Day: জুলাই ৮, ২০১৯

প্রত্যাশার চেয়ে অর্জন বেশি প্রধানমন্ত্রীর চীন সফরে

প্রত্যাশার চেয়ে অর্জন বেশি প্রধানমন্ত্রীর চীন সফরে

প্রাইম ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবারের চীন সফরে প্রত্যাশার চেয়েও অর্জন অনেক বেশি। চীন সফরের সবচেয়ে বড় অর্জনই হচ্ছে দীর্ঘদিনের রোহিঙ্গা সঙ্কট ‘দ্বিপক্ষীয় সমাধানে’ বিশ্বের তৃতীয় পরাশক্তি এ দেশটির পূর্ণ সহযোগিতার আশ্বাস আদায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফল কূটনৈতিক তৎপরতায় বিশ্বের বড় বড় সকল দেশ ও জোটের নিরঙ্কুশ সমর্থন আদায়ের পর এবার চীনের কাছ থেকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহযোগিতার আশ্বাস আদায়ের পাশাপাশি দেশটির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা বৃদ্ধির একটি বড় সুযোগ তৈরি করেছে।  বিদ্যুত-পানিসম্পদ-পর্যটনসহ নয়টি খাতে বাংলাদেশে বিপুল পরিমাণ বিনিয়োগের আশ্বাস এবং সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করতেও কূটনৈতিক সফলতা দেখিয়ে শনিবার দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। টানা তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের পর চীনে প্রথম পাঁচ দিনের সরকারী সফরে অর্জিত সাফল্যগুলো দেশবাসীর সামন
খাদ্য উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বিস্ময়

খাদ্য উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বিস্ময়

প্রাইম ডেস্ক : খাদ্য উৎপাদনে নীরব বিপ্লব বাংলাদেশকে বিশ্বমঞ্চে ঈর্ষণীয় পর্যায়ে উন্নীত করেছে। কৃষিজমি কমতে থাকা, জনসংখ্যা বৃদ্ধিসহ জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বন্যা, খরা, লবণাক্ততা ও বৈরী প্রকৃতিতেও খাদ্যশস্য উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উদাহরণ। জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) তথ্যানুযায়ী, সবজি ও মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে তৃতীয়। ধান ও আলু উৎপাদনে যথাক্রমে চতুর্থ ও সপ্তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। এছাড়া বন্যা, খরা, লবণাক্ততা ও দুর্যোগসহিষ্ণু শস্যের জাত উদ্ভাবনেও শীর্ষে বাংলাদেশের নাম। স্বাধীনতার পর থেকে বাংলাদেশে ধানের উৎপাদন তিন গুণেরও বেশি, গম দ্বিগুণ, সবজি পাঁচ গুণ এবং ভুট্টার উৎপাদন বেড়েছে দশ গুণ। দুই যুগ আগেও দেশের অর্ধেক এলাকায় একটি ও বাকি এলাকায় দুটি ফসল হতো। বর্তমানে দেশে বছরে গড়ে দুটি ফসল হচ্ছে। সরকারের যুগোপযোগী পরিকল্পনা, পরিশ্রমী কৃষক এবং মেধাবী কৃষিবিজ্ঞানী
বিএনপির বিরুদ্ধে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’র অভিযোগ বাম জোটের!

বিএনপির বিরুদ্ধে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’র অভিযোগ বাম জোটের!

প্রাইম ডেস্ক : গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাম গণতান্ত্রিক জোটের ডাকা অর্ধদিবস হরতালে বিএনপি নৈতিক সমর্থন জানিয়ে কর্মসূচিতে সরাসরি উপস্থিত না থাকলেও কর্মী দিয়ে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছিলো। কিন্তু সে আশ্বাস না রাখার অভিযোগ তুলেছেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতারা। তারা বলছেন, শুক্রবার (৫ জুলাই) বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে বাম জোটের ডাকা হরতালে গণমাধ্যমকে নিজেদের সমর্থনের কথা জানান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। পরে বিএনপির তরফ থেকে জোটের নির্দিষ্ট কয়েকজন সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তখন বিএনপির পক্ষ থেকে হরতালে সমর্থন দিয়ে কিছু কর্মী দেয়ার আশ্বাস দেয়া হয় বামজোটকে। কিন্তু সেই কথা রাখেনি দলটি। এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাম জোটের একজন নেতা বলেন, বিএনপিসহ বেশকিছু রাজনৈতিক দল বাম জোটের হরতালের আহ্বানে তাদের সমর্থন জানায়। তাদের মধ্যে আগ বাড়িয়ে বিএ
মিথ্যাচার ও গুজব ছড়ানো বিএনপির নতুন রাজনৈতিক কৌশল, বলছেন বিশেষজ্ঞরা!

