Day: সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯

গাজীপুরে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে অবৈধ গ্যাস লাইনে অগ্নিকাণ্ড

গাজীপুরে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে অবৈধ গ্যাস লাইনে অগ্নিকাণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুর সদর উপজেলার ভাওয়াল মির্জাপুর কলেজের সীমানা প্রাচীর উপর দিয়ে চলে যাওয়া ৩৩ হাজার কেভি বিদ্যুতের লাইনের তার ছিঁড়ে অবৈধ গ্যাস লাইনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিটের কর্মীরা গিয়ে আগুন নেভান। মঙ্গলবার সকালে ওই অগ্নিকাণ্ডে কলেজ শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। তবে মঙ্গলবার বিকালেও একাধিক লিকেজ দিয়ে প্রচণ্ড বেগে গ্যাস বেরুচ্ছে। যে কোনো সময় আবার বড় রকমের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তা নিচে তিতাসের সরবরাহ লাইনের ছিদ্রপথে নির্গত গ্যাসে উপড় পড়ে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের সৃষ্টি হয়। ভাওয়াল মির্জাপুর কলেজের অধ্যক্ষ মো. এনামুল হক জানান, কলেজের পূর্ব পাশের সীমানা প্রাচীরের উপর দিয়ে গাজীপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির ৩৩ হাজার কেভির লাইন চলে গেছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে পাশে থাকা ট্রান্সফরমারে একটি বিকট শব্দে স্পাকিং হয়। এর প্রায় ১
জিম্বাবুয়েকে হারিয়েই ফাইনাল নিশ্চিত করতে চায় বাংলাদেশ

জিম্বাবুয়েকে হারিয়েই ফাইনাল নিশ্চিত করতে চায় বাংলাদেশ

প্রাইম খেলাধুলা : জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে বুধবারই ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফাইনাল নিশ্চিত করতে চায় স্বাগতিক বাংলাদেশ। বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে উভয় দলেরই এটি তৃতীয় ম্যাচ। প্রথম দুই ম্যাচের একটিতে বাংলাদেশ জিতলেও দুটিতেই হেরেছে জিম্বাবুয়ে। তাই এই ম্যাচে জিতলেই টুর্নামেন্টের ফাইনাল নিশ্চিত হবে বাংলাদেশের। অপরদিকে প্রথম দুই ম্যাচ জিতে ফাইনাল প্রায় নিশ্চিত করে রেখেছে আফগানরা। অপরদিকে ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখতে হলে এই ম্যাচে জয় ছাড়া বিকল্প নেই জিম্বাবুয়ের। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শুরু হবে ম্যাচটি। বাংলাদেশ এই ম্যাচে হেরে গেলেও ফাইনালে খেলার সুযোগ থাকবে সাকিবের দলের। তখন ফাইনাল খেলার সুযোগ তৈরি হবে জিম্বাবুয়েরও। সেক্ষেত্রে তাদের শেষ ম্যাচে আফগানদের হারাতে হবে। তখন তিন দলেরই জয় হবে দুটি করে। সেক্ষেত্রে পয়েন্ট টেবিলের উপরের দুটি দল খেলবে ফাইনালে। বাংলাদ
রাজহংস উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

রাজহংস উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রাইম ডেস্ক : বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিআইপি টার্মিনালে ফিতা কেটে নতুন এ বিমানটি উদ্বোধন করেন তিনি। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী, বিমান পরিচালনা পর্ষদ চেয়ারম্যান বিমান বাহিনীর সাবেক এয়ার মার্শাল ইনামুল বারী, সচিব মহিবুল হক, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সদ্য নিযুক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোকাব্বির হোসেন। বিমানের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ক্যাপ্টেন ফারহাত হাসান জামিল ও অন্যান্য উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা জলকামান স্যাল্যুট জানিয়ে বিমানবন্দর থেকে ড্রিমলাইনারটি গ্রহণ করেন। এর আগে, গত বছরের আগস্ট ও ডিসেম্বর মাসে প্রথম ও দ্বিতীয় ব
টানা ক্ষমতায় থাকার কারণেই সুফল পাচ্ছে জনগণ: প্রধানমন্ত্রী

