Day: অক্টোবর ২২, ২০১৯

পদ্মা সেতুতে বসলো ১৫তম স্প্যান, দৃশ্যমান ২২৫০ মিটার

পদ্মা সেতুতে বসলো ১৫তম স্প্যান, দৃশ্যমান ২২৫০ মিটার

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাজিরা প্রান্তে মঙ্গলবার পদ্মা সেতুর ১৫তম স্প্যান বসানো হলো। এতে সেতুর ২২৫০ মিটার দৃশ্যমান হলো। ১৫তম স্প্যানটি পিয়ার ২৩ এবং পিয়ার ২৪ এর উপর স্থাপন করা হয়। সেতুর আরো ৫টি স্প্যান শতভাগ প্রস্তুত আছে যা বসানোর প্রক্রিয়াধীন। যত দ্রুত সম্ভব স্প্যানগুলো পিয়ারের উপর বসানো হবে। এর আগে গত ১৪ অক্টোবর সোমবার স্প্যানটি জাজিরার চর থেকে ২৩-২৪ নম্বর পিয়ারের কাছে নেওয়া হয়। তবে, এরমধ্যে মাওয়া প্রান্তে একটি স্প্যান অস্থায়ীভাবে বসানো আছে। এ ব্যাপারে প্রকৌশলীরা জানান, বর্ষাকালে পদ্মা নদীতে প্রচুর পলি আসে। পলি জমে চ্যানেল প্রায় বন্ধ হয়ে যায়। স্প্যান বহনকারী ক্রেনটি নাব্য সংকটের কারণে চলতে পারে না। তাই, স্প্যান বসানোর শিডিউল এভাবে নির্ধারণ করা হয়।
চালক-পথচারী উভয়কেই সচেতন থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

চালক-পথচারী উভয়কেই সচেতন থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'চলাফেরার সময় পথচারীদের যেমন দায়িত্ব আছে, তেমনি চালকদেরও দায়িত্ব আছে। সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।' মঙ্গলবার সকালে রাজধানীতে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসের আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন। রাস্তা পারাপারে পথচারীদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, 'চলাফেরায় সচেতন থাকতে হবে সবাইকে। দুর্ঘটনা ঘটলে দেখতে হবে আসলে দোষ কার। পথচারীদের যেমন দায়িত্ব আছে, তেমনি যারা চালান তাদেরও দায়িত্ব আছে। পেছন দেখে চলতে হবে। দায়িত্ব নিজের। এটা সড়কপথের পাশাপাশি রেলপথের ক্ষেত্রেও। রেলপথে আরও সতর্ক হতে হবে ক্রসিংয়ে গেলে। তিনি আরও বলেন, 'এটাতো একটা যান্ত্রিক বিষয়। ট্রেন চলে আসলো, সামনে ক্রসিং লক্ষ্য রেখে যেতে হবে। না হলে দুর্ঘটনা কমানো সম্ভব নয়। সবার সহযোগিতা দরকার। আবারও বলছি, সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। ধৈর্য ধরতে হবে। শুধু চালককে দুষলে হবে না। আমর
আবারও বাংলাদেশের ছবিতে শিনা চৌহান

আবারও বাংলাদেশের ছবিতে শিনা চৌহান

প্রাইম বিনোদন : মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘পিঁপড়াবিদ্যা’র সুবাদে প্রথম বাংলাদেশের ছবিতে কাজ করেন ভারতের জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী শিনা চৌহান। ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৪ সালে। পাঁচ বছর আবার বাংলাদেশের ছবিতে কাজ করতে যাচ্ছেন শিনা। এবার নির্মাতা অনম বিশ্বাসের নতুন ছবি ‘আনফেয়ার’-এ দেখা যাবে শিনাকে। এমনটাই জানিয়েছেন ভারতের এই শিল্পী। শিনা চৌহান বলেন, অনম বিশ্বাসের কাজগুলো আমার ভালো লাগে। তিনি তার নতুন ছবিতে আমাকে ডাকায় খুশি হয়েছি। কিছুদিন আগে এ ব্যাপারে তার সঙ্গে আমার চূড়ান্ত কথা হয়েছে। ছবির বিষয়বস্তুটি আমার খুব ভালো লেগেছে। আশা করি, দারুণ কিছু একটা হবে।‘আনফেয়ার’ ছবির গল্পে দেখা যাবে, ক্যারিয়ার গড়তে গ্রাম থেকে শহরে আসেন শিনা। কিন্তু সেখানে তিনি বৈষম্যের শিকার হন। ১৫ মিনিট ব্যাপ্তির এই ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন ব্রিটিশ চিত্রনাট্যকার ফ্রেজার স্কট। এর প্রযোজক হিসেবে থাকছে মুসাফির সৈয়দ। নির্মাতা অনম বিশ্ব
ভোলার ঘটনায় যেসব দাবি জানিয়েছে হেফাজত