মিথ্যাচার ও গুজব ছড়ানো বিএনপির নতুন রাজনৈতিক কৌশল, বলছেন বিশেষজ্ঞরা!

প্রাইম ডেস্ক : রাজপথের রাজনীতি বাদ দিয়ে সরকারের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে প্রতিনিয়ত মিথ্যাচার করছে বিএনপি। আন্দোলন-সংগ্রামকে বাদ দিয়ে মিথ্যাচার, গুজব ছড়ানো ও সরকারবিরোধী উসকানি দেয়া এখন বিএনপির মূল রাজনীতিতে পরিণত হয়েছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। জনগণের কথা বলা বাদ দিয়ে বিএনপি শুধু নিজেদের অপ্রাপ্তির কথা প্রচার করছে বলেও মনে করছেন তারা। বিএনপির ক্রমাগত মিথ্যাচারে বিরক্তি প্রকাশ করে রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন অধ্যাপক বলেন, সরকারের ঘাড়ে দোষ চাপানো বিএনপির পুরনো অভ্যাস। রাজপথের আন্দোলন গড়তে ব্যর্থ দলটির নেতারা এখন সরকারের বিরুদ্ধে সঙ্গবদ্ধভাবে সাজানো মিথ্যাচার ছড়ানোর মিশনে নেমেছেন। সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের টার্গেট করে লন্ডনের প্রেসক্রিপশনে উদ্ভট, বানোয়াট ও কুরুচিপূর্ণ গুজব ছড়াচ্ছে দলটি। তিনি আরো বলেন, বিএনপির আন্দোলন এখন মিথ্যা ছড়ান
ইউপি নির্বাচনে চাপ সামলাতে স্বতন্ত্র প্রার্থী দেয়ার সিদ্ধান্ত  বিএনপির, আবারও ক্ষোভ!

ইউপি নির্বাচনে চাপ সামলাতে স্বতন্ত্র প্রার্থী দেয়ার সিদ্ধান্ত বিএনপির, আবারও ক্ষোভ!

প্রাইম ডেস্ক : তৃণমূলের চাপ উপেক্ষা করে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ থেকে বিরত থাকা বিএনপি এবার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে কৌশল পাল্টিয়েছে। জানা গেছে, দলীয় প্রতীকের বাইরে ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। ‘ধানের শীষ’ প্রতীক না নিয়ে দলটির নেতাদের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার পরামর্শ দিয়েছে দলটি। দলীয় প্রতীকের বাইরে তৃণমূল নেতাদের স্বতন্ত্র প্রতীকে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন বিষয়ে দলের অবস্থান জানতে চাইলে দলীয় প্রতীকের বাইরে স্বতন্ত্র নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে। পার্টির প্রতীক দিয়ে লন্ডন থেকে স্থানীয় নির্বাচন না করার নির্দেশনা এসেছে। বিষয়টি তৃণমূলে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। এটি কৌশলগত সিদ্ধান্ত। সুতরাং এটি নিয়ে কোনো মত
শ্রীপুরে কঠোর পরিশ্রমেও ঘুরেনি কাঠ শ্রমিকদের ভাগ্যের চাকা