টানা ক্ষমতায় থাকার কারণেই সুফল পাচ্ছে জনগণ: প্রধানমন্ত্রী

প্রাইম ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, একটানা ক্ষমতায় থাকার কারণেই দেশের উন্নয়ন হচ্ছে, সুফল পাচ্ছে জনগণ। মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের (এইচএসআইএ) ভিভিআইপি টারমাকে ফিতা কেটে নতুন উড়োজাহাজ ‘রাজহংস’ উদ্বোধন শেষে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে বিমানের বহরে যুক্ত হওয়া অত্যাধুনিক প্রযুক্তির চতুর্থ ও শেষ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধন শেষে অনুষ্ঠানে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসকে নিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, বিমানের যে অবস্থা ছিল সেটি আর বলার অপেক্ষা রাখে না। আমরা যখন বাহিরে যেতাম বা বিশেষ করে লন্ডনে বা আমেরিকায় যাওয়া হতো তখন বিমান ব্যবহার করতাম। তখন বিমানের যে ঝরঝরে অবস্থা ছিল, আগে প্লেনে উঠলে পানি পড়ত, টিস্যু দিয়ে পানি পড়া বন্ধ করা হতো, কোনো এন্টারটেইমেন্টের ব্যবস্থাই ছিল না। মাঝে মাঝে আমি ককপিটে যেতাম, কথা বলতাম।
বিশ্বে চা উৎপাদনে নবম বাংলাদেশ

বিশ্বে চা উৎপাদনে নবম বাংলাদেশ

প্রাইম ডেস্ক : বাংলাদেশের জন্য শুধু নয়, চামোদীদের জন্যও সুসংবাদ রয়েছে, চা উৎপাদনে বিশ্বে এখন নবম স্থানে বাংলাদেশ। উৎপাদন ক্ষেত্রে আবারও ঘুরে দাঁড়িয়েছে চা চাষ। একটানা কয়েক বছর ধরেই দশম অবস্থানে ছিল বাংলাদেশ। বিশ শতকের শেষে চা উৎপাদনে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল একাদশ স্থানে। আর ১৯৮৯ সালে ছিল দ্বাদশ স্থানে। বিদায়ী বছরে সারাদেশের ১৬৬টি বাগানের উৎপাদনের হিসাবে দেখা যায় উৎপাদন হয়েছে আট কোটি ২১ লাখ কেজি চা। এ হিসাবে চার হাজার ১০৫ কোটি কাপ চা (প্রতি কাপ ২ গ্রাম) হয়েছে দেশে। ২০১৭ সালে উৎপাদন হয়েছিল সাত কোটি ৮৯ লাখ কেজি। চা উৎপাদনে সর্বোচ্চ রেকর্ড হয় ২০১৬ সালে সাড়ে আট কোটি কেজি। এই সময় চা চাষে পুরোপুরি অনুকূল আবহাওয়া ছিল। এবার প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যেও উৎপাদন প্রত্যাশার চেয়ে ভাল হয়েছে। চা বোর্ড উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছিল এবার সাত কোটি ২৩ লাখ কেজি। বছর শেষে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে উৎপাদন ৯৭ লা
সম্প্রীতির দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছে বাংলাদেশ

সম্প্রীতির দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছে বাংলাদেশ

প্রাইম ডেস্ক : খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসাম্প্রদায়িক চেতনা ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারণেই বাংলাদেশ সম্প্রীতির দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছে। শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুরে মডেল মসজিদ নির্মাণকাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, এ দেশে ধর্ম যার যার, উৎসব সবার। প্রতিটি উৎসবেই সব ধর্মের মানুষ অংশ নিয়ে মেতে ওঠে। মসজিদের নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন জেলার পোরশা জামিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসার পরিচালক আলহাজ শরিফুদ্দিন শাহ চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নিয়ামতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়া মারিয়া পেরেরা। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ উদ্দীন, স্থানীয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল হক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
১০ কোটি নাগরিকের এনআইডি ভেরিফায়েড : পলক

১০ কোটি নাগরিকের এনআইডি ভেরিফায়েড : পলক

প্রাইম ডেস্ক : দেশের ১০ কোটি নাগরিকের পরিচয়পত্র (আইডি) যাচাই-বাছাইয়ের পর ভেরিফায়েড বা যাচাইকৃত অবস্থায় আছে। আর সেসব আইডির তালিকা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের কাছে আছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। রবিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিসিসির মিলনায়তনে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) যাচাইয়ে ‘পরিচয় ডট গভ ডট বিডি’ পোর্টালের সঙ্গে ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের (ইবিএল) এক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমনটাই জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পাশাপাশি ইবিএল-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আলী রেজা ইফতেখারসহ ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ চুক্তির মাধ্যমে বেসরকারি খাতের ব্যাংক হিসেবে প্রথম পোর্টালটির সঙ্গে যুক্ত হল ইবিএল। চুক্তির ফলে ইবিএল একটি নির্দিষ্ট আইডি ও
রোহিঙ্গা ব্যয় নিয়ে গুজবঃ যে পথে ব্যয় ৭২ হাজার কোটি টাকা

