অপরাধ

১০ টাকার জন্য নিজ সন্তানকে খুন করলেন মা

১০ টাকার জন্য নিজ সন্তানকে খুন করলেন মা

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাত্র ১০টি টাকা চাওয়ায় মায়ের হাতে খুন হলো ৮ বছরের শিশু কাউছার। শিশুটির মা তাকে গলাটিপে হত্যা করে। হৃদয়বিদারক এ ঘটনাটি ঘটেছে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের দক্ষিণ চররুহিতা গ্রামে। গত সোমবার রাতের এ ঘটনায় শিশুটির মা স্বপ্না বেগমসহ ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ছেলেকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। মঙ্গলবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। কাউছার স্থানীয় লোকমানিয়া হাফিজিয়া মাদরাসায় প্রথম শ্রেণিতে পড়তো। বাবা মো. রাসেল, পেশায় কাভার্ডভ্যান চালক। প্রতিবেশীরা জানান, গাড়ি চালানোর কাজে বেশীর ভাগ সময় বাইরে থাকেন স্বপ্না বেগমের স্বামী রাসেল। এ সুযোগে এলাকায় উচ্ছৃঙ্খল জীবনযাপন করতেন স্বপ্না। সোমবার রাতে মায়ের কাছে ১০ টাকা চাইলে মারধর করে তার গলাটিপে ধরেন মা। কিছুক্ষণ পর বাবা (সন্তান) মারা গেছে বলে চিৎকার
গাজীপুরে ৮ মাসের অন্তঃসত্বা গৃহবধুকে ধর্ষনের অভিযোগ

গাজীপুরে ৮ মাসের অন্তঃসত্বা গৃহবধুকে ধর্ষনের অভিযোগ

শ্রীপুর গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুরের শ্রীপুরে ৮ মাসের অন্তঃসত্বা গৃহবধুকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতিত এই গৃহবধু চারজনকে অভিযুক্ত করে এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তবে অভিযোগটি মিথ্যা বলে দাবী পুলিশের। অভিযুক্তরা হলেন শ্রীপুর পৌর এলাকার বহেরারচালা গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে তোফাজ্জল হোসেন,একই গ্রামের হিরন মাঝির ছেলে নাজমুল মাঝি, বিল্লাল মাঝির ছেলে কায়েশ মাঝি ও মামুন নামের এক যুবক। অভিযুক্তরা সকলেই ক্ষমতাসীন দলের রাজনীতির সাথে জড়িত। নির্যাতিতার ভাষ্য, গত ৪ অক্টোবর (শুক্রবার) তিনি বাড়ীর পাশে একটি পানির পাম্প চালু করতে গেলে অভিযুক্তরা তাকে মারধর করে আহত করে । পরে তাকে জোড়পূর্বক ধরে একটি কক্ষে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে মাথায় আঘাত করলে তিনি মাটিতে পড়ে যান। পরে অভিযুক্তরা তাকে ধর্ষন করেন। এরই এক পর্যায়ে তিনি চেতনা হারিয়ে ফেললে তাকে ফেলে অভিযুক্তরা ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়। তিনি আরো
ফরিদপুরে হত্যা মামলায় ৭ জনের ফাঁসির আদেশ

ফরিদপুরে হত্যা মামলায় ৭ জনের ফাঁসির আদেশ

প্রাইম ডেস্ক : ফরিদপুরের ভাঙ্গায় পিকআপ চালক কেরামত হাওলাদার (৩৫) হত্যা মামলায় ৭ জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. সেলিম মিয়া। বৃহস্পতিবার সকালে ৭ আসামির মধ্যে ৫ জনের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন তিনি। এ ছাড়া প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- তোফা মোল্যা (২৬), পিতা মৃত আব্দুল মোল্যা; পলাশ ফকির (৩২), পিতা আব্দুল মান্নান ফকির; সিদ্দিক খালাসি (৩৬), পিতা সামছুল হক খালাসি; এরশাদ মাতুব্বর (৩২), পিতা আব্দুল মালেক মাতুব্বর; সুরুজ ওরফে সিরাজুল খাঁ (২৭), পিতা মৃত মোসলেম; নাইম মাতুব্বর (৩৫), পিতা মৃত আব্দুল মালেক মাতুব্বর; আনু মোল্যা ওরফে আনোয়ার মোল্যা (২৮), পিতা গিয়াস উদ্দিন মোল্যা। এদের সকলের বাড়ি ভাঙ্গা উপজেলা চান্দ্রা গ্রামে। এদের মধ্যে নাইম মাতুব্বর ও সুরুজ ওরফে সিরাজুল পলাতক রয়েছে। আদালতের ভারপ্রাপ্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) দুল
সেলিম গ্রেফতার হবার পর তারেকের অস্বাভাবিক আচরণ, জানালেন পিএস পারভেজ মল্লিক

