Author: dainikprime

বগুড়ায় লেগুনা-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৪

বগুড়ায় লেগুনা-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৪

প্রাইম ডেস্ক : বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলায় যাত্রীবাহী লেগুনা ও মালবাহী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও আটজন আহত হয়েছেন।আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে হতাহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের বিরগ্রাম কৃষি কলেজের সামনে এই  দুর্ঘটনা ঘটে। কুন্দারহাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাজল কুমার নন্দী দুর্ঘটনায় হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, নন্দীগ্রামমুখি একটি যাত্রীবাহী লেগুনা উক্ত স্থানে পৌঁছলে বিপরীতমুখে অপর একটি মালবাহী ট্রাকের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুইজন নিহত হন। আহত হন আটজন। আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।সেখানে চিকিৎসাধীন অ
নির্বাচনে বিএনপির পরাজয় নিয়ে শঙ্কিত প্রতিষ্ঠাতা মহাসচিব

নির্বাচনে বিএনপির পরাজয় নিয়ে শঙ্কিত প্রতিষ্ঠাতা মহাসচিব

প্রাইম ডেস্ক : আসন্ন জাতীয় একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপির পরাজয় নিয়ে শঙ্কিত বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনের প্রবীণ রাজনীতিক এবং বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা মহাসচিব ও বর্তমান বিকল্পধারা বাংলাদেশ এর প্রেসিডেন্ট ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।  নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জয় যে সুনিশ্চিত- সে বিষয়েও ইঙ্গিত পাওয়া যায় তার বক্তব্য থেকে।  তিনি বলেছেন, আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকার পুনরায় ক্ষমতায় আসলে ভবিষ্যত কী হবে তা নিয়ে শঙ্কিত বিএনপির নেতা-কর্মীরা।  অভিজ্ঞতা থেকে বলা যায়, অসুবিধায় পড়ে যাবে তারা।সম্প্রতি রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেন রোডের ঢাকা লেডিস ক্লাবে রাজনৈতিক দলগুলোর সম্মানে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগের সরকার গঠন ও নির্বাচনে অংশ নেয়ার মতো ভুল মানতে না পেরে বিএনপি সারা দেশব্যাপী জ্বালাও-পোড়াও শুরু করে। সে সময় বিএনপি নিজেদের কৌশলে
দোরগোড়ায় জাতীয় নির্বাচন : কিসে আত্মবিশ্বাসী হচ্ছে আওয়ামী লীগ?

দোরগোড়ায় জাতীয় নির্বাচন : কিসে আত্মবিশ্বাসী হচ্ছে আওয়ামী লীগ?

প্রাইম ডেস্ক : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আবারো বড় বিজয়ে আত্মবিশ্বাসী আওয়ামী লীগ। খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিপুল ভোটের ব্যবধানে নৌকার বিজয় জোটের আত্মবিশ্বাস আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও তার শরিকদের মধ্যে একটা স্বস্তি বিরাজ করছে। ক্ষমতাসীন দলগুলোর নীতিনির্ধারকরা মনে করছেন, বিজয়ের ধারা শুরু হয়েছে। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত এ ধারা অব্যাহত রেখে টানা তৃতীয় মেয়াদের সরকার গঠন করে রেকর্ড গড়া সম্ভব হবে। হ্যাট্রিক বিজয়ের মধ্যদিয়ে আবারও ক্ষমতায় যাওয়ার বিষয়ে দলটির আত্মবিশ্বাসের মূল উৎস হচ্ছে দেশব্যাপী ব্যাপক উন্নয়ন, প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার ক্যারিশম্যাটিক নেতৃত্ব, প্রধানমন্ত্রী পুত্র ও তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিজ্ঞানসম্মত কৌশল-পরিকল্পনা- যা নেতাকর্মীদের আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, একাদশ নির্বাচনে উন্নয়নকে
সারাদেশে ‘বন্দুকযুদ্ধে’  নিহত ৭