রোহিঙ্গা ব্যয় নিয়ে গুজবঃ যে পথে ব্যয় ৭২ হাজার কোটি টাকা

প্রাইম ডেস্ক : বিশ্বের ছোট একটি দেশ হলো বাংলাদেশ। ছোট্ট এই দেশটিতে বসবাস করছে প্রায় ১৭ কোটি মানুষ। প্রায় দেড় লাখ বর্গ কিলোমিটারের এই দেশটিতে এতো মানুষ থাকার কারণে সবারই নাভিশ্বাস অবস্থা। এরই মধ্যে নতুন করে এই দেশে যোগ হয়েছে মিয়ানমার থেকে জাতিগত নিধনের শিকার পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা। কক্সবাজারে অবস্থান নেওয়া দুই বছরে রোহিঙ্গাদের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ১১ লাখ। গত দুইবছরে এই রোহিঙ্গাদের পেছনে সরকারের ব্যয় হয়েছে ৭২ হাজার কোটি টাকা। যা একটি নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি। এছাড়াও প্রতিমাসে তাদের পেছনে আরো ব্যয় হচ্ছে আড়াই হাজার কোটি টাকারও বেশি। তবে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে একটি বিশেষ মহল উদ্দেশ্যমূলকভাবে সরকারের ৭২ হাজার কোটি টাকা ব্যয়কে অযৌক্তিক প্রমাণ করার চেষ্টায় লিপ্ত। তবে প্রত্যেকেরেই জানা উচিৎ সকল ক্ষতির হিসাব টাকা দিয়ে করা যায় না। ১১‘ লাখ রোহিঙ্গা এই দেশে আসার পর তারা পাহাড় কেট
এমবিবিএস পরীক্ষাতেও প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে তৎপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী!

এমবিবিএস পরীক্ষাতেও প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে তৎপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী!

প্রাইম ডেস্ক : যেকোন পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত অপতৎপরতা রুখে দিতে কঠোর অবস্থান নিয়ে সরকার। বিগত সময়ের সফলতা নিয়ে এবার ২০১৯-২০২০ সালের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষাতেও প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে মাঠে নেমেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। যদিও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নজরদারির কারণে প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের সদস্যরা অনেকেই গ্রেফতার হয়েছেন। অনেকেই আবার নিজেদের প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্র থেকে গুটিয়ে নিয়েছেন। তবুও ষড়যন্ত্রকারীরা মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে যেন নতুন করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে সেজন্য মাঠ পর্যায়ে তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বলছেন, প্রশ্ন ফাঁসের মতো ভয়াবহ সামাজিক ব্যাধি দূর করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। যার ফলে প্রশ্নপত্র ফাঁস নামক অভিশাপ থেকে মুক্তি পাচ্ছে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা ও শিক্ষার্থীরা। এখন প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে যারা কেবল গুজ
মহাসড়কে টোল ব্যবস্থা

মহাসড়কে টোল ব্যবস্থা

বাংলাদেশের বিভিন্ন সড়ক-মহাসড়কে টোল নেয়ার কোন ধরনের ব্যবস্থাপনা আগে ছিল না। কিছু দিন আগে প্রধানমন্ত্রীর এক সিদ্ধান্তে তেমন প্রস্তাবনা গৃহীত হলে তা কার্যক্রমের আওতায় আসার অপেক্ষায়। সড়ক ও জনপথ অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে তিনটি মহাসড়কে টোল আদায় করা হচ্ছে। এই তিন মহাসড়কের দৈর্ঘ্য অনুযায়ী টোলের হারেরও রকমফের হয়। টোল আদায়ের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা আসায় তা বিভিন্ন দেশের ব্যবস্থার সঙ্গে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বিভিন্ন দেশের টোল ব্যবস্থাপনায় দেখা যায়, শুধু সড়ক-মহাসড়ক হলেই টোল আদায় করা যাবে না। সেই সঙ্গে কিছু আনুষঙ্গিক বিকল্প ব্যবস্থাপনাও দৃশ্যমান করতে হয়। যেমন, সাধারণ মানুষের জন্য বিকল্প রাস্তা রাখাও জরুরী। যা উন্নত দেশের সড়ক ব্যবস্থাপনায় স্পষ্টভাবে দেখা যায়। টোল আদায় করা মহাসড়কে যান চলাচলেও বিশেষ সুবিধা দেয়া বাঞ্ছনীয়। বিদেশে মূলত বেসরকারী সংস্থার ব্যবস্থাপনায় নির্মিত সড়ক-মহাসড়কে টোল দেয়ার নিয়ম আছে। উন্