ভোলার ঘটনায় যেসব দাবি জানিয়েছে হেফাজত

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভোলার বোরহানউদ্দিনে সাধারণ মুসল্লিদের ওপর পুলিশের গুলি বর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। আজ মঙ্গলবার জোহরের নামাজ শেষে রাজধানীর বাইতুল মোকাররম জামে মসজিদের উত্তর গেটে বিক্ষোভ মিছিল করেন দলটির নেতাকর্মীরা। বিক্ষোভ মিছিল থেকে বোরহানউদ্দিনের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে ৫টি দাবি উত্থাপন করেন তারা। একই সঙ্গে পরবর্তী কর্মসূচিও ঘোষণা করা হয়। হেফাজতে ইসালামের দাবিসমূহ ১. ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও আল্লাহকে নিয়ে কটূক্তিকারী হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। ২. পুলিশের গুলিতে নিহত শহীদদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। ৩. পুলিশের গুলিতে আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে। ৪. নির্বিচারে গুলি বর্ষণকারী অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে।
জাপানে আনুষ্ঠানিকভাবে সিংহাসনে বসলেন সম্রাট নারুহিতো

জাপানে আনুষ্ঠানিকভাবে সিংহাসনে বসলেন সম্রাট নারুহিতো

প্রাইম আন্তর্জাতিক  : জাপানে এক জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সিংহাসনে আরোহণ করছেনে সম্রাট নারুহিতো (৫৯)। চলতি বছরের মে মাসে নারুহিতোর বাবা সাবেক সম্রাট আকিহিতো অসুস্থতার কারণে সিংহাসন ত্যাগ করেন। উত্তরাধিকার সূত্রে তখন থেকেই সম্রাট হিসেবে নারুহিতো সিংহাসনে বসলেও ঐতিহ্যগত অনুষ্ঠান বাকি ছিল। মঙ্গলবার সম্রাটের অভিষেক অনুষ্ঠানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। টোকিওর রাজপ্রাসাদে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সম্রাটের পরনে ছিল হলুদ-কমলা রঙ্গের ঐতিহ্যগত পোশাক। সম্রাটের সঙ্গে ছিলেন সম্রাজ্ঞী মাসাকো। অনুষ্ঠানের শুরুতে সম্রাট ৬ দশমিক ৫ মিটার উঁচু এক সিংহাসনে আরোহণ করেন সম্রাট। এরপর এক আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বাক্য পাঠ করেন। পরে একাধিক ঐহিত্যগত অনুষ্ঠানের পর নারুহিতোর সিংহাসনে আরোহণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। সম্রাটের অভিষেক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, যুক্তর
বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে ক্রিকেটাররা: বিসিবি সভাপতি

বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে ক্রিকেটাররা: বিসিবি সভাপতি

প্রাইম খেলাধুলা  : ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবিতে ডাকা ধর্মঘট ও খেলা বয়কটের পর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, 'বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে ক্রিকেটাররা। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আগে ক্যাম্প ও খেলা বয়কট পরিকল্পিত।' মঙ্গলবার বিকালে বিসিবিতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, 'কারা দেশের বিরুদ্ধে কাজ করছে, বাইরেরগুলোকে আমরা চিনি, আমি কিছুদিন সময় চাচ্ছি, এগুলো খুঁজে বের করতে হবে। তোমরা যদি না খেল, প্লেয়াররা যদি না খেলে, আমার কী করার, কিন্তু তাদের লাভ কি সেটা বুঝতে পারছি না। ধর্মঘটে অংশ নেওয়া ক্রিকেটারদের এই পদক্ষেপের বিষয়ে তিনি বলেন, 'আমার মনে হয়, ওদের সবাই জানেনা তারা কি করছে। তাদের বেশিরভাগই জানে না আসল পরিকল্পনা কি। মাত্র দুই-একজন নেতৃত্ব দিচ্ছে, বাকিরা পিছে এসেছে। বিসিবি সভাপতি বলেন, 'ক্যাম্প শুরু হচ্ছে, প্লেয়াররা যদি না যায়, আমার কিছু বল
অনলাইনে সরকারি সেবা দিতে ‘একপে’, ‘একসেবা’ ও ‘একশপ’-এর যাত্রা শুরু