সারাদেশে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৭

নিজস্ব প্রতিবেদক  : দেশে চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে মঙ্গলবার রাতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সাতজন নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে কুষ্টিয়াতে দুইজন এবং জামালপুর, ফেনী, গাইবান্ধা, ঠাকুরগাঁও ও কুমিল্লায় একজন করে নিহত হয়েছেন। এতে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।   কুষ্টিয়া প্রতিনিধি জানান : মঙ্গলবার দিবাগত রাত একটার দিকে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপ‌জেলার লা‌হিনী পাড়ার গড়াই নদীর পাড় সংলগ্ন ব্রীজের নি‌চে ও ভেড়ামারা হাওয়াখালী ইটভাটার কাছে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। কুমারখালী থানার ও‌সি আব্দুল খা‌লেকের বরাত দিয়ে তিনি জানান, মাদক দ্রব্য ক্রয় বিক্রয়ের উ‌দ্দে‌শে একদল মাদক ব্যবসায়ী লা‌হিনী পাড়ার গড়াই নদীর পাড় সংলগ্ন ব্রীজের নি‌চে অবস্থান করছে; এমন সংবাদ পে‌য়ে পু‌লি‌শের একটি টহল দল ঘটনাস্থ‌লে অভিযান চালায়। পু‌লি‌শের উপ‌স্থি‌তি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পু‌লিশ‌কে লক্ষ্য কর গুলি ছো‌ড়
২৫ মে থেকে কমবে বৃষ্টি

২৫ মে থেকে কমবে বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক  : আগামীকাল পর্যন্ত সারাদেশে আকাশ মেঘলাসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। সেইসাথে কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। আবহাওয়াবিদ মো. রুহুল কুদ্দুস জানান, দেশের সকল নৌ-বন্দরকে আজ ১ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। অন্যদিকে ২৫ মে থেকে বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা হ্রাস পেতে পারে। তিনি জানান, মৌসুমী জলবায়ুর কারণে রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট ও ঢাকা বিভাগের অনেক জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া ও বিজলী চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, পশ্চিমা লঘুচাপ ভারতের বিহার ও তত্সংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর হয়ে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমের স্বাভাবিক
৫৮টি অস্ত্রসহ সুন্দরবনের ৫৭ বনদস্যুর আত্মসমর্পণ

৫৮টি অস্ত্রসহ সুন্দরবনের ৫৭ বনদস্যুর আত্মসমর্পণ

প্রাইম ডেস্ক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে অস্ত্র ও গুলি জমা দিয়ে আত্মসমর্পণ করেছেন সুন্দরবনের ছয়টি বনদস্যু বাহিনীর ৫৭ জন। বুধবার পৌনে একটার দিকে তারা আত্মসমর্পণ করেন। এরমধ্যে রয়েছেন— দাদা ভাই বাহিনীর ১৫ জন, হান্নান বাহিনীর নয়জন, আমির আলী বাহিনীর সাতজন, সূর্য বাহিনীর ১০ জন, ছোট সামসু বাহিনীর নয়জন ও মুন্না বাহিনীর সাতজন সদস্য। আত্মসমর্পণকালে তারা ৫৮টি অস্ত্র ও ১২৮৪ রাউন্ড গুলি জমা দেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন র‌্যাব-৬ এর পরিচালক খন্দকার রফিকুল ইসলাম। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মত্স ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, কেসিসির নব-নির্বাচিত মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ, কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক আওরঙ্গজেব চৌধুরী এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ছয়জন সদস্য।
পঞ্চগড়ে ধ্বংস করা হলো পাঁচ হাজার কেজি আম

পঞ্চগড়ে ধ্বংস করা হলো পাঁচ হাজার কেজি আম

প্রাইম ডেস্ক : পঞ্চগড়ে বিশেষ কেমিক্যাল মেশানো প্রায় পাঁচ হাজার কেজি পাকা আম জব্দ করে জনসম্মুখে ধ্বংস করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২২ মে) বিকেলে শহরের রাজনগর হাটে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে কয়েকজন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে এসব আম জব্দ করা হয়। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর পঞ্চগড় কার্যালয়ে সহকারী পরিচালক হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘এখনও আমের মৌসুম শুরু হয়নি। অসাধু ব্যবসায়ীরা কাঁচা আমে বিশেষ কেমিক্যাল মিশিয়ে পাকা রং করে গ্রাহকদের সাথে প্রতারণা করছিল। এমন তথ্য পেয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে আবুল কাসেম, বাবু, সুজন ও সেকেন্দার নামে চার আরতদারের কাছে এই আম জব্দ করা হয়। জব্দকৃত আমের আনুমানিক মূল্য পাঁচ লক্ষ টাকা। পরে আমগুলো করতোয়া নদী সংলগ্ন মাঠে জনসম্মুখে ধ্বংস কার হয়। পাশাপাশি অসাধু ব্যবসায়ীদের বিশেষভাবে সতর্ক করে দেওয়া হয়’।
৬০ গডফাদারের মাধ্যমে মাদক আসে মিয়ানমার থেকে

