হুমকি দিয়েছে। ‘পদ্মাবত’ নিষিদ্ধ করার আর্জি নিয়ে সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশ সরকার। মঙ্গলবার ওই দুই রাজ্যের আবেদন খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট। গত বছরের জানুয়ারি মাসে রাজস্থানে রাজপুত কারনি সেনা সদস্যরা সিনেমাটির পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালীর ওপর হামলা চালায়। এ সময় তারা সিনেমাটির সেট লণ্ডভণ্ড করে দেয়। সিনেমাটিতে পদ্মাবতীর চরিত্রে দীপিকা পাড়ুকোন, তার স্বামী মহারাওয়াল রতন সিংহের চরিত্রে শহীদ কাপুর, আলাউদ্দিন খিলজির চরিত্রে রনবীর সিংহ অভিনয় করেছেন।