শুক্রবার, এপ্রিল ২৩
Shadow

আইনশৃঙ্খলা খাতে সরকারের উন্নয়ন

প্রাইম ডেস্ক :

স্থিতিশীল আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিশ্চিতকরণে বেতন, ভাতা, আবাসন ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধিসহ দেশের পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সমূহকে আধুনিক ও দক্ষ করে গড়ে তুলতে আওয়ামী লীগ সরকার বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। যার ফলশ্রুতিতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে দেশের মধ্যে সুখ শান্তি বজায় রেখে চলেছে।

২০০৭-০৮ অর্থবছরে পুলিশ বাহিনীর বার্ষিক বাজেট ছিল ২ হাজার ৪৯১ কোটি টাকা। যা বিগত ৮ বছরে বেড়েছে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা। আর পুলিশ বাহিনীর সার্বিক সক্ষমতা বাড়াতে ও আধুনিকায়নের জন্য সরকার ১৩ হাজার ৬৪১ টি নতুন পদ সৃষ্টি করে ২০১৬ সালে আরো ৫০ হাজার জনবল বৃদ্ধি করে।

জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ দমনে সরকারের গঠিত কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড রুখতে শতভাগ সাফল্যের সাথে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়া দেশের শিল্প এলাকার নিরাপত্তা জোরদার ও শিল্পবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ, নৌ-পুলিশ ও ট্যুরিস্ট পুলিশ গঠন করা হয়। পুলিশ সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে রংপুর রেঞ্জ, রংপুর রেন্জ রিজার্ভ ফোর্স এবং ২৯ টি থানা ও ৪৭ টি তদন্ত কেন্দ্র গঠন করা হয় বর্তমান সরকারের আমলে।

এছাড়া দক্ষ জনবল সৃষ্টির লক্ষ্যে ৩৩ টি ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টার এ প্রশিক্ষণ সহ উচ্চতর প্রশিক্ষণের লক্ষ্যে বিদেশে প্রেরণ, পদোন্নতি প্রদান ও আবাসন সমস্যার সমাধান করে পুলিশ বাহিনীর উন্নয়নে সার্বিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে সরকার।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীতে যুগোপযোগী তথ্য প্রযুক্তির প্রয়োগ, উন্নতমানের অস্ত্র ও গাড়িসহ লজিস্টিক সাপোর্ট, গোয়েন্দা তথ্য ব্যবস্থার আধুনিকায়ন, প্রযুক্তিগত তদন্ত ব্যবস্থার প্রসার, ভবন ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে সরকার।

গত আট বছরে আইনশৃঙ্খলা খাতে যে পরিমাণ উন্নতি হয়েছে তা স্বাধীনতার ৪০ বছরেও সম্ভব হয়নি। তাই আইনশৃঙ্খলা খাতে উন্নয়নের এ ধারা বজায় থাকলে অদূর ভবিষ্যতে বহির্বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী রোল মডেল হিসেবে তৈরি হবে।