সেলিম গ্রেফতার হবার পর তারেকের অস্বাভাবিক আচরণ, জানালেন পিএস পারভেজ মল্লিক

প্রাইম ডেস্ক : জাতীয়তাবাদী দলের ক্যাসিনো ব্যবসায়ীরা একের পর এক গ্রেফতার হওয়ার পর দল চরম অর্থ সংকটে পড়বে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন তারেক রহমান। মঙ্গলবার (১ অক্টোবর) লন্ডনে তারেক রহমানের খবরাখবর রাখেন এমন একজন গণমাধ্যমকর্মীর সাথে ব্যক্তিগত আলাপচারিতায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের একান্ত সচিব (পিএস) পারভেজ মল্লিক এ তথ্য জানান। সূত্র বলছে, অনলাইন ক্যাসিনো ব্যবসায়ী সেলিম প্রধান গ্রেফতার হবার পর দলের মূল চালিকাশক্তি ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে বলে মনে করছেন তারেক রহমান। সেলিম গ্রেফতার হবার পর থেকেই তিনি লন্ডনে তার আশেপাশের নেতাকর্মীদের সাথে অস্বাভাবিক আচরণ করছেন। এ প্রসঙ্গে লন্ডনে বসবাসরত বিএনপির এক নেতা জানান, অনলাইন ক্যাসিনো ব্যবসায়ী সেলিম প্রধান গ্রেফতার হয়েছেন এমন খবর শোনার পর থেকেই আমাদের নেতা তারেক রহমানকে অনেকটা বিচলিত মনে হচ্ছে। আমরা তাকে বারবার সান্ত্বনা দেয়ার চেষ্টা করছি। আসলে সর
সেলিমের অনলাইন ক্যাসিনোর টাকা যেত লন্ডনে

সেলিমের অনলাইন ক্যাসিনোর টাকা যেত লন্ডনে

প্রাইম ডেস্ক : অনলাইনে অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসার মূলহোতা সেলিম প্রধান। তাকে সোমবার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট থেকে নামিয়ে আনে র‌্যাব। পরে তাকে নিয়ে তার অফিস ও বাসায় অভিযান চালিয়ে বিপুল নগদ টাকাসহ বিদেশি মদ ও অত্যাধুনিক ক্যাসিনো সরঞ্জাম জব্দ করা হয়। র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে ‘ক্যাসিনো’ সেলিম জানান, তার অনলাইন ক্যাসিনো থেকে আয়ের অবৈধ টাকা তিন ব্যাংকে জমা রাখতেন। পরে সে সব টাকা হুণ্ডি বা সঙ্গে করে বিদেশে পাচার করতেন। লন্ডনেও তিনি সে সব টাকা পাচার করতেন বলে তথ্য পেয়েছে র‌্যাব। মঙ্গলবার সেলিম প্রধানের বাসা ও অফিসে অভিযান শেষে এ সব কথা জানান র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম। র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, অনলাইনে ক্যাসিনো খেলতে হলে গ্রাহকের নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকার প্রয়োজন হয়। সে সব টাকা তিনটি গেটওয়েতে জমা হতো। খেলায় জিতলে টাকা গ্রাহকের অ্যাকাউ
কৃষক হত্যায় ৭ জনের যাবজ্জীবন

কৃষক হত্যায় ৭ জনের যাবজ্জীবন

প্রাইম ডেস্ক : কিশোরগঞ্জের হাওড় অধ্যুষিত অষ্টগ্রামের কৃষক আব্বাস আলীকে হত্যা মামলায় বাবা-ছেলে ও তিন ভাইসহ সাতজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং প্রত্যেককে তিন লাখ টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার সকালে কিশোরগঞ্জের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহাম্মদ আব্দুর রহিম ছয় আসামির উপস্থিতিতে ওই রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, অষ্টগ্রাম উপজেলার কাস্তল শেখেরহাটি গ্রামের মঙ্গু মিয়া, জঙ্গু মিয়া, মঞ্জু মিয়া, এনায়েত, কাকন মিয়া, কাজল ও দুলু মিয়া। তাদের মধ্যে মঞ্জু পলাতক রয়েছেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, অষ্টগ্রামের কাস্তুল ভুঁইয়াপাড়া গ্রামের আব্বাস আলীর সঙ্গে আসামিদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। এর জেরে ২০০৫ সালের ২৩ জুলাই সকালে আসামিরা দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আব্বাস আলীর বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় আব্বাস আলী বল্লমবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রীর বড় ভাই মিরু
ক্যাফে রিও ও স্পাইসি রমনাকে লাখ টাকা জরিমানা