শ্রীপুরে কঠোর পরিশ্রমেও ঘুরেনি কাঠ শ্রমিকদের ভাগ্যের চাকা

আ. আজিজ : “পরিশ্রমে ধন আনে, পুণ্যে আনে সুখ। আলস্যে দারিদ্রতা আনে, পাপে আনে দুঃখ”। একজন মানুষকে কর্মক্ষম করে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে জনপ্রিয় এই খনার বচনটি নানাভাবে অর্থবহন করে আসলেও কিছু কিছু জায়গায় এর সাথে রয়েছে বাস্তবতার অনেক অমিল। এরকম দৃষ্টান্তের দেখা মিলল কাঠ শ্রমিকদের পেশায়। নানা পেশার ভীরে কাঠ বহনকারী এই শ্রমিকরা যুগের পর যুগ ধরে তিল তিল করে নিজের জীবনটাই শ্রমের মাধ্যমে বিকিয়ে দিয়েও তারা ভাগ্যের চাকা ঘুরাতে পারেনি। আজীবন দুঃখ কষ্টকে সঙ্গী করেই তারা এখন প্রায় পৌছে গেছেন জীবনের শেষাংশে। গাজীপুরের শ্রীপুরের শীতলক্ষ্যা ঘেঁষা বরমী বাজারে এমন কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে জীবন ও জীবিকা চালানো শ্রমিকদের মুখে এখন শুধুই জীবনে না পাওয়ার বেদনার গান। চেহারায় মলিনতা,কঙ্কালসার দেহের এই মানবদের প্রত্যেকের বয়স এখন প্রায় সত্তোরের কাছাকাছি। এসব শ্রমিকরা কঠোর পরিশ্রমকে পুঁজি করে বিশালাকার বৃক্ষের ভার বহন করলেও
গফরগাঁওয়ে ঝুঁকিপূর্ণ রেলসেতু, দুর্ঘটনার আশংকা

গফরগাঁওয়ে ঝুঁকিপূর্ণ রেলসেতু, দুর্ঘটনার আশংকা

আ. আজিজ : গফরগাঁওয়ে মশাখালী-কাওরাইদ স্টেশন। এর ভেতর দিয়ে চলে গেছে শীলা নদী। নদীটির ওপর ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথের একটি রেলসেতু। সেতু পার হতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে হতাহতের মতো ঘটনাও অনেকবার ঘটেছে। তবু থেমে নেই মানুষের পারাপার। প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শীলা নদীর রেলসেতু দিয়ে পারাপার হচ্ছে স্কুল, মাদ্রাসার ৫ শতাধিক কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ হাজার হাজার মানুষ। কেননা, বিকল্প কোনো রাস্তা না থাকা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার করতে হচ্ছে তাদের। ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথের এই রেলব্রিজটিও বয়সের ভারে নড়বড়ে। ব্রিটিশ আমলে ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথ স্থাপনের সময় মশাখালী ও কাওরাইদ রেলওয়ে স্টেশনের মধ্যবর্তী শীলা নদীর ওপর এই রেলসেতু নির্মাণ করা হয়। রেল লাইনের পাশে পাকা সড়ক থাকলেও নদী পাড় হওয়ার জন্য কোনো খেয়া নৌকা বা সড়ক ব্রিজ নেই। ফলে দুই পারের হাজারো মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রেলব্রিজের ওপর দিয়ে পার হন। তবে এরশাদ সরকারের

সুইট সিক্সটিন নাটকে মুক্তা

বিনোদন প্রতিবেদকরেশমা আক্তার মুক্তা। এ সময়ের আলোচিত এক মডেল অভিনেত্রীর নাম। ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল বড় হয়ে একজন জনপ্রিয় নৃত্যশিল্পী ও অভিনেত্রী হওয়ার। ধীরে ধীরে মুক্তার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। এরমধ্যে সবচে’ জনপ্রিয় হলো ‘জমজ’ নাটকে তিনি অভিনয় করে প্রচুর সুনাম অর্জন করেছেন। তারপর তাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। একে একে কিছু বিজ্ঞাপনের কাজ করেন যেমন- বেঙ্গল নারী দিবসের উপর বিজ্ঞাপন ও এভিল ডানো দুধ। সম্প্রতি শুটিং শেষ করলেন রাহাত মাহমুদের পরিচালনায় ও সোস্যাল লাইট বিডির প্রযোজনায় ‘সুইট সিক্সটিন’ নাটকে। এটি খুব শিগগিরই বেসরকারি একটি চ্যানেলে প্রচার হবে। টেলিফিল্ম করেছেন- সুমন বিশ^াস পরিচালিত চ্যানেল আইয়ের নাটক ‘মাছ কই’। এরপর নাটক ‘শব্দের ছল’, ‘বিদেশ পাগলা’ ও ‘৩৮ দাগ’। মুক্তা বেশ কিছু শর্টফিল্মেও কাজ করেছেন যেমন: দায়িত্ব ২, অপরাধী, বাংলা হাসির ওয়েব সিরিজ, ভালোবাসা দিবসের ওয়েব সিরিজ মধুমতি ইত্যাদ
বিশ্বকাপে টাইগারদের অর্জন

