অপরাধ

শ্রীপুরে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা, ঘাতক স্বামী আটক

শ্রীপুরে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা, ঘাতক স্বামী আটক

গাজীপুর  প্রতিনিধি :  শ্রীপুর উপজেলার টেপিরবাড়ি এলাকায় বটি দিয়ে কুপিয়ে স্ত্রী হত্যা করেছে তার স্বামী। বৃহস্পতিবার রাতে হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটে। স্ত্রী হত্যার অভিযোগে ওই নারীর ঘাতক স্বামী ফজর উদ্দিনকে (৬৫) আটক করেছে পুলিশ। নিহত স্ত্রীর নাম বেদেনা আক্তার (৫০)। তিনি ময়মনসিংহের নান্দাইল থানার বাতোয়াদি এলাকার মৃত আব্দুল খালেকের মেয়ে। তিনি শ্রীপুরের ভিয়েলা টেক্সটাইল কারখানায় শ্রমিকের কাজ করতেন। শ্রীপুর থানার এসআই মাহমুদুল হাসান ও স্থানীয়রা জানান, বেদেনা আক্তার পরিবার নিয়ে টেপিরবাড়ি পশ্চিমপাড়া এলাকার এলাকার শাহজাহানের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। রাতে সাড়ে ৭টার দিকে স্বামী ফজর উদ্দিন বটি দিয়ে বেদেনা আক্তারকে শরীরের বিভিন্নস্থানে এলাপাতারি কুপায়। আশপাশের লোকজন গুরুতর আহতবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান। খবর পেয়ে নিহতের স্বামী ফজর উদ্দিনকে আটক করা হয়। লাশ উদ্ধার করে ময়না ত
হোটেলের ড্রাম থেকে নারীর লাশ

হোটেলের ড্রাম থেকে নারীর লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুরের হোতাপাড়া এলাকার একটি আবাসিক হোটেলে ড্রামের ভেতর থেকে অজ্ঞাতনামা নারীর (২৮) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। হোতাপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সাইফুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে ওই এলাকার বৈশাখী আবাসিক হোটেলের দ্বিতীয় তলার  জেনারেটর রুমে প্লাস্টিকের ড্রামে এক নারীর লাশ ঢুকিয়ে তাতে ঢাকনা দেওয়া ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লাশটি উদ্ধার করা হয়। এর আগেই হোটেলের কর্মচারীরা পালিয়ে যায়।’ এসআই আরও জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। মৃতের গায়ে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। পুলিশের  ধারণা, দু’দিন আগে হত্যার পর লাশটি ড্রাম ভর্তি করে গুম করার প্রক্রিয়া করছিল হত্যাকারীরা। এ বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানা
ময়মনসিংহের পাগলা থানায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে নিহত ১

ময়মনসিংহের পাগলা থানায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে নিহত ১

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের পাগলা থানাধীন জমি সংক্রান্ত বিরোধে চাচাতো ভাইয়ের হাতে খুন হয়েছেন সফিকুল ইসলাম শাহীন (৩০) নামের এক যুবক। বৃহস্পতিবার দুপুরে গফরগাঁও উপজেলা পাগলা থানার মশাখালি ইউনিয়ন বেলাবো গ্রামে এঘটনা ঘটে। নিহত শাহীন বেলাবো গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য মুকবুল হোসেনের ছেলে। পাগলা থানা সূত্রে জানা যায়, বাড়ির সামনে পুকুরের জমি নিয়ে দুই ভাই ছোরত ও মুকবুল হোসেনের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ  বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার সকালে এই বিরোধপূর্ণ পুকুর ভরাটকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে চাচা ছোরত ও চাচাতো ভাই রাকিবের রামদায়ের কোপ এবং শাবলের আঘাতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান শাহীন। খবর পেয়ে পাগলা থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। পাগলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মুখলেছুর রহমান আকন্দ জানান, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠান
গফরগাঁওয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে মা-ছেলের মৃত্যু