অনলাইনে সরকারি সেবা দিতে ‘একপে’, ‘একসেবা’ ও ‘একশপ’-এর যাত্রা শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক : অনলাইনে সরকারি সেবা, বিল পরিশোধ ও ডিজিটাল মিউনিসিপালটি সার্ভিস দিতে  ‘একপে’, ‘একসেবা’ ও ‘একশপ’ চালু করেছে সরকার। রোববার (২০ অক্টোবর) এই তিন ডিজিটাল সরকারি সেবার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ। জানা গেছে, পরীক্ষামূলকভাবে দেশের ১০টি মিউনিসিপাল অঞ্চলে (সিটি করপোরেশন ও পৌরসভা) সেবা দেয়া হচ্ছে। দেশের ৩২৯টি মিউনিসিপাল অঞ্চলকে এর আওতায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। জানা গেছে, আইসিটি বিভাগের এটুআই প্রকল্পের আওতায় আপাতত ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন এবং ৯টি পৌরসভায় এসব নাগরিক সেবা পাওয়া যাবে। পরে তা ছড়িয়ে দেওয়া হবে সারা দেশে। ডিজিটাল অটোমেশন পদ্ধতিতে নাগরিক সেবার এই কার্যক্রম চালু হওয়ায় ওই ১০ এলাকার অধিবাসীরা অনলাইনে পৌরসভা/সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন সেবা পাওয়ার পাশাপাশি হোল্ডিং ট্যাক্স ও বিভিন্ন সরকারি সেবার বিল দিতে পার
‘সাড়ে ২২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে’

‘সাড়ে ২২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, বিএনপি জোট সরকারের আমলে গাছের পাতা নড়লেই বিদ্যুৎ চলে যেতো। বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ঠ ছিল সারা দেশের মানুষ। সেই আমলে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন হতো মাত্র সাড়ে ৩ হাজার মেগাওয়াট। কিন্তু বর্তমান সরকারের আমলে সাড়ে ২২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। ফলে বিদ্যুৎ বিভ্রাট যে কী, তা ভুলতেই বসেছে দেশের মানুষ। গতকাল রোববার ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশনের মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গার নবনির্মিত ৩৩ কেভি লাইনের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে পা রেখেছে। নিয়মিত বিদ্যুৎ থাকায় ছেলে-মেয়েদের এখন আর হারিকেন বা মোমবাতির আলোর প্রয়োজন হয় না। গ্রাম পর্যায়ে বিদ্যুতের লাইন সম্প্রসারণ করা হয়েছে। এরই মধ্যে তিন উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আনা হয়েছে। দেশের প্রতিটি খাতে এখন লেগেছে উন্নয়নের ছোঁয়া।
‘চরের মানুষ পাকা রাস্তা,পড়ালেখার জন্য স্কুল-মাদ্রাসা পেয়েছে’

‘চরের মানুষ পাকা রাস্তা,পড়ালেখার জন্য স্কুল-মাদ্রাসা পেয়েছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ফরিদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, চরের মানুষ আর শহরের মানুষের মধ্যে কোনো পার্থক্য থাকবে না। এই সরকারের সময়ে পদ্মা নদীর দুর্গম চরের মানুষ পাকা রাস্তা পেয়েছে, পড়ালেখার জন্য স্কুল-মাদ্রাসা পেয়েছে। এক সময়ের অবহেলিত মানুষগুলো আজ তাদের অধিকার আদায় করতে শিখেছে। কেউ আর তাদের উপর খবরদারি করতে পারবে না।গতকাল রোববার দুপুরে ফরিদপুর সদর উপজেলার নর্থ-চ্যানেল ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।মোশাররফ হোসেন বলেন, দারিদ্র্য বিমোচনে বঙ্গবন্ধু কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিনিয়ত এগিয়ে যাচ্ছেন, শুধু শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে এটা সম্ভব হচ্ছে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মজিদ ফকিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও জেল
বহিঃবিশ্বের নিকট বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের বিস্ময়

বহিঃবিশ্বের নিকট বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের বিস্ময়

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের অর্থনীতিতে এখন রমরমা অবস্থা। বিশ্বব্যাপী ক্রমাগত আর্থিক মন্দা সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ গত ১০ বছর ধরে সমৃদ্ধি বজায় রেখেছে। দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি তালিকায় উঠে এসেছে বাংলাদেশ। এর সুফলও পাচ্ছে দেশের মানুষ। এখন আর কোন মানুষ না খেয়ে থাকে না। খাদ্য ঘাটতির ‘তলাবিহীন ঝুড়ি’ এখন খাদ্যশস্যে উপচে পড়ছে। দারিদ্র্য দূরীকরণে এসে অভাবনীয় সাফল্য। মানুষের গড় আয়ুও বেড়েছে। প্রায় ঘরে ঘরেই পৌঁছে গেছে বিদ্যুত। শিশু ও মাতৃমৃত্যু হ্রাসে ‘বলিষ্ঠ অগ্রগতি’ অর্জন করেছে। মাইলফলক অর্জন এসেছে নারী-পুরুষ সমতা এবং বিদ্যালয়ে শতভাগ ভর্তির ক্ষেত্রে। জলবায়ু অভিযোজনে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক বাংলাদেশ এখন সৌরবিদ্যুত ব্যবহারকারী হিসেবে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে। উচ্চ প্রবৃদ্ধির ক্ষেত্রে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ৪৫টি দেশের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ। ২০১৯-২০