বিশ্বকাপে টাইগারদের অর্জন

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের সঙ্গে অষ্টম ম্যাচটি খেলার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ মিশন শেষ হলো। টুর্নামেন্টের মাঝামাঝি পর্যন্ত সেরা চারে অন্তর্ভুক্তি তথা সেমিফাইনাল খেলার সম্ভাবনা জাগিয়ে রেখেছিল টাইগাররা। শেষদিকে পরপর কয়েকটি ম্যাচে আশানুরূপ পারফর্মেন্স না করতে পারায় পিছিয়ে পড়ে সপ্তম স্থানে চলে আসে এবং সেমিফাইনাল অধরাই থেকে যায়। সব কটি খেলা বিশ্লেষণ করলে আমরা বলতেই পারি যে, এবারের বিশ্বকাপে টাইগারদের অর্জন সামান্য নয়। দেশবাসীর প্রত্যাশা যদিও ছিল আরও বেশি; কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না টাইগাররা যে আটটি ম্যাচ খেলেছে সেই ম্যাচগুলোতে প্রতিপক্ষ দলগুলো বাংলাদেশকে সমীহের চোখেই দেখেছে। এটি টাইগারদের বৈশিষ্ট্যপূর্ণ অর্জন। এখন বিশ্বের কোন দলই বাংলাদেশের ক্রিকেট দলকে তুচ্ছ জ্ঞান করে না। তারা ভাল করেই জানে বাংলাদেশ যে কোন ম্যাচেই জ্বলে ওঠার ক্ষমতা রাখে। ভারতের মতো দলের বিরুদ্ধে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে গেছে
দুই মাসে বজ্রপাতে ১২৬ জনের মৃত্যু

দুই মাসে বজ্রপাতে ১২৬ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি বছর মে এবং জুন মাসে বজ্রপাতে সারাদেশে ১২৬ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এ দুই মাসে বজ্রাঘাতে আহত হয়েছেন ৫৩ জন। আজ শনিবার সেভ দ্য সোসাইটি এণ্ড থান্ডারস্টর্ম অ্যাওয়ারনেস ফোরাম নামের একটি সংগঠন এ তথ্য জানিয়েছে। সংগঠনটির হিসাব মতে এ দুই মাসে নিহতদের মধ্যে ২১ জন নারী, ৭ জন শিশু এবং ৯৮ জনই সবচেয়ে বেশি হতাহতের ঘটনা ঘটেছে কিশোরগঞ্জ জেলায়। এ জেলায় গত দুই মাসে বজ্রপাতে নিহত হয়েছে ১৬ জন। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক রাশিম মোল্লা বলেন, গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এই পরিসংখ্যান তৈরি করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, গত দুই মাসে বজ্রপাতে নিহতদের মধ্যে কিশোরগঞ্জে ১৬ জন, হবিগঞ্জে ৩জন, রাজশাহীতে ১০জন, চাপাইনবাবগঞ্জে ৯জন, পাবনায় ৬জন, দিনাজপুরে ৭জন, নীলফামারীতে ৪জন, জামালপুরে ৪জন, শেরপুরে ৪জন, নওগাঁয় ৬জন, সিরাজগঞ্জে ৫, নারায়ণগঞ্জে ৫জন, মৌলভীবাজারে ৩জন, খুলনায় ৪জন, সাতক্ষীরায়