গফরগাঁওয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে মা-ছেলের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক  : ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে আড়াই বছরের শিশু ছেলেকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক মা। মঙ্গলবার সকালে গফরগাঁও উপজেলার ধামাইল এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এরা হলেন ধামাইল ঢালীর বাড়ির রাজিব ঢালীর স্ত্রী মোছা. সাদিয়া আখতার লিজা (২৬) ও তার শিশু ছেলে ইয়াসিন । পারিবারিক কলহের কারণে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে । সাদিয়া আখতার লিজার বাবা মো. শাহজাহান মৃধা জানান , তার মেয়ের মানসিক সমস্যা ছিলো । হয়তো এ কারণেই সন্তানকে নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন । ময়মনসিংহ রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মান্নান ফরাজি বলেন, মঙ্গলবার সকালের দিকে ট্রেনে কাটা পড়ে সাথী আক্তার (২৫) ও তাঁর ছেলে ইয়াসিন (আড়াই বছর) নিহত হয়। তাদের বাড়ি গফরগাঁও উপজেলার ধামাইপুর গ্রামে। সকাল সোয়া ছয়টায় আন্তনগর যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে পড়ে তাদের মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ময়মনসিংহ মেডি
ডাকাতির সময় ধর্ষণই যার নেশা

ডাকাতির সময় ধর্ষণই যার নেশা

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডাকাতিকালে ধর্ষণ করাটাই ছিল তার নেশা। তবে লোকলজ্জার ভয়ে ধর্ষণের শিকার কেউ কোনোদিন অভিযোগ করেনি। অবশ্য ডাকাতি ছাড়াও তার বিরুদ্ধে পৃথক ধর্ষণ মামলা রয়েছে। ডাকাত নয় আন্তঃজেলা ডাকাতদলের সর্দার ভয়ংকর ও দুর্ধর্ষ সেই ডাকাতের নাম মোস্তাক আহমেদ (৪০)। ডাকাত মোস্তাক আহমেদ বর্তমানে পুলিশের জালে বন্দি হয়ে হাজতবাস করছেন। কুলাউড়া থানা পুলিশ তাকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদকালে বুধবার এসব ভয়ংকর তথ্য দেয়। ডাকাত মোস্তাকের বাড়ি রাজনগর উপজেলার কামারচাক ইউনিয়নের মৌলভীরচক গ্রামে। পুলিশ জানায়, মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন থানায় ডাকাত সর্দার মোস্তাক আহমেদের বিরুদ্ধে ৬টি ডাকাতির ও একটি ধর্ষণ মামলা রয়েছে। ডাকাতি করতে গিয়ে মোস্তাক নারী ধর্ষণ করত বলে লোকমুখে জানা যায়। কিন্তু ধর্ষণের বিষয়ে কোনো লিখিত অভিযোগ ছিল না। পুলিশ জানায় ২০১৭ সালের ২৭ নভেম্বর কমলগঞ্জ উপজেলার একটি বাড়িতে ডাকাতিকালে এলাকাবাসী মোস্তা
ধর্ষণের পর লাশ পুড়িয়ে ফেলার মামলায় চট্টগ্রামে ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

ধর্ষণের পর লাশ পুড়িয়ে ফেলার মামলায় চট্টগ্রামে ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক  : চট্টগ্রামে এক তরুণীকে ধর্ষণের পর লাশ পুড়িয়ে ফেলার মামলায় তিন ধর্ষককে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার রায় দিয়েছে আদালত। বুধবার চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক বেগম রোকসানা পারভীন এ রায় দেন। দণ্ডিত আসামিরা হলেন- সুজন কুমার দাশ, সমীর দে এবং যদু ঘোষ। রায় ঘোষণার সময় সুজন কুমার দাশকে আদালতে হাজির করা হয়। বাকি আসামিরা পলাতক রয়েছেন। আদালত সূত্র জানায়, ২০১১ সালের জুনে পাহাড়তলি থানার দক্ষিণ কাট্টলী এলাকায় এক তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণের পর শ্মশানে নিয়ে মৃতদেহ পুড়িয়ে ফেলা হয়। পরে শ্মশান থেকে ওই তরুণীর পোড়া লাশ উদ্ধার করা হয়।
একই দড়িতে শালি দুলাভাইয়ের লাশ