ক্যাফে রিও ও স্পাইসি রমনাকে লাখ টাকা জরিমানা

প্রাইম ডেস্ক : অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রান্না ও নিয়ম না মেনে খাবার সংরক্ষণসহ বিভিন্ন অপরাধে ধানমন্ডির ক্যাফে রিও এবং স্পাইসি রমনাকে ৯ লাখ টাকা জরিমানা করেছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ। সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ধানমন্ডির সাতমসজিদ রোডে অবস্থিত এই দুই রেস্তোরাঁয় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হোসনে আরা পপি। হোসনে আরা পপি বলেন, অভিযানের সময় দেখা গেছে ক্যাফে রিও’র রান্নাঘরে ময়লার বাক্সে ঢাকনা ছিল না। তারা ফ্রিজে কাঁচা এবং রান্না করা খাবার একসঙ্গে রাখছে। পাশাপাশি নষ্ট বরবটি, চিলি সস অন্য কাঁচা সবজির সঙ্গে রেখে দেওয়া, পচা ডিম সংরক্ষণ, ৮.৭ ডিগ্রি তাপমাত্রায় পাস্তুরিত দুধ সংরক্ষণের বিষয়টিও ধরা পড়ে। এসব অপরাধে নিরাপদ খাদ্য আইনের ৩৩ ধারায় ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। নষ্ট ও ভালো সবজি একসঙ্গে সংরক্ষণ এছাড়া স্পাইসি রমনায় অভিযান চালিয়ে রান্নাঘরে অস্বাস্থ্যকর পরিবে
গফরগাঁওয়ে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা

গফরগাঁওয়ে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে পরকীয়া কারণে রিপা (২৫) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার চেষ্টা চালায় মাসুদ নামে এক দর্জি। পরে মাসুদ নিজেই গফরগাঁও থানায় গিয়ে গৃহবধূকে হত্যা চেষ্টার বিষয়টি পুলিশকে জানালে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে ঐ গৃহবধুকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি দেখে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতারে প্রেরণ করে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২টায় পৌরশহরের কোর্টভবন সংলগ্ন একটি বাসায়। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পৌরশহরে কোর্টভবন এলাকার মুদি ব্যবসায়ী তোফাজ্জলের স্ত্রী রিপার সাথে এক দর্জি মাসুদ নামে এক দজির পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে উঠে। রিপা পরকীয়া সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে না চাইলে মঙ্গলবার দুপুরে বাসায় ঢুকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা চালায়। রিপার পরিবারে প্রাপ্তি (৭) নামের একটি কন্যা ও প্রত্যয় (১২) নামে একটি পুত্র রয়েছে। ঘাতক দর্জি মাসুদ
অবৈধ ক্যাসিনো ও জুয়ার যাত্রা শুরু হয়েছিল বিএনপির তত্ত্বাবধানে!

অবৈধ ক্যাসিনো ও জুয়ার যাত্রা শুরু হয়েছিল বিএনপির তত্ত্বাবধানে!

প্রাইম ডেস্ক : ক্যাসিনো মানেই টাকার ছড়াছড়ি। বিশ্বজুড়ে এমন অসংখ্য ক্যাসিনো রয়েছে। যেখানে জুয়ার নেশায় মেতে থাকেন সবাই। পৃথিবীর অনেক দেশেই জুয়া খেলার ব্যবসা রয়েছে। তবে বাংলাদেশে ক্যাসিনো অবৈধ। ধনাঢ্য ব্যক্তিরা মনোরঞ্জনের পাশাপাশি অবৈধ অর্থ উপার্জনের জন্য ক্যাসিনোগুলোতে প্রতিদিন ভিড় জমান। তথ্যসূত্রে জানা গেছে, রাজধানী ঢাকার মতিঝিল, ফকিরাপুল, সেগুনবাগিচা, গুলিস্তান, উত্তরা, গুলশান ও বনানীর মতো বিভিন্ন স্পটে অবৈধ ক্যাসিনো বা জুয়ার আসরের ব্যবসা চলছে। রাজনৈতিক পরিচয়ের আড়ালে কিছু সিন্ডিকেট এই দীর্ঘদিন ধরে এই অবৈধ ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। জানা গেছে, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় রাজধানীতে ক্যাসিনো নিয়ন্ত্রণ করত যুবদল ও ছাত্রদলের কিছু নেতা। এর মধ্যে যুবদলের তৎকালীন সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের নেতৃত্বে রাজধানীর বিভিন্ন আবাসিক এলাকায় রীতিমতো বাসা ভাড়া নিয়ে চলতো ক্যাসিনো ও জুয়ার ব্যবসা। তবে বাংল
যুবকের কব্জি কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা

যুবকের কব্জি কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা

প্রাইম ডেস্ক : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় উজিরপুরে রুবেল হোসেন (২৮) নামে এক যুবকের দুই হাতের কব্জি কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আহত রুবেল হোসেন শিবগঞ্জ উপজেলার রাণীহাটি বাজারের মৃত খোদাবক্সের ছেলে। বর্তমানে তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। রুবেলের স্বজনরা অভিযোগ করেছেন পদ্মা নদীর উজিরপুর ঘাটে বালু উত্তোলন ও ঘাটের আধিপত্ব নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজ আহমেদের লোকেরা এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। রুবেলের চাচাতো ভাই আব্দুস সালাম জানান, পদ্মা নদীর বালু তোলা ফয়েজ চেয়ারম্যানের সঙ্গে রুবেলের একটা ঝামেলা ছিলো, তারাই এটা ঘটিয়েছে। তিনি বলেন, 'বুধবার রাতে রুবেল তার দুই বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় কয়েকজন তাকে ধরে পদ্মা নদীর তীরে নিয়ে দুই হাতের কব্জি কেটে নেয়। আমরা খবর পেয়ে রুবেলকে উদ্ধার করে প্রথমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতাল ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কল