৬০ গডফাদারের মাধ্যমে মাদক আসে মিয়ানমার থেকে

প্রাইম ডেস্ক : মিয়ানমার ইয়াবার উত্সভূমি হিসেবে পরিচিতি। বাংলাদেশকে টার্গেট করে মিয়ানমার সীমান্তে গড়ে উঠেছে প্রায় অর্ধশত ইয়াবা কারখানা। মিয়ানমার থেকে সমুদ্রপথে ট্রলারযোগে মাছের আড়ালে মরণ নেশা ইয়াবার বড় বড় চোরাচালান আসছে বাংলাদেশে। আর দেশে ইয়াবা আনতে মিয়ানমারের সঙ্গে সরাসরি নেটওয়ার্কে জড়িত কক্সবাজারের টেকনাফ এলাকার ৬০ গডফাদার। তারা মিয়ানমারের ব্যবসায়ীদের কাছে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে চাহিদা অনুযায়ী ইয়াবা দেশে আনছেন। তালিকাভুক্ত এই ৬০ গডফাদারই বাংলাদেশের সর্বত্রই ইয়াবার মূল সরবরাহকারী। তাদের মাধ্যমে প্রতি মাসে ইয়াবা বাবদ কোটি কোটি ডলার যাচ্ছে মিয়ানমারে। এসব মাদক টেকনাফসহ কক্সবাজরের বিভিন্ন এলাকা থেকে সড়ক, রেল ও নৌ পথে ইয়াবা সারাদেশে সারাদেশে সরবরাহ করা হচ্ছে। এদিকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মাদক নির্মুল অভিযান অব্যাহত রেখেছে। অভিযানে গুলি বিনিময়কালে গতকাল মঙ্গলবার দেশের বিভিন্ন স্থানে ১১ শীর্ষ
সেই মুক্তামনি আর নেই

সেই মুক্তামনি আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক  : বিরল রোগ হেমানজিওমায় আক্রান্ত সাতক্ষীরার শিশু মুক্তামনি মারা গেছে। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। আজ বুধবার সকালে না ফেরার দেশে চলে যায় সে। মুক্তামনির নানা ফকির আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, 'আজ বুধবার  সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার কামারবায়সা গ্রামে অবস্থিত নিজ বাড়িতে মারা গেছে মুক্তামনি।' ২০১৭ সালের জুলাই মাসে মুক্তামনিকে নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপর শিশুটির চিকিৎসার দায়িত্ব নেন স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও পরিবারকল্যাণ বিভাগের সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তামনির চিকিৎসার ব্যয়ভার বহনের দায়িত্ব নেন। মুক্তামনির চিকিৎসার জন্য মেডিক্যাল বোর্ড গঠনসহ সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের সঙ্গেও যোগাযোগ করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষ। দীর্ঘ ছয় মাস চিকিৎসার পর হাতের অবস্থা কিছুটা ভালো হলে তাকে এক মাসের জন্য গ্রামের
ফরিদপুরে হত্যা মামলার সাক্ষী হওয়ায় এলাকাছাড়া ৭ পরিবার

ফরিদপুরে হত্যা মামলার সাক্ষী হওয়ায় এলাকাছাড়া ৭ পরিবার

প্রাইম ডেস্ক : ফরিদপুরের সালথা উপজেলার বল্লভদী ইউনিয়নে টকু মাতুব্বর হত্যা মামলার সাক্ষী হওয়ায় সপরিবারে এক বছর ধরে এলাকাছাড়া রয়েছে সাতটি পরিবার। প্রতিপক্ষের লোকজন এসব পরিবারের সদস্যদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়েছে। এ কারণে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে দ্রুত দোষীদের  বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন। এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা জানান, ২০০৪ সালে সালথার বল্লভদী ইউনিয়নের কাজীর বল্লভদী গ্রামের বকুল মাতুব্বরের ১২ বছরের মেয়েকে অপহরণ করে শাহীন ও দেলোয়ার কাজীসহ স্থানীয় একটি চিহ্নিত সন্ত্রাসী চক্র। এ নিয়ে বকুল মাতুব্বরের স্ত্রী মেরেজান বেগম থানায় মামলা করেন। এই মামলায় আসামিদের কয়েকজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড  হয়। এরই জের ধরে আসামি পক্ষের লোকজন ২০০৬ সালের ২৪ জুন ভোরে বকুল মাতুব্বর হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী ও তার