একই দড়িতে শালি দুলাভাইয়ের লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক  : ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পূর্ব তেঁতুলবাড়িয়া গ্রামের একটি কড়ই গাছে শালি দুলাভাইয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের ধারণা একই রশিতে তারা ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। বুধবার সকালে পুলিশ ওই গ্রামের পীরতলা মাঠের কড়াই গাছ থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে। প্রেমের কারণে তারা আত্মহত্যা করতে পারেন বলে পুলিশ প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে। মৃতরা হলেন পূর্ব তেঁতুলবাড়িয়া গ্রামের মন্টু মোল্লার ছেলে বিল্লাল হোসেন (২৫) ও একই গ্রামের সাখাওয়াত হোসেনের মেয়ে ও নারিকেলবাড়ীয়া জেড এম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী কলি খাতুন (১৪)। নারিকেলবাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (এসআই) বদিউর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, তিনি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছেন। ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ঘোড়শাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পারভেজ মাসুদ লিটন জানান,
গাজীপুরে গলাকেটে অটোরিকশা চালক হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদন্ড

গাজীপুরে গলাকেটে অটোরিকশা চালক হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদন্ড

গাজীপুর  প্রতিনিধি : গাজীপুরে ২০১৩ সালে গলাকেটে ব্যাটারি চালিত এক অটোরিকশা চালককে হত্যার দায়ে এক যুবককে মৃত্যুদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। রোববার সকালে গাজীপুরের জেলা ও দায়রা জজ এ কে এম এনামুল হক ওই রায় প্রদান করেন। রায়ে একই সঙ্গে সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অন্য একটি ধারায় আরো তিন বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণীত না হওয়ায় মামলার অপর ৩ জনকে খালাস দিয়েছেন আদালত। দন্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম মো: নাইম ওরফে মহিউদ্দন নাইম (২৪)। সে গাজীপুরের সিটি করপোরেশনের চতর এলাকার আব্দুল গফুরের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় সাজাপ্রাপ্ত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। গাজীপুর আদালতের পরিদর্শক মোঃ রবিউল ইসলাম ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের হাতিয়াব দর্জিপাড়া চুন্নু মোল্লার ছেলে জুলহাস মোল্লা (১৮) ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা চালাতেন। ২০১৩ সালের ২৮ নভেম্বর সকালে ওই অটো
নরসিংদীতে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ

নরসিংদীতে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক  : নরসিংদীতে পারিবারিক কলহের জের ধরে নার্গিস আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার স্বামী। শনিবার সকালে শিবপুর উপজেলার দরিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও নিহতের পরিবারের লোকজন জানায়, এক বছর আগে দরিপাড়া গ্রামের মনুরুদ্দিন চৌকিদারের ছেলে লোকমান মিয়ার সঙ্গে সদর উপজেলার কামারচর গ্রামের সালাউদ্দিনের মেয়ে নার্গিস আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর বিভিন্ন সময় স্বামীর বাড়ির লোকজনের দাবি অনুযায়ী এক লাখ টাকা যৌতুক পরিশোধ করা হয়। শনিবার সকালে নার্গিসের মৃত্যুর খবর পেয়ে স্বজনরা গিয়ে তার রক্তাত্ব লাশ দেখতে পায়। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। এদিকে স্বামী লোকমান মিয়াকে আহত অবস্থায় নরসিংদী জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। লোকমানের স্বজনদের দাবি, গত রাতে ডাকাতদের হামলায় স্ত্রী নিহত ও স্বামী আহত হয়েছেন।
ময়মনসিংহে বিদেশী পিস্তল, গুলি দেশীয় অস্ত্রসহ আটক ৩

ময়মনসিংহে বিদেশী পিস্তল, গুলি দেশীয় অস্ত্রসহ আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিদেশী পিস্তল, গুলি ও দেশীয় অস্তসহ ৩ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৪। র‍্যাবের দাবি গ্রেফতারকৃতরা আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। তারা হলেন, আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার মোঃ রায়হান (৩১), দুই সহযোগি অহেদ আলী (৫০), ও মোঃ সিরাজ (২৪)। এরা সকলেই গফরগাঁও উপজেলার  বিসিন্দা বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার (২০ মার্চ ) ভোর সোয়া চারটার দিকে পাগলা থানার অললী গ্রামের একটি বাড়ি থেকে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ান ময়মনসিংহ র‍্যাব-১৪ এর একটি বিশেষ দল। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, একটি গুলি ও ম্যাগজিন, ৪টি লোহার রাম'দা, ২টি বড় ছোড়া, ১টি কাটার, ১টি লোহার করাত, ১টি স্টিলের চেইন, ৩টি মোবাইল ফোনসহ বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে র‍্যাব-১৪ কার্যালয়ের অতিরিক্ত পুল