নারী

শেখ হাসিনার হাত ধরে দূর্বার বাংলাদেশ

শেখ হাসিনার হাত ধরে দূর্বার বাংলাদেশ

প্রাইম ডেস্ক : ৩০ ডিসেম্বর বাংলাদেশের ইতিহাসে অবিস্মরণীয় দিন হিসেবে ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণাক্ষরে লিখা হয়ে থাকবে। এই দিনটিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জয় বাংলাদেশকে নিয়ে গিয়েছে এক অনন্য উচ্চতায়। টানা ৩য় বারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভীতকে সগৌরবে দাঁড় করিছেন বিশ্ব নেতৃত্বের কাছে। বাংলাদেশ এখন সারা বিশ্বের কাছে গণতন্ত্রের রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বিপুল ভোটে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হবার পর থেকেই সারা বিশ্ব থেকে ধেয়ে আসছে প্রশংসার বাণী। ভারত, নেপাল, ভুটান, আরব আমিরাত, সৌদি আরব, চীনসহ সারা বিশ্বের নেতৃবৃন্দ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বকে স্বাগত জানাচ্ছেন মাথানত সরূপ। জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশের সুবর্ণ জয়ন্তী এই বিজয়কে দিয়েছে নতুন মাত্রা। গত ১০ বছরের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় ২০২০ সালে
শিশু উন্নয়ন ও অটিজম নিয়ে একত্রে কাজ করুন: সায়মা ওয়াজেদ

শিশু উন্নয়ন ও অটিজম নিয়ে একত্রে কাজ করুন: সায়মা ওয়াজেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিশু উন্নয়ন এবং অটিজম বিষয়ে সবাই মিলে সমন্বিতভাবে কাজ করার প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন। ওই সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়নাধীন শিশু উন্নয়ন ও শিশু সুরক্ষামূলক প্রকল্প এবং কর্মসূচিসমূহের মধ্যে সমন্বয় ও একটি সমন্বিত গাইড লাইন প্রণয়নের লক্ষ্যে সোমবার সকালে বাংলাদেশ শিশু একাডেমিতে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং সূচনা ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে মতবিনিময় সভায় অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপার্সন, সূচনা ফাউন্ডেশন ও চেয়ারপার্সন, অটিজম এবং নিউরোডেভেলপমেন্টাল ডিজঅর্ডারস বিষয়ক জাতীয় উপদেষ্টা কমিটি এবং এশিয়া অঞ্চলে অটিজম বিষয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার শুভেচ্ছা দূত সায়মা ওয়াজেদ হোসেন। অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় মহিলা ও শিশুদের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করছে। এ কার্যক্রম আরো গতিশীল করতে
জেনে নিন উকুন দূর করার সহজ উপায়

জেনে নিন উকুন দূর করার সহজ উপায়

প্রাইম ডেস্ক : বাড়িতে যে কারোর মাথায় উকুন থাকলেই তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে অন্যদের মাথায়। সংক্রামক উকুন অত্যন্ত বিরক্তিকর ও বিব্রতকর। দীর্ঘদিন উকুনের বসবাসের ফলে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। এছাড়া অনেক সময় চুলকানির কারণে মাথার ত্বকও হয়ে যায় ইনফেকশন। খুব সহজেই এই যন্ত্রণাদায়ক উকুনের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন লবণ-পানির সাহায্যে। জেনে নিন কীভাবে। গোসলের সময় দেড় লিটার পানিতে ১ চা চামচ লবণ মিশিয়ে চুল ধুয়ে নিন। ৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার চুল হালকা হাতে ম্যাসাজ করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একবার অথবা দুইবার এটি ব্যবহার করতে পারেন। উকুন দূর করার জন্য পদ্ধতিটি খুবই কার্যকর। জেনে নিন অপরিচ্ছন্নতা উকুন হওয়ার মূল কারণ। উকুন থেকে দূরে থাকতে চাইলে সবসময় চুল পরিষ্কার রাখবেন তাই। অন্যের চিরুনি ও তোয়ালে ব্যবহার করবেন না। ভেজা চুল বেঁধে রাখবেন না। চুলে নিয়মিত শ্যাম্পু ব্যবহার করা জরুরি। পাশাপাশি প্
নারী প্রার্থীতে আওয়ামী লীগ এগিয়ে

নারী প্রার্থীতে আওয়ামী লীগ এগিয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ২০ জন নারী প্রার্থীকে মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট। তাদের মধ্যে দুইজন নতুন। অন্যরা আগেও সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। অন্যদিকে, বিএনপি নেতৃাত্বাধীন জোট ১৪ জন নারীকে প্রার্থী দিয়েছে। তাদের মধ্যে ১৩ জন বিএনপি প্রার্থী ও একজন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের। বিএনপির নারী প্রার্থীদের বেশির ভাগই দলটির নেতাদের স্ত্রী। বাকি একজন হলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আবদুল কাদের সিদ্দিকীর মেয়ে কুঁড়ি সিদ্দিকী। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া নারী প্রার্থীরা হলেন: গোপালগঞ্জ-৩ শেখ হাসিনা, রংপুর-৬ শিরীন শারমিন চৌধুরী, শেরপুর-২ মতিয়া চৌধুরী, ফরিদপুর-২ সাজেদা চৌধুরী, চাঁদপুর-৩ দীপু মনি, ঢাকা-১৮ সাহারা খাতুন, গাজীপুর-৫ মেহের আফরোজ চুমকি, গাজীপুর-৪ সিমিন হোসেন রিমি, মানিকগঞ্জ-২ মমতাজ বেগম, মুন্সিগঞ্জ-২ সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, খু
প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট পেল ইথিওপিয়া

প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট পেল ইথিওপিয়া

প্রাইম আন্তর্জাতিক : প্রথমবারের মত নারী প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করেছে ইথিওপিয়া। বৃহস্পতিবার পেশাদার কূটনীতিক শাহলি-ওয়ার্ক জিওদি আইনপ্রণেতাদের সর্বসম্মত ভোটে নির্বাচিত হন। তিনি মুলাতু তেশমের স্থলাভিষিক্ত হলেন। শাহলি-ওয়ার্ক ষাটের দশকের শেষ দিকে ফ্রান্স, জিবোতি, সেনেগালে ইথিওপিয়ার দূত হিসেবে কাজ করেন। প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার আগে তিনি জাতিসংঘে আফ্রিকান ইউনিয়নের শীর্ষ কর্মকর্তা ছিলেন। ইংরেজী, ফরাসী ও আমহারিক ভাষায় তার বিশেষ দক্ষতা রয়েছে। ইথিওপিয়ায় প্রধানমন্ত্রী রাজনৈতিক ক্ষমতা পরিচালনা করেন। প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা মূলত উৎসব ও অনুষ্ঠানে যোগদানের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। দেশটির প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ গত সপ্তাহে ২০ সদস্য বিশিষ্ট একটি ছোট মন্ত্রিসভা গঠন করেন। এ মন্ত্রীসভার অর্ধেকই নারী।
উন্নত রাষ্ট্রের স্বপ্ন পূরণে প্রান্তিক নারীরাও ভূমিকা রাখতে পারে

উন্নত রাষ্ট্রের স্বপ্ন পূরণে প্রান্তিক নারীরাও ভূমিকা রাখতে পারে

প্রাইম ডেস্ক : অভাবের সংসার, নিত্য ঝগড়া লেগেই থাকে। দিনমজুর স্বামীর অল্প আয়ের কারণে দুই মেয়েরই লেখাপড়া বন্ধ। চলে না সংসারের চাকাও। ধারদেনা করে সংসার চালাতে চালাতে অবশেষে নিজেকেই হাল ধরতে হয়েছে। টাঙ্গাইলের প্রত্যন্ত অঞ্চল কালিয়ার শ্রমজীবী নারী সুফিয়া বেগম অবলীলায় বলে যাচ্ছিলেন নিজের সংগ্রামী জীবনের কথা। দারিদ্র্যের কশাঘাত হতে মুক্তি পেতে যিনি বিভিন্ন বেসরকারী সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে এখন কিছুটা স্বস্তিতেই দিন পার করছেন। জীবন সংগ্রামে ঘুরে দাঁড়াতে পেরে চোখের কোণে আনন্দ অশ্রু ছলছল করে ওঠে। একই ইউনিয়নের বাসিন্দা নুর বানু, মরিয়ম, ইতি আক্তারের প্রতিদিনের জীবনের চিত্রও একই ধরনের। নিত্য দারিদ্র্যের চাপে অবশেষে সংসারের হাল ধরতে হয়েছে। বাড়তি আয়ের পথ তৈরি করতে হয়েছে। এক্ষেত্রে কেউ ঋণ নিয়ে বাড়তি আয়ের পথ তৈরি করেছেন, কেউ আবার নিজের জমিতে নানা ধরনের সবজি আবাদ করে দারিদ্র্য দূর করার সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। প্র
নারীর ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রীর অবদান

নারীর ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রীর অবদান

নিজস্ব প্রতিবেদক : নারীর ক্ষমতায়ন ও উন্নয়ন ছাড়া দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন সম্ভব নয়- এ গভীর উপলব্ধি থেকেই বর্তমান সরকার নারী শিক্ষার বিস্তার ও নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠাসহ নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ, কর্মক্ষেত্রে অবাধ প্রবেশ ও নীতি নির্ধারণে নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে বহুমুখী পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে। সরকারের গত ৯ বছরের নিরন্তর প্রচেষ্টায় বর্তমানে দেশে নারী শিক্ষার হার ৫০ দশমিক ৫৪ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। বর্তমানে নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে ১৫৫টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৭ম। নারী-পুরুষ সমতায় দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশ ১ম স্থানে রয়েছে। তৃণমূল থেকে উচ্চতর অফিস কক্ষ সব খানেই প্রতিনিয়ত নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করছে বাংলার আজকের নারী। নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ যে বিশ্বাসী তা আবারও প্রমাণিত হলো। নারীদের রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের সরকার বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে। ১৯৭৩
নারী ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত

নারী ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত

প্রাইম ডেস্ক : ‘বিশ্বে যা কিছু মহান সৃষ্টি চির কল্যাণকর, অর্ধেক তার করিয়াছে নারী অর্ধেক তার নর’- জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম নারী ও পুরুষকে এভাবেই দেখেছেন। তবে বাংলাদেশের কর্মসংস্থানে বাংলাদেশের নারীরা কবির প্রত্যাশার চেয়ে বেশি করে ফেলেছেন। একদিন নিজেরাই ছিলেন অসহায়, অন্যের বোঝা। আর আজ তারাই স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি আত্মপ্রকাশ করেছেন উদ্যোক্তা হিসেবে। অন্যের কর্মসংস্থান তৈরি করেছেন। পরিবার ও সমাজে সম্মানিত নারী হিসেবে মাথা উঁচু করে বেঁচে থাকছেন। নারী ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ বর্তমানে অনন্য পর্যায়ে অবস্থান করছে। প্রধানমন্ত্রী, বিরোধী নেত্রী, জাতীয় সংসদের স্পিকার থেকে শুরু করে গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পদে নারী। দিন দিন কর্মক্ষেত্রে দেশের নারীদের অবদান লক্ষণীয় মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। কর্মসংস্থানের সংখ্যাগত দিক থেকে নারীর অংশগ্রহণ পুরুষদের তুলনায় বাড়ছে চার গুণেরও বেশি। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ‍ব্যুরোর হি
সিআইএর প্রথম নারী পরিচালক জিনা

সিআইএর প্রথম নারী পরিচালক জিনা

প্রাইম ডেস্ক : প্রথম নারী হিসেবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) পরিচালক হিসেবে এই প্রথম একজন নারীকে বেছে নিল মার্কিন সিনেট। তার বিরুদ্ধে ৯/১১ এর সময় বিতর্কিত নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে। বৃহস্পতিবার দেশটির সিনেট ডোলান্ড ট্রাম্প মনোনীত এই প্রার্থীকে অনুমোদন দেয়। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ৫৪-৪৫ ভোটে জিনা হ্যাসপেলকে নিশ্চিত করেছেন সিনেট সদস্যরা। যদিও নিউইয়র্কের টুইন টাওয়ারে হামলা-পরবর্তী সময়ে জিজ্ঞাসাবাদ কর্মসূচিতে তাঁর ভূমিকা বিতর্কের জন্ম দিয়েছিল। সম্প্রতি সিআইএপ্রধানের দায়িত্ব পালতরত অবস্থায় মাইক পম্পেও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হলে পদটি খালি হয়। রিপাবলিকান সিনেটর জন ম্যাককেইন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এ মনোনয়নের বিরোধিতা করে আগেই বক্তব্য দিয়েছিলেন। ভোটে বিরোধী ডেমোক্রেটিক দলের ছয় সিনেটর দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে জিনার পক্ষে ভোট দিয়েছেন। এদের মধ্যে ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্
কেন পরচর্চায় বেশি মেতে ওঠেন মহিলারা?

কেন পরচর্চায় বেশি মেতে ওঠেন মহিলারা?

প্রাইম ডেস্ক : পরচর্চায় নাকি মহিলাদের জুড়ি মেলা ভার। পুরুষরা যে গসিপে মেতে ওঠেন না, তা নয়। কিন্তু মহিলারা তুলনায় বেশি। সে কথা তাঁরা নিজেরাও অস্বীকার করেন না। কিন্তু প্রশ্ন হল, কেন গসিপে মেতে উঠতে ভালবাসেন মহিলারা? সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায় উঠে এল সে উত্তর। তা কেন পরচর্চায় মনযোগী হন মহিলারা? এ আসলে নেহাতই সময় নষ্ট নয়, বরং রীতিমতো একটি কৌশল। কোনও পুরুষ সঙ্গীর প্রতি যদি অন্য কোনও মহিলা মনযোগী হয়ে ওঠে, তবে সেই শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বীকে পিছনে ফলতেই এই কৌশল নেন মহিলারা। কানাডার এক বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এ ব্যাপারে সমীক্ষা করেন। এভলিউশনারি সাইকোলজিক্যাল সায়েন্সের জার্নালে এ ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার পর এক অভিনব দিগন্ত খোলে। এই সমীক্ষা জানাচ্ছে, পরচর্চা নেহাতই স্বভাবের দোষ নয়। বরং এমন এক সামাজিক দক্ষতা যা চর্চার মাধ্যমে বাড়িয়ে তুলতে হয়। মহিলারা তা করেন। সেইসঙ্গে ইন্টারস