শিক্ষাঙ্গন

উচ্চশিক্ষার প্রসারে সরকারের ভূমিকা

উচ্চশিক্ষার প্রসারে সরকারের ভূমিকা

প্রাইম ডেস্ক : ২০০৯ সালের ৬ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনার শপথের পর থেকে এ পর্যন্ত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পরিচালনা খাতে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার কোটি টাকা ও উন্নয়ন খাতে প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন খাতের শতভাগ সরকারকেই বহন করতে হচ্ছে, বরাদ্দের বেশিরভাগ ব্যয় হয় সাড়ে এগার হাজার শিক্ষক এবং ১৬ হাজার কর্মকর্তা ও ১৮ হাজারের ওপর কর্মচারীর বেতন-ভাতা দিতে।পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে বর্তমান সরকারের সাত বছরে ব্যাপক গতি সঞ্চার হয়েছে। দেশে বর্তমানে শতাধিক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। ২০১৬ সালের শুরুতে অনেকগুলো আবেদন থেকে নতুন আরো ৯টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উচ্চ শিক্ষার প্রসার ও বিস্তারে ভূমিকা রাখবে। আইন প্রণয়ন থেকে শুরু করে এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান উন্নয়নে সচে
সাইফুর’স মাওনা শাখার কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও বিতর্ক প্রতিযোগীতা

সাইফুর’স মাওনা শাখার কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও বিতর্ক প্রতিযোগীতা

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার প্রাণকেন্দ্র মাওনা চৌরাস্তা বেগম আয়েশা অডিটরিয়ামে আজ ২২ জুন শুক্রবার দুপুরে সাইফুর’স মাওনা শাখা কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও ইংরেজী বিতর্ক প্রতিযোগীতার এ আয়োজন করে। সাইফুর’স মাওনা শাখার পরিচালক নুরে আলম সিদ্দিকি’র সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আব্দুল আলীম , বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন , পিয়ার আলী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ’র  বাংলা বিভাগীয় প্রধান আহমাদুল কবীর (খোকন), দৈনিক প্রাইম পত্রিকার সম্পাদক, আব্দুল আজিজ, কলামিষ্ট ও রসায়নবিদ সাঈদ চৌধুরী, বিসিএস ভেটরনারি, তুহিন আল ফেরদৌস, এডভোকেট ওয়াসিম খলিল, ডাঃ আয়েশা সিদ্দিকি, শিশু সাহিত্যিক মিসকাত রাসেল, খন্দকার আনোয়ার, শ্রীপুর ইউথ ফোরামের সভাপতি সাহিদা আক্তার স্বর্ণা প্রমূখ।
মেয়েদের পড়াশোনা কতটা অবৈতনিক!

মেয়েদের পড়াশোনা কতটা অবৈতনিক!

প্রাইম ডেস্ক : দেশের প্রাথমিক শিক্ষা সবার জন্য অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক হলেও এই সুবিধা সবাই পাচ্ছে না। এখনও প্রায় ৩০ লাখ শিক্ষার্থীকে টিউশন ফি দিয়েই প্রথম থেকে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত পড়তে হচ্ছে। এছাড়া মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক থেকে ডিগ্রি পর্যন্ত টিউশন ফি পরিশোধ করতে হচ্ছে অন্তত ৭০ ভাগ শিক্ষার্থীকে। এর বাইরে বিভিন্ন ধরণের শিক্ষা ব্যয় তো আছেই। বিভিন্ন খাতে সন্তানের শিক্ষা ব্যয় বাড়তে থাকায় বিপাকে আছেন অভিভাবকরা। তারা বলছেন, আয়ের এক তৃতীয়াংশই খরচ করতে হচ্ছে সন্তানদের পড়াশোনায়। তাছাড়া উপবৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে পড়ার কথা থাকলেও অনেক স্কুলে তারা সে সুযোগ পাচ্ছে না। অভিভাবকদের প্রশ্ন, ‘মাধ্যমিক পর্যন্ত মেয়েদের শিক্ষা অবৈতনিক’, ‘ডিগ্রি পর্যন্ত মেয়েদের পড়ার খরচ নেই’ সরকারের বিভিন্ন পর্যায় থেকে এমন বক্তব্য প্রচার করা হলেও এ কথা কতটা সত্য? সব মেয়ে বা ছেলে কী বিনাবেতনে পড়ার সুযোগ পায়?
প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশের সাফল্য

প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশের সাফল্য

প্রাইম ডেস্ক : শিক্ষাক্ষেত্রে বাংলাদেশের কাঙ্খিত উন্নয়ন অর্জিত হবেনা যদিনা প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়ন সম্ভব হয়। এ ধারণা থেকেই বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশের প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে জোর আরোপ করা হয়। বিগত ৯ বছরে দেশের প্রায় ৯৬ শতাংশ শিশুকে প্রাথমিক শিক্ষায় শিক্ষিত করার সাফল্য দেখিয়েছে বাংলাদেশ। নিরক্ষরতা দূরীকরণেও অর্জিত হয়েছে তাৎপর্যপূর্ণ সাফল্য। দশ বছর আগে  প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার্থী ভর্তির হার ছিল ৬১ শতাংশ। বর্তমানে সেখানে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের সংখ্যা শতভাগ। জাতিসংঘের অঙ্গ সংগঠন ইউনেস্কোর এডুকেশন ফর অল গ্লোবাল মনিটরিং কর্মসূচির আওতায় প্রণীত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, নিম্ন আয় সত্ত্বেও অল্প যে কয়েকটি দেশ জাতীয় বাজেটে শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছে, বাংলাদেশ সেসব দেশের একটি। প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করতে পারলে দেশের শিক্ষার অগ্রগতি আরও জোরদার হবে বলেও তারা উল্লেখ করেছে। ধনী-দরিদ্র নির্বিশেষে সবার জন্য
নীতিমালা চূড়ান্ত হলেই স্কুল এমপিওভুক্তি :শিক্ষামন্ত্রী

নীতিমালা চূড়ান্ত হলেই স্কুল এমপিওভুক্তি :শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জনবলকাঠামো ও এমপিও নীতিমালা’ চূড়ান্ত হলেই বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে সেলিনা বেগমের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ সময় আরও বলেন, ‘শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নের লক্ষে বর্তমান সরকার দায়িত্ব গ্রহণের পর ২০১০ সালে সারা দেশে এক হাজার ৬২৪টি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করে। ফলে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিপুলসংখ্যক শিক্ষক-কর্মচারীর কর্মসংস্থানসহ শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।’ অবশিষ্ট নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সুনির্দিষ্ট নীতিমালার ভিত্তিতে এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সে লক্ষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার আলোকে ‘বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জনবলকাঠামো ও এমপিও নীতিমালা প্রণয়ন করে প্রয়োজনীয় মতামত বা সম্মতির জন্য চলতি বছরের ১ জানুয়ারি অর্থ বিভাগ
উপবৃত্তির টাকা পাচ্ছে ৬ লাখ শিক্ষার্থী

উপবৃত্তির টাকা পাচ্ছে ৬ লাখ শিক্ষার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক  : উপবৃত্তির টাকা পাচ্ছে ৬ লাখ শিক্ষার্থী । উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ছয় লাখেরও বেশি শিক্ষার্থীকে  প্রথম ধাপের উপবৃত্তির টাকা হস্তান্তর করা হবে বলে উচ্চ মাধ্যমিক উপবৃত্তি প্রকল্প থেকে জানা গেছে। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সহজেই এ অর্থ উত্তোলন করতে পারবে শিক্ষার্থীরা। বিদ্যালয়ের ৪০ শতাংশ ছাত্রী ও ১০ শতাংশ ছাত্র এ উপবৃত্তির টাকা পাচ্ছে। দ্বিতীয় ধাপের টাকা দেয়া হবে আগামী ডিসেম্বরে। এ বছর মোট ছয় লাখ দুই হাজার শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তির আওতায় আনা হবে। সরকারের তহবিল থেকে এ বাবদ প্রায় ১৬২ কোটি ৫৪ লাখ টাকা ব্যয় ধার্য করা হয়েছে। সারাদেশে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া রোধে ও পরিবারের ওপর চাপ কমাতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে ২০১৪ সালে ‘উচ্চ মাধ্যমিক উপবৃত্তি প্রকল্প’ চালু হয়। এ প্রকল্পের মাধ্যমে গত কয়েক বছর ধরে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দেয়া হচ্ছে। ২০১৭ সালের জুলাইয়ে প্রকল্পের মেয়াদ উত্
প্রাথমিকে ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ, বিজ্ঞপ্তি জুনে

প্রাথমিকে ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ, বিজ্ঞপ্তি জুনে

নিজস্ব প্রতিবেদক  : সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১২ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নিয়োগসংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জুন মাসে প্রকাশ করা হবে বলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই) সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে। অধিদপ্তর জানায়, চলমান শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে ১০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। নতুন করে আরও ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে শূন্য পদ পূরণ করা হবে। নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে জুনের শেষে দিকে। প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প-৪ আওতাভুক্ত সরকারি রাজস্ব খাত থেকে এসব শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে বলে সূত্র জানায়। সম্প্রতি ডিপিই এক সভায় এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সভায় সভাপত্বিত করেন ডিপিইর মহাপরিচালক আবু হেনা মোস্তফা কামাল। অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. রমজান আলী বলেন, ২০১৪ সালের স্থগিত হওয়া ১০ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম চলছে। এ কার্যক্রম আগামী মে মাসের মধ্যে লিখিত ও
সরকারি হলো আরো ২৪ স্কুল

সরকারি হলো আরো ২৪ স্কুল

নিজস্ব প্রতিবেদক  : আরো ২৪টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়কে সরকারি করা হয়েছে। গতকাল সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, জাতীয়করণকৃত ২৪টি প্রতিষ্ঠানের কাউকে অন্য প্রতিষ্ঠানে বদলি করা যাবে না। সরকারি হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে সুনামগঞ্জের ছাতক বহুমুখী মডেল বিদ্যালয়, সিরাজগঞ্জের জামতৈল ধোপাকান্দি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়, রাজবাড়ীর পাংশা জর্জ পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, মুন্সীগঞ্জের গজাররিয়া পাইলট মডেল হাই স্কুল, ভোলার বোরহান উদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের সাবের মিয়া জসিমুদ্দীন (এস জে) মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, মেহেরপুরের গাংনী পাইলট মাধ্যমিক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নওগাঁর বদলগাছী মডেল পাইলট হাইস্কুল। নেত্রকোনার শালিদীঘা গোপাল গোপীনাথ উচ্চ বিদ্যালয়, নেত্রকোনার মদন উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর টি আমিন পাইলট উচ্
অনার্স পরীক্ষার ফরম পূরণ ২৩ মে শুরু

অনার্স পরীক্ষার ফরম পূরণ ২৩ মে শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক  : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের তৃতীয় বর্ষ অনার্স (বিশেষ) অনিয়মিত ও গ্রেড উন্নয়ন পরীক্ষার্থীদের অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ ২৩ মে থেকে শুরু হয়ে ২৪ জুন পর্যন্ত চলবে। ফরম পূরণসহ অন্যান্য বিস্তারিত তথ্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.edu.bd) এবং (www.nubd.info/honours) থেকে জানা যাবে। আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়। হাফেজ মাওলানা অলি উল্লাহর পরিচালনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
একাদশে ভর্তির আবেদন শুরু

একাদশে ভর্তির আবেদন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক  : একাদশে ভর্তিতে প্রথম পাঁচ ঘণ্টায় অনলাইন ও এসএমএসের মাধ্যমে ৪৭ হাজার ৮৭০টি আবেদন জমা পড়েছে। মোট ৩১ হাজার ২৫৯ জন আবেদনকারী এই আবেদন করেছেন বলে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে। আজ রবিবার বেলা ২টা থেকে অনলাইনে ভর্তি আবেদন গ্রহণ শুরু হয়। আগামী ২৪ মে পর্যন্ত আবেদন করতে পারবে শিক্ষার্থীরা। আজ বেলা ১২টায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে ভর্তি কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (কলেজ) ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে চেয়ারম্যান প্রফেসর মু. জিয়াউল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর এ কে এম ছায়েফ উল্লাহ, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সচিব শাহেদুল খবির চৌধুরীসহ বোর্ডের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। ‘একাদশ শ্রেণির ভর্তি নীতিমালা-২০১৮’ অনুযায়ী, আটটি সাধারণ বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ড থেকে ২০১