শুক্রবার, মে ৭
Shadow

গোপালগঞ্জে গ্যাসের সন্ধান

নিজস্ব প্রতিবেদক  :

গোপালগঞ্জে গ্যাসের সন্ধান মিলেছে। বুধবার সকালে শহরের পৌর পানি শোধনাগারে এ গ্যাসের সন্ধান পাওয়া গেছে। সকাল থেকেই সেখানে গ্যাসে আগুন জ্বালিয়ে রান্না-বান্নাসহ অন্যান্য কাজ করা হচ্ছে।

গোপালগঞ্জ পৌরসভার পানি সরবরাহের নতুন প্রকল্পের জন্য মাটি পরীক্ষার কাজ শুরু করে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। মঙ্গলবার পৌর পানি শোধনাগারের ৭নং কুপে ১০০ ফুট পাইপ বোরিং করার পর পিট কয়লা উঠে আসে। পরে সে অবস্থায় পাইপ রেখে দেন শ্রমিকরা। বুধবার বেলা ১১টার দিকে পাইপের মুখে বুদ বুদ শব্দে গ্যাস উঠতে শুরু করে। পানি শোধনাগারের পাম্প চালক ইয়ামিন পাইপের মুখে জ্বলন্ত ম্যাচ কাঠি ধরতেই সেখানে আগুন জ্বলে ওঠে। তারপর থেকেই আগুন জ্বলছে। ওই আগুনে রান্না-বান্নার কাজ করা হচ্ছে। গ্যাসের আগুন দেখতে উৎসুক জনতা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। পৌরসভা কর্তৃপক্ষ বিশেষজ্ঞ টিম এনে গ্যাস অনুসন্ধানের ঘোষণা দিয়েছে।
পানি সরবরাহ প্রকল্পের ঠিকাদার আছানুর রহমান সিকদার বলেন, গোপালগঞ্জ ও বাগেরহাট পৌরসভায় নিরাপদ পানি সরবরাহের জন্য নতুন প্রকল্পের কাজ গোপালগঞ্জ পৌর পানি শোধানাগারে শুরু হয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় সেখানে মাটি পরীক্ষার জন্য বোরিং কাজ চলছে। ইতিমধ্যে ৬টির বোরিং কাজ হয়েছে। ৭নং বোরিং বুধবার শুরু করা হয়। এখানে ১০০ ফুট পাইপ রোরিং করার পর পিট কয়লা পাওয়া যায়। ওই পাইপের মুখ দিয়ে গ্যাস বের হতে দেখা যায়। বেলা ১১টার দিকে ম্যাচ কাঠি দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে দেয়া হয়। তারপর থেকে উৎসুক জনতা এখানে ভিড় করছে।
গোপালগঞ্জ পৌরসভার পানি সরবরাহ শাখার সুপার জাকারিয়া আলম বলেন, পৌরপানি শোধনাগারে গ্যাসের সন্ধান মিলেছে। এখানে গ্যাসের মজুদ পাওয়া গেলে গোপালগঞ্জবাসী তা ব্যবহারের সুযোগ পাবে।
গোপালগঞ্জ পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র শাহ্ নাহিদ বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। সেখানে আগুন জ্বলছে। আগুন দিয়ে রান্না-বান্নাসহ অন্যান্য কাজও করা হচ্ছে। আমরা পেট্রোবাংলাকে বিষয়টি অবহিত করব। গ্যাস অনুসন্ধানের জন্য বিশেষজ্ঞ টিম আনা হবে।