Day: জানুয়ারি ৯, ২০১৮

শাকিব-অপুর মধ্যে সমঝোতা করবে ডিএনসিসি

শাকিব-অপুর মধ্যে সমঝোতা করবে ডিএনসিসি

প্রাইম বিনোদন : তারকা দম্পতি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিবাহ বিচ্ছেদের বিষয়ে ‘ডিএনসিসির সমঝোতা বৈঠকে অংশ নেবেন অপু বিশ্বাস। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অপু নিজেই। তিনি বলেন, নোটিশ পেয়েছি। সেখানে যাওয়াকে এখন আমার দায়িত্ব মনে করছি। ডিএনসিসির বৈঠকে আমি যাব। এতে শাকিব খান আসবেন, নাকি না আসবেন, তা জানি না।  যদি না আসেন তাহলে বিষয়টি নিয়ে কী করা যায় তার বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেব। গত ২৪ ডিসেম্বর শাকিব ও অপুর কাছে শুনানিতে হাজির হওয়ার জন্য নোটিস পাঠানো হয়। ১৫ জানুয়ারি ডিএনসিসির অঞ্চল-৩ এর অফিসে তাদের তালাকের বিষয়টি নিয়ে শুনানি হবে। এদিকে সিনেমার কাজে টানা সিডিউল নিয়ে বিদেশে ব্যস্ত আছেন শাকিব। বর্তমানে তিনি ব্যাংকক রয়েছেন। সেখানে বুবলীর সঙ্গে উত্তম আকাশের ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া’ ও মিমের সঙ্গে ‘আমি নেতা হবো’র গানের চিত্রায়ণের কাজ করছেন। জানা গেছে  দুটি সিনেমার কাজ শেষ করতে জানুয়ারি মাস প্রা
মাদক পরীক্ষায় ব্যর্থ হওয়ায় নিষিদ্ধ ভারতের ইউসুফ পাঠান

মাদক পরীক্ষায় ব্যর্থ হওয়ায় নিষিদ্ধ ভারতের ইউসুফ পাঠান

প্রাইম খেলাধুলা  : নিষিদ্ধ শক্তিবর্ধক গ্রহণ করায় ভারত আজ সাবেক অলারাউন্ডার ইউসুফ পাঠানকে পাঁচ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করেছে। সর্বশেষ ২০১২ সালে ভারতের হয়ে খেলা ৩৫ বছর বয়সী এ খেলোয়াড় আগেই শাস্তি ভোগ করায় নিষিদ্ধাদেশের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ১৪ জানুযারি। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) জানিয়েছে, গত বছর ঘরোয়া টি-২০ প্রতিযোগতিায় আক্রমণাত্মক এ ব্যাটসম্যানকে নিয়মিত পরীক্ষা করা হতো এবং তার নমুনায় নিষিদ্ধ টারবুটালিনের প্রমাণ পাওয়া গেছে। তবে পাঠান জানিয়েছেন নিজের শরীর ঠিক রাখতে তিনি কফ সিরাপ খেতেন এবং ‘পারফরমেন্স বর্ধক মাদক হিসেবে নয়’। তার এমন ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছে বিসিসিআই। একই সঙ্গে একজন স্পিন বোলার পাঠান ভারতের হয়ে ৫৭ ওয়ানডে ২২টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন এবং ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে(আইএিল) নিয়মিত খেলে আসছেন। ২০১৪ আসরে তিনি আইপিএল ইতিহাসে দ্রুততম ১৫ বলে হাফ সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। ভারতীয় ক্রিকেটা
‘জিরো’ দিয়েই আবার আনুশকার শুরু

‘জিরো’ দিয়েই আবার আনুশকার শুরু

প্রাইম বিনোদন : শুটিং ফ্লোরে গিয়ে রুমের দরজা খুলে ঢুকতেই এমনটা দেখবেন, আশা করেননি আনুশকা। তাই বেশ অবাক হয়ে নিজেই ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন সেই অভিজ্ঞতা। চার দিক ফুলে ভরা। তার মাঝে বিরাট এবং তার নানা মুহূর্তের ছবি সাজিয়ে রাখা। আসলে, এই পুরো প্ল্যানটাই শাহরুখ খান ও তার টিমের। নববধূকে শুটিং সেটে এমন সারপ্রাইজ দেয়ার জন্য আগে থেকে পরিকল্পনা করে রাখা হয়েছিল। আয়নার সামনে মেপ-আপ নিতে বসে হাসিতে ফেটে পড়ছেন আনুশকা। নায়িকা নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন সেই ছবি। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘‘... জিরোয় ফিরলাম। ফিল্ম এবং সহকর্মীদের কাছে ফিরে দারুণ লাগছে...’’। স্বপ্নের বিয়ে-জমকালো রিসেপশন এবং হানিমুন পর্ব সেরে বিরাট কোহালির সঙ্গে ঝটিকা সফরে গিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকাতেও। যদিও প্রথম টেস্টের একটা দিনই গ্যালারিতে হাজির ছিলেন আনুশকা। ফিরেই যোগ দিয়েছেন তার আগামী ছবি আনন্দ এল রাই-এর ‘জিরো’ ছবির শুটিংয়ে
মাদ্রাসায় মোদির ছবি নিয়ে ফতোয়া

মাদ্রাসায় মোদির ছবি নিয়ে ফতোয়া

প্রাইম আন্তর্জাতিক  : মাদ্রাসায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি লাগানো শরিয়া আইন পরিপন্থী বলে ফতোয়া দিয়েছেন দেশটির  দারুল উলুম দেওবন্দ মাদ্রাসার চেয়ারম্যান মুফতি আরশাদ ফারুকি। সম্প্রতি ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্য সরকার ভারতের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মোদির ছবি লাগানোর নির্দেশ দেয়।  এর বিরোধিতা করে ফারুকি বলেন,এর আগে কখনোই মাদ্রাসাগুলোতে প্রধানমন্ত্রীর ছবি লাগানোর নিয়ম ছিল না।  তাহলে এখন এমন নিয়মের কারণ কী? ফারুকি আরও বলেন যে, সরকারের এমন নির্দেশনা দেওয়ার আগে ভাবা উচিত ছিল এটা শরিয়া আইনবিরোধী। এ ধরনের নির্দেশনা ধর্মীয় অনুভূতিকে আঘাত করে। গত শুক্রবার উত্তরাখণ্ডের মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড সিদ্ধান্ত নেয়, সরকারের এই নির্দেশিকা মেনে নেওয়া হবে না।  ইসলাম ধর্মানুযায়ী মাদ্রাসাগুলোর ভেতরে কোনো ছবি লাগানো যায় না। তাই মোদির ছবি লাগানোর কোনো প্রশ্নই আসেনা। এর আগে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া এক সরকা
প্রযুক্তিবিষয়ক শিক্ষার মাধ্যমে মানবসম্পদ গড়ে তুলতে হবে :শিক্ষামন্ত্রী

প্রযুক্তিবিষয়ক শিক্ষার মাধ্যমে মানবসম্পদ গড়ে তুলতে হবে :শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক  : শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, নতুন প্রজন্মকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে দক্ষ করে তুলতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভুমিকা গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে জ্ঞানচর্চা ও নতুন জ্ঞান সৃষ্টির মাধ্যমে সমাজে ইতিবাচক পরিবর্তনে ভূমিকা রাখতে হবে। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আহ্ছানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজির ১০ম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের প্রতিনিধি হিসেবে সভাপতির বক্তৃতায় একথা বলেন। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক শিক্ষাদানের মাধ্যমে আমাদের মানবসম্পদকে সমৃদ্ধ করতে হবে। বিশ্বায়নের এই যুগে দ্রুত পরিবর্তনশীল প্রযুক্তির সঙ্গে সমানতালে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ে এটি অপরিহার্য।
একনেকে ১৩ প্রকল্পের অনুমোদন

একনেকে ১৩ প্রকল্পের অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক  : নির্বাচিত বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়সমূহের উর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণসহ অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) মোট ১৩টি প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে ১২ হাজার ৪১৫ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। এর মধ্যে বাংলাদেশ সরকার অর্থায়ন করবে ১১ হাজার ৮২২ কোটি ৯২ লাখ টাকা এবং প্রকল্প সাহায্য হিসেবে পাওয়া যাবে ৫৯২ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলানগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় এসব প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। সভাশেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল প্রকল্প সম্পর্কে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দেশে বর্তমানে ৩২৭টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ১৯ হাজার ৩৫৭টি বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় আছে। এসব বিদ্যালয়ে মোট ৯১ লাখ ৬০ হাজার ৩৬৫ শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে। ন
খালেদা জিয়া ছাড়া নির্বাচনে যাবেনা ২০ দল

খালেদা জিয়া ছাড়া নির্বাচনে যাবেনা ২০ দল

নিজস্ব প্রতিবেদক  : বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাবেনা বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট। জোটের বন্ধন আরো অটুট করা হবে। সরকার নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা না করলে আন্দোলনের মাধ্যমে দাবি আদায় করতে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নামবে তারা। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে গতকাল রাতে ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়াও বৈঠকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে একক প্রার্থী দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বৈঠকে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি) ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ, জামায়াতে ইসলামীর মাওলানা আবদুল হালিম, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) অধ্যাপিকা রেহানা প্রধান, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) মোস্তফা জামাল হায়দার, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির ড. রেদ
মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ১ লাখ ৮০ হাজার ৫১৩ জন :মোজাম্মেল হক

মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ১ লাখ ৮০ হাজার ৫১৩ জন :মোজাম্মেল হক

নিজস্ব প্রতিবেদক  : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, সর্বশেষ সংশোধিত তালিকা অনুযায়ী বেসামরিক মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা এক লাখ ৮০ হাজার ৫১৩ জন। আজ মঙ্গলবার সংসদে সরকারি দলের সদস্য সেলিনা জাহান লিটার এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এই তথ্য জানান। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে উপজেলা ভিত্তিক সকল উপজেলার গেজেটভুক্ত বেসামরিক মুক্তিযোদ্ধার নামের তালিকা এ মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে । মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠার আগে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি স্বাক্ষরিত সনদ ইস্যু করা হয়েছিল। ভবিষ্যতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি স্বাক্ষরিত সনদ ইস্যু করে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। জাতীয় পার্টির সদস্য নুরুল ইসলাম মিলনের অপর এক প্রশ্নের জবাবে মোজাম্মেল হক বলেন, ৪৭০টি উপজেলা, জেলা, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বা
জাতীয় পার্টি খেলনা নয় : এরশাদ

জাতীয় পার্টি খেলনা নয় : এরশাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক  : জাতীয় পার্টি কোনো খেলনা নয় বলে মন্তব্য করেছেন দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। আজ মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে দলটির যৌথসভায় এ কথা বলেন তিনি। এরশাদ বলেন, ‘জাতীয় পার্টি কোনো খেলনা না।  আমাদের ছাড়া আগামী নির্বাচনে কোনও দল ক্ষমতায় যেতে পারবে না।’ এরশাদ জানান, ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার ক্ষমতা জাতীয় পার্টির আছে। এটাই তার জীবনের শেষ নির্বাচন। মরার আগে জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় তিনি ক্ষমতায় রেখে যেতে চান। সভায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘বর্তমানে দেশের অবস্থা ভালো নয়। আমার ধারণা, সামনে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কাছে এ দেশের মানুষ নিরাপদ নয়। শুধু দেশের মানুষ নয়, এরা একদল আরেক দলের কাছে নিরাপদ নয়। আমাদের কাছে বিএনপি, আওয়ামী লীগ ও দেশের মানুষ সবাই নিরাপদ।’ এরশাদ আরও বলেন, ‘আমাদের দলের আরও সাং
গফরগাঁওয়ের শতাধিক পরিবারে দুঃখ বানুয়াদী বিল

গফরগাঁওয়ের শতাধিক পরিবারে দুঃখ বানুয়াদী বিল

আব্দুল আজিজ : ময়মনসিংহ্ জেলার গফরগাঁও উপজেলার পাইথল ইউনিয়নের বানুয়াদী টেকের কয়েকশ কৃষকের দুঃখ এখন বানুয়াদি বিল। এই বিলের বোরো ধানের উপর নির্ভরশীল পরিবার গুলোর চোখে মুখে এখন শুধুই অন্ধকার। চলতি বোরো মৌসুমে এই বিলের পনি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় জলাবদ্ধতায় এখন বিলের জমি ধান চাষের অনুপযোগি হয়ে পরেছে। স্থানীয়রা জানান, এই বানুয়াদী বিলে কয়েকশ কৃষকের ৩০ একর জমি রয়েছে। হতদরিদ্র এই কৃষক পরিবারে একমাত্র ভরসা বোরো ধান চাষ। কিন্তু দীর্ঘ দিন যাবৎ বিলটি জলাবদ্ধতার কবলে পরায় এখনো বোরো চাষের প্রস্তুতি শুরু করতে পারছেন না তারা। বানুয়াদি গ্রামের কৃষক হাজ্বী নাজিম উদ্দিন জানান, ইতিপূর্বে এই বিলের পনি নিষ্কাশন হয়ে থাকলেও বর্তমানে গয়েশপুর কান্দি পাড়া সড়ক নির্মাণের সময় পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না রাখাই স্থায়ী জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে । বিল মাখল গ্রামের আহাম্মাদ মন্ডল জানান, এই বিলের ধান চাষের উপর